খাগড়াছড়ি সরকারি কলেজে সাম্প্রদায়িক বিষবাষ্প ছড়ানোর অভিযোগ

0
2

Khgcollegeখাগড়াছড়ি প্রতিনিধি।। খাগড়াছড়ি জেলা সদরের খাগড়াছড়ি সরকারি কলেজ একটি গুরুত্বপূর্ণ বিদ্যাপীঠ। সম্প্রতি এই কলেজে মাস্টার্স কোর্স চালু করা হয়েছে। এই কলেজ থেকে পাহাড়ি-বাঙালি হাজার হাজার ছাত্র-ছাত্রী উচ্চ শিক্ষা লাভ করেছেন। অনেকে বিভিন্নভাবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন। কিন্তু ইদানিং সেটলার বাঙালিদের উগ্রসাম্প্রদায়িক একটি সংগঠন কলেজে পাহাড়ি বিদ্বেষী কার্যক্রম চালাচ্ছে এবং সাম্প্রদায়িক বিষবাষ্প ছড়ানোর চেষ্টা করছে বলে পাহাড়ি ছাত্র-ছাত্রীরা অভিযোগ করেছেন। বিশেষ করে পার্বত্য বাঙালি ছাত্র পরিষদ নামধারী উগ্রসাম্প্রদায়িক সংগঠনটি এই কার্যক্রম চালাচ্ছে বলে তারা জানান। আর সেনাবাহিনী ও ডিজিএফআইয়ের একটি কায়েমী স্বার্থবাদী অংশ তাদেরকে পৃষ্টপোষকতা দিচ্ছে বলে তারা অভিযোগ করেন। এছাড়া কলেজের ভাইস প্রিন্সিপালের বিরুদ্ধেও এদেরকে মদদ দেয়ার অভিযোগ রয়েছে।

ছাত্র-ছাত্রীরা সিএইচটি নিউজ ডটকমকে জানান, আজ রবিবার (২৪ জুলাই) সকাল ১১টার দিকে ক্লাশ চলাকালীন কতিপয় বহিরাগত বাঙালি ছাত্র (তারা নিজেদের বাঙালি ছাত্র পরিষদের কর্মী পরিচয় দেয়) ক্লাশরুমে ঢুকে পাহাড়ি ছাত্র-ছাত্রীদের হুমকি দিয়ে বলে যে, কলেজ ক্যাম্পাসে পাহাড়ি ছাত্র-ছাত্রীরা আর বসে আড্ডা দিতে পারবে না। এটা করলে তারা যদি হামলা চালায় তাহলে কেউ দায়ী থাকবে না। তারা কলেজে পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের কোন কার্যক্রম চালানো যাবে না বলেও হুমকি দেয়।Khgcollege2

তারা(বাঙালিরা) যখন ক্লাশরুমে ঢুকে এ ধরনের হুমকি দিচ্ছিল তখন ডিজিএফআইয়ের এক সদস্যও তাদের সাথে ছিল বলে ছাত্র-ছাত্রীরা জানিয়েছেন।  এছাড়া বাঙালি ছাত্র পরিষদের নেতা ও পৌরসভার ২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মাসুম রানাকেও তাদের সাথে দেখা গেছে। তারা ডিজিএফআইয়ের ওই সদস্যকে ’মেজর আতিক’ নামে পরিচয় করিয়ে দিয়ে ভয় দেখানোর চেষ্টা করেন, যদিও তিনি মেজর আতিক নন। তার নাম মহিউদ্দিন বলে জানা গেছে। এ সময় পুলিশের একটি গাড়িও কলেজ ক্যাম্পাসে অবস্থান নিয়েছিল বলে ছাত্র-ছাত্রীরা জানান।

বাঙালি ছাত্রদের এই হুমকি-ধামকি শেষ হওয়ার ১০ মিনিট পর সেনাবাহিনীর দুটি জীপ কলেজের বিপরীত গেইটে অবস্থান নিতে দেখা গেছে বলে ছাত্র-ছাত্রীরা এই প্রতিবেদককে জানিয়েছেন। এতেই প্রমাণ হয় যে, কলেজে এ ধরনের উগ্রসাম্প্রদায়িক উস্কানিমূলক কর্মকাণ্ডের পেছনে কারা জড়িত রয়েছে।

এদিকে, কলেজে এ ধরনের উগ্রসাম্প্রদায়িক বিষবাষ্প ছড়ানোর ঘটনায় পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের নেতৃবন্দ গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন এবং এ ধরনের কার্যক্রমের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য কলেজ প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন।
—————-

সিএইচটি নিউজ ডটকম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.