গুইমারা ব্রিগেড কমান্ডারের সাম্প্রদায়িক বক্তব্য!

0
4

সিএইচটি নিউজ ডটকম
Guimaraগুইমারা (খাগড়াছড়ি) প্রতিনিধি ॥ সেনাবাহিনীর গুইমারা ব্রিগেডের কমান্ডার (২৪ আর্টিলারি) ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোঃ তোফায়েল আহমেদ পিএসসি এলাকায় সাম্প্রদায়িক বিষবাষ্প ছড়াচ্ছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

তিনি সরাসরি সেটলার বাঙালিদের পক্ষ নিয়ে যেমনি পাহাড়িদের বিপক্ষে কাজ করছেন (যেমন-সেটলারদের দিয়ে পাহাড়িদের জায়গা-জমি বেদখল, হয়রানি-নির্যাতন, বাড়িঘর তল্লাশি ইত্যাদি), তেমনি পাহাড়িদের মধ্যেকার আন্ত:সম্প্রদায়গত বিভেদ সৃষ্টিরও পাঁয়তারা করছেন।

ব্রিগেড কমান্ডার নিজে মনে করেন পাহাড়িরা যেসব জায়গায় বসতি স্থাপন করছেন সেসব জায়গা বাঙালিদের। গত ৩১ আগস্ট মাটিরাংগা, রামগড়, মানিকছড়ি ও লক্ষ্মীছড়ি উপজেলার জনপ্রতিনিধি ও হেডম্যানদের নিয়ে ব্রিগেডে অফিসে আয়োজিত এক মিটিঙে তিনি প্রকাশ্যে বলেন, ‘পাহাড়িরা যেসব জায়গায় বসতি গড়ে তুলছে সেসব জায়গাতো বাঙালিদের। এটা মেনে নেয়া যায় না, কখনো মেনে নেবো না’।

মিটিঙে তিনি চাকমাদের বিরুদ্ধে মারমা-ত্রিপুরাদের ক্ষেপিয়ে তোলার মতো নানা ধরনের আজগুবি তথ্যও উপস্থাপন করেন বলে জানা গেছে। যেমন- চাকমারা নানা সুযোগ-সুবিধা ভোগ করছে, তাদের শিক্ষিতের হার বেশি কিন্তু সে তুলনায় মারমা-ত্রিপুরারা সুবিধা বঞ্চিত ও শিক্ষার দিক দিয়ে চাকমাদের থেকে পিছিয়ে রয়েছে। ইউএনডিপি স্কলারশিপে চাকমারা সুবিধা পাচ্ছে আর মারমা-ত্রিপুরারা বৈষম্যের শিকার হচ্ছে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

একজন উচ্চ পদস্থ সামরিক কর্মকর্তা হয়েও তার এ ধরনের পক্ষপাতমূলক ও সাম্প্রদায়িক কথাবার্তা শুনে জনপ্রতিনিধিদের অনেকে হতবাক হয়ে যান। তার এসব কথাবার্তার মাধ্যমে এটাই প্রমাণ হয় যে, তিনি উচ্চ পদবী ব্যবহার করে সাম্প্রদায়িকতাকে উস্কে দেয়ার চেষ্টা চালাচ্ছেন। অতীতেও এ ধরনের  মনোভাবাপন্ন সামরিক কর্মকর্তারাই পার্বত্য চট্টগ্রামে পাহাড়িদের উপর গণহত্যা ও সাম্প্রদায়িক হামলা সংঘটিত করেছেন।

ওই মিটিঙে ব্রিগেড কমান্ডার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রচারিত বিভিন্ন তথ্য উপস্থাপন করে আরো বলেন, “পার্বত্য চট্টগ্রামকে কিছুতেই ‘জুম্মল্যাণ্ড’ হতে দেবো না”।

মিটিঙে তিনি ইউপিডিএফকেও যাচ্ছেতাইভাবে গালমন্দ করেন। প্রয়োজনে এলাকায় আরো সেনাবাহিনী ও র‌্যাব মোতায়েন করা হবে বলেও হুমকি দেন তিনি।
——————-

সিএইচটিনিউজ.কম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.