খাগড়াছড়ি সরকারি কলেজে শিক্ষক সংকট নিরসনসহ বিভিন্ন দাবিতে পিসিপি’র বিক্ষোভ

0
1

সিএইচটি নিউজ ডটকম
PCP protest khagrachari, 26.08.2015

খাগড়াছড়ি : “মেডিক্যাল কলেজ ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় নয়, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক প্রতিষ্ঠানসমূহের মান বৃদ্ধি কর” এই শ্লোগানে খাগড়াছড়ি সরকারি কলেজে শিক্ষক সংকট নিরসন, পর্যাপ্ত কলেজ বাস, ছাত্রাবাস ও অবকাঠামো উন্নয়নসহ নতুন বিষয়ে অনার্স কোর্স চালুর দাবিতে বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ(পিসিপি) খাগড়াছড়ি সরকারি কলেজ শাখার উদ্যোগে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বুধবার (২৬ আগস্ট) সকাল ১০:৩০টায় কলেজের দক্ষিণ গেইট থেকে মিছিলটি শুরু হয়ে চেঙ্গী স্কোয়ার প্রদক্ষিণ করে কলেজের পূর্ব গেইট দিয়ে ঢুকে ঐতিহাসিক কড়ইতলায় সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করে। সমাবেশে কলেজ শাখার অর্থ সম্পাদক নিকাশ চাকমার সঞ্চালনায়, সাংগঠনিক সম্পাদক এলটন চাকমা’র সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন, দ্বাদশ শ্রেণীর ছাত্র রনেল দেওয়ান, রাষ্ট্রবিজ্ঞান ৪র্থ বর্ষের ছাত্র মংসাই মারমা, বিবিএস ১ম বর্ষের ছাত্র সোনায়ন চাকমা প্রমূখ।

বক্তারা বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামের অপারেশন উত্তরণের মাধ্যমে ধরপাকড়সহ নানা ধরনের নিপীড়ন-হয়রানির কারণে শিক্ষার্থীদের পড়াশোনার পরিবেশ দিন দিন অবনতি হচ্ছে। অশান্ত পরিস্থিতি ছাত্রদের নিরুদ্বেগে পাঠ্যে মনোনিবেশ করতে দেয় না। যা ছাত্র-ছাত্রীদের উপর দীর্ঘস্থায়ী প্রভাব ফেলে। এখানে উচ্চ শিক্ষা প্রবর্তনের আগে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষার মান বৃদ্ধির ব্যাপারে সরকারের নজর দেয়া জরুরি।

বক্তারা আরো বলেন, দীর্ঘ ৪১ বছর পরও খাগড়াছড়ি সরকারি কলেজে অবকাঠামোর উন্নয়ন হয়নি। পর্যাপ্ত কলেজ বাস না থাকায় ছাত্র-ছাত্রীরা কলেজে আসা-যাওয়ার ক্ষেত্রে নানা ভোগান্তির শিকার হচ্ছে। কলেজে ছাত্রাবাস না থাকায় আবাসন সংকটের কারণে প্রত্যন্ত এলাকার শিক্ষার্থীদের পড়াশুনার ব্যাঘাত ঘটছে।

বক্তারা বলেন, যেখানে ৪৬ জন শিক্ষক নিয়ে পাঠদান হওয়ার কথা সেখানে মাত্র ২৮ জন শিক্ষক নিয়ে পাঠদান করানো হচ্ছে। সমাজ বিজ্ঞান বিভাগে একজনও শিক্ষক নেই। এমতাবস্থায় শিক্ষার মান কীভাবে বাড়ানো সম্ভব। ২০১৫ সালের এইচএসসি রেজাল্টই তা প্রমাণ করে দিয়েছে। যেখানে পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ছিল ৭৯৯ জন সেখানে উত্তীর্ণ হয়েছে মাত্র ৩৯৫ জন।

বক্তারা অবিলম্বে পার্বত্য চট্টগ্রামে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মান বৃদ্ধি, কলেজে শিক্ষক সংকট নিরসন, পর্যাপ্ত কলেজ বাস, ছাত্রাবাস নির্মাণসহ অবকাঠামোর উন্নয়ন ও নতুন বিষয়ে অনার্স কোর্স চালুর দাবি জানান।

এদিকে পিসিপি’র নেতৃবৃন্দ অভিযোগ করে বলেছেন, সমাবেশের শেষ প্রান্তে তথাকথিত বাঙালি ছাত্র পরিষদ নামধারী কতিপয় দুর্বৃত্ত অহেতুক ঝামেলা সৃষ্টি করে সাম্প্রদায়িক উস্কানির চেষ্টা চালালে কিছুটা উত্তেজনাকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। পরে সেনাবাহিনী ও পুলিশ উপস্থিত হয়ে সাম্প্রদায়িক উস্কানিদাতাদের বিরুদ্ধে কোন পদক্ষেপ না নিয়ে উল্টো পিসিপি নেতা-কর্মীদের ধরপাকড়ের চেষ্টা চালিয়েছে।

পিসিপি কলেজ শাখার নেতৃবৃন্দ এ ঘটনাকে পরিকল্পিত উল্লেখ করে এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন এবং এ ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ পদক্ষেপ গ্রহণের দাবি করেছেন।

———————
সিএইচটিনিউজ.কম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.