গুইমারা, মাটিরাঙ্গা ও লক্ষ্মীছড়িতে ইউপিডিএফের ২২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত

0
20

নিজস্ব প্রতিনিধি, সিএইচটি নিউজ
শনিবার, ২৬ ডিসেম্বর ২০২০

খাগড়াছড়ি জেলার গুইমারা, মাটিরাঙ্গা ও লক্ষ্মীছড়িতে ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট(ইউপিডিএফ) এর ২২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত হয়েছে।

আজ ২৬ ডিসেম্বর ২০২০ শনিবার স্থানীয় ইউনিটের উদ্যোগে পৃথক পৃথকভাবে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর কর্মসূচি পালন করা হয়।

গুইমারা
খাগড়াছড়ির গুইমারায় ইউপিডিএফ’র স্থানীয় ইউনিটের উদ্যোগে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর কর্মসূচি পালন করা হয়।

সকাল ৮টা ১০ মিনিটে দলীয় পতাকা উত্তোল করেন ইউপিডিএফের মাটিরাঙ্গা ও গুইমারা ইউনিটের সংগঠক এডিশন চাকমা। এ সময় উপস্থিত সকলে স্যালুট জানিয়ে পতাকার প্রতি সম্মান প্রদর্শন করেন।

পতাকা উত্তোলনের পর সকল শহীদদের প্রতি সম্মান জানিয়ে অস্থায়ী স্মৃতিস্তম্ভে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন ইউপিডিএফের এডিশন চাকমা ও জিতেন ত্রিপুরা,তানিমং মারমা,আগুন মারমা, পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের মাটিরাঙ্গা উপজেলা শাখার অনিমেষ চাকমা,রেহেনা চাকমা, গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের পক্ষে ধারাজ চাকমা ও এলাকার জনগণের পক্ষে ক্যাহ্লাচিং মারমা ও সুদর্শন চাকমা পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। পুষ্পস্তবক অর্পণ শেষে শহীদের স্মরণে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়।

এরপর এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। তৈফাং ত্রিপুরার সঞ্চালনায় ও এডিশন চাকমার সভাতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন ইউপিডিএফ সংগঠক ঝিমিত চাকমা,  গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের খাগড়াছড়ি জেলা কমিটির সদস্য শুভ চাকমা, পিসিপি’র মাটিরাঙ্গা উপজেলা সভাপতি অনিমেষ চাকমা ও সুদর্শন চাকমা।

এতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ইউপিডিএফের মাটিরাঙ্গা ইউনিটের প্রতিনিধি তানিমং মারমা।

সভায় বক্তারা বলেন, নানা প্রতিকূলতা ও দমন-পীড়ন মোকাবেলা করে ইউপিডএফ আজ ২২ বছর অতিক্রান্ত করে তেইশ বছরে পা দিয়েছে। শত দমনপীড়নেও ইউপিডিএফকে লক্ষ্যচ্যুত করা যায়নি, ভবিষ্যতেও যাবে না। পার্বত্য চট্টগ্রামের মুক্তিকামী জনগণকে সাথে নিয়েই ইউপিডিএফ পূর্ণস্বায়ত্তশাসনের আন্দোলন চালিয়ে যাবে।

এদিকে সকাল থেকে ‍গুইমারার বিভিন্ন এলাকায় সেনা টহল জোরদার করা হয় এবং সেনাবাহিনীর বিভিন্ন স্থান থেকে ইউপিডিএফের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে টাঙানো ব্যানার-ফেস্টুন তুলে নিয়ে যায় বলে জানা গেছে।

মাটিরাঙ্গা
ইউপিডিএফের মাটিরাঙ্গা ইউনিটের উদ্যোগে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর কর্মসূচি পালণ করা হয়।

আজ সকালে দলীয় সংগীতের মধ্য দিয়ে দলীয় পতাকা উত্তোলন ও শহীদদের সম্মানে অস্থায়ী শহীদ স্মৃতিস্তম্ভে ইউপিডিএফ, পিসিপি, ডিওয়াইএফ ও এইচডব্লিউএফ এর নেতৃবৃন্দ এবং শহীদ পরিবারবর্গ পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।

এরপর শহীদদের স্মরণে এক মিনিট নিরবতা পালন শেষে ইউপিডিএফের কেন্দ্রীয় কমিটির বার্তা পড়ে শোনানো হয় এবং নেতা-কর্মীরা আন্দোলন সংগ্রামে অবিচল থাকার প্রতিজ্ঞাবদ্ধ হন।

পরে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় ইউপিডিএফ সদস্য অনুপম চাকমার সঞ্চালনায় ইউপিডিএফের মাটিরাঙ্গা ইউনিটের সংগঠক সুইমং মারমার সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন পিসিপি’র খাগড়াছড়ি জেলা কমিটির অর্থ সম্পাদক শান্ত চাকমা ও স্কুল শিক্ষক হিলিয়েস ত্রিপুরা। স্বাগত বক্তব্য রাখেন ইউপিডিএফ সংগঠক টারজেন চাকমা।

বক্তারা ইউপিডিএফের পতাকাতলে সমবেত হয়ে পূর্ণস্বায়ত্তশাসন আন্দোলনকে বেগবান করার জন্য জনগণের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামে ভূমি বেদখল থেকে শুরু করে সকল প্রকার নিপীড়ন-নির্যাতনের বিরুদ্ধে ইউপিডিএফ সর্বদা সোচ্চার রয়েছে। দীর্ঘ ২২ বছর ধরে ইউপিডিএফ জনগণের পাশে থেকে লড়াই সংগ্রাম চালিয়ে যাচ্ছে। আগামীতেও জনগণকে সাথে নিয়েই ইউপিডিএফ অধিকার আদায়ের লড়াই চালিয়ে যাবে।

লক্ষ্মীছড়ি
ইউপিডিএফের স্থানীয় ইউনিটের উদ্যোগে লক্ষ্মীছড়িতে পার্টির ২২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত হয়েছে।

আজ ২৬ ডিসেম্বর ২০২০, শনিবার সকালে ইউপিডিএফ ‘র লক্ষীছড়ি ইউনিটের প্রধান সংগঠক বিধুর চাকমার সঞ্চালনায় শুরুতে দলীয় সংগীত পরিবেশনের মধ্য দিয়ে দলীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। দলীয় পতাকা উত্তোলন করেন ইউপিডিএফ এর অন্যতম সংগঠক রতন বসু। এরপর অস্হায়ী স্মৃতিস্তম্ভে সকল শহীদের শ্রদ্ধা জানিয়ে পুস্পস্তবক অর্পন করেন ইউপিডিএফ এর অন্যতম সংগঠক রতন বসু, এইচডব্লিউএফ এর শিউলি চাকমা ও তার সহযোগীবৃন্দ, গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের লক্ষ্মীছড়ি উপজেলা শাখার সভাপতি উৎপল চাকমা ও তার সহযোগীবৃন্দ, বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ এর পক্ষ থেকে রুপান্ত চাকমা ও তার সহযোগীবৃন্দ। এছাড়াও এলাকার জনপ্রতিনিধি, হেডম্যান, কার্বারী, শিক্ষক ও সর্বস্তরের জনসাধারণ পুস্প অর্পন করেন।

এরপর সকল বীর শহীদের স্মরণে এক মিনিট নিরাবতা পালন করা হয়। তারপর ইউপিডিএফ এর অন্যতম সংগঠক প্রতিম চাকমা সংক্ষিপ্ত বক্তব্যের মাধ্যমে উপস্থিত পার্টির সকল সদস্য ও জনসাধারণকে প্রতিজ্ঞা পত্র পাঠ করে অনুষ্ঠানের ১ম পর্ব সমাপ্তি ঘোষণা করেন।

পরে অনুষ্ঠানের ২য় পর্বে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। ইউপিডিএফের লক্ষ্মীছড়ি ইউনিটের সংগঠক আপ্রুসি মারমার সঞ্চালনায় এতে  দ্বিতীয় অধিবেশনে সঞ্চালনা করেন ইউপিডিএফ এর লক্ষীছড়ি ইউনিটের সংগঠক আপ্রুসি মার্মা। ইউপিডিএফ’র লক্ষীছড়ি ইউনিটের প্রধান সংগঠক বিধুর চাকমার সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন স্বাগত বক্তব্য রাখেন ইউপিডিএফ’র অন্যতম সংগঠক প্রতিম চাকমা, পিসিপি লক্ষীছড়ি উপজেলা শাখার সভাপতি রুপান্ত চাকমা, গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের  উপজেলা শাখার সভাপতি উৎপল চাকমা প্রমুখ।

আলোচনা সভা শুরুর পূর্বে সুবিধাবাদী, দালাল, ধর্ষক, ভূমি দস্যু, প্রতিক্রিয়াশীলদের ধিক্কার জানিয়ে শিশুদের নিয়ে ‘কান্তা গুলি মারা’ খেলা অনুষ্ঠিত হয়।

এদিকে গতকাল রাতের আঁধারে লক্ষ্মীছড়ি জোনের সেনারা যতীন্দ্র পাড়া এলাকায় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে টাঙানো ফেস্টুনগুলো তুলে নিয়ে যায় বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

 


সিএইচটি নিউজে প্রকাশিত/প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ,ভিডিও, কনটেন্ট ব্যবহার করতে হলে কপিরাইট আইন অনুসরণ করে ব্যবহার করুন।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.