গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের ১৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে গুইমারায় আলোচনা সভা

0
84

গুইমারা প্রতিনিধি ।। গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের ১৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে আজ সোমবার (৫ এপ্রিল ২০২১) গুইমারায় আলোচনা সভা করেছে সংগঠনটির মাটিরাঙ্গা-গুইমারা শাখা।

‘অবিলম্বে ভ্রাতৃঘাতি সংঘাত বন্ধ কর, লড়াই-সংগ্রামের পথ ধর’ এই আহ্বানে ও পার্বত্য চট্টগ্রামে ঐতিহ্যবাহী প্রধান উৎসব বৈ-সা-বি উপলক্ষে ৪ দিনের সাধারণ ছুটি ঘোষণা ও পরিত্যক্ত সেনা ক্যাম্পের জায়গায় পুলিশ ক্যাম্প স্থাপনের সিদ্ধান্ত বাতিলের দাবিতে এই সভার আয়োজন করা হয়।

সভা শুরুতে আন্দোলন করতে গিয়ে আত্মবলিদানকারী শহীদদের প্রতি গভীর সম্মান জানিয়ে দাঁড়িয়ে ১ মিনিট নিরবতা পালন করা হয়।

সভায় গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের মাটিরাঙ্গা উপজেলার সাধারণ সম্পাদক ধারাজ চাকমা চাকমার সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন ইউপিডিএফ সংগঠক তানিমং মারমা, গণতান্ত্রিক যুব ফোরাম খাগড়াছড়ি জেলা প্রতিনিধি শুভ চাকমা, বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ ( পিসিপি) মাটিরাঙ্গা উপজেলা শাখার সভাপতি অনিমেষ চাকমা ও গণতান্ত্রিক যুব ফোরাম মাটিরাঙ্গা উপজেলার সভাপতি নন্দলাল ত্রিপুরা।

ইউপিডিএফ’র গুইমারা অঞ্চলের সংগঠক তানিমং বলেন, গণতান্ত্রিক যুব ফোরাম পার্বত্য চট্টগ্রামের অধিকার আদায়ের আন্দোলনে এক বিরাট শক্তি। এই শক্তি যুব সমাজের মধ্যে বিকশিত করতে হবে। পাহাড়ে ভূমি রক্ষায় রক্ষাকবচ হিসেবে যুব ফোরামের নেতৃত্বে যুব সমাজকে সব সময় প্রস্তুত থাকতে হবে। যে কোনো অন্যায়-অবিচারের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে হবে।

শুভ চাকমা বলেন, প্রতি বছর পার্বত্য চট্টগ্রামে বৈ-সা-বি উৎসবের সময় সেটলাররা পাহাড়ে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টি করে পাহাড়িদের উপর সাম্প্রদায়িক হামলার পাঁয়তারা চালায়। গতকাল মাটিরাঙ্গা তাইন্দং-তবলছড়ি এলাকায় তারা সেই চেষ্টা চালিয়েছে।

তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশ একটি অসাম্প্রদায়িক দেশ বলা হলেও আজও ধর্মীয় বৈষম্য বিদ্যমান দেখা যায়। একটি অসাম্প্রদায়িক দেশ হলে কেন পার্বত্য চট্টগ্রামের পাহাড়ি জাতিসত্তার মানুষের প্রধান উৎসবে সরকারিভাবে সাধারণ ছুটি থাকবে না? তাই আমরাও এদেশের নাগরিক হিসেবে প্রাণের উৎসব বৈ-সা-বি’তে ৪ দিনের সাধারণ ছুটির দাবি জানাই। একই সাথে পার্বত‍্য চট্টগ্রামে চুক্তির পরে পরিত্যক্ত সেনা ক‍্যাম্পের জায়গায় পুলিশ ক‍্যাম্প স্থাপনের সিদ্ধান্ত প্রত্যাখ্যান করে অনতিবিলম্বে এই সিদ্ধান্ত বাতিলের দাবি জানাচ্ছি।

পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ (পিসিপি) মাটিরাঙ্গা উপজেলা শাখার সভাপতি অনিমেষ চাকমা বলেন, গণতান্ত্রিক যুব ফোরাম এমন একটি সংগঠন যে সংগঠন পার্বত‍্য চট্টগ্রাম জুম্ম জাতির যুব শক্তির বহিঃপ্রকাশ। এ সংগঠন শুরু থেকেই জুম্ম জাতির অধিকার প্রতিষ্ঠাসহ ভূমি রক্ষার আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছে। মাদক, জুয়ার বিরুদ্ধে এ সংগঠনটি জোরালো ভূমিকা রাখছে এবং যুব সমাজকে লড়াই-সংগ্রামে নিযুক্ত করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

যুব ফোরামের মাটিরাঙ্গা উপজেলার সভাপতি নন্দলাল ত্রিপুরা বলেন, পার্বত‍্য চট্টগ্রাম জুড়ে যে অপশাসন, দুঃশাসন চলছে তা যুব শক্তিকে একত্র করে দাঁতভাঙা জবাব দিতে হবে। আজ আমাদের জুম্ম জনগণের উপর প্রতিনিয়ত নিপীড়ন-নির্যাতন, খবরদারি-নজরদারি ও হয়রানি করা হচ্ছে। সাজানো নাটক বানিয়ে সাধারণ জনগণ থেকে শুরু করে জনপ্রতিনিধিদেরও আটক করা হচ্ছে। ফলে জনগণকে আজ চরম নিরাপত্তাহীনতার মধ্যে জীবন-যাপন করতে হচ্ছে। তাই সচেতন যুবক হিসেবে আমাদের এই অপশাসনের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে হবে।

এছাড়াও সভায় যুব ফোরামের গুইমারা উপজেলা সভাপতি অমরেশ চাকমা, ইউপিডিএফ সদস্য নিশানসহ গুইমারা ও মাটিরাঙ্গা এলাকার ছাত্র-যুব-নারী প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

 


সিএইচটি নিউজে প্রকাশিত প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ,ভিডিও, কনটেন্ট ব্যবহার করতে হলে কপিরাইট আইন অনুসরণ করে ব্যবহার করুন।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.