ঘিলাছড়িতে দুই নিরীহ গ্রামবাসীকে আটক করেছে সেনাবাহিনী

0
0

নান্যাচর : রাঙামাটির নান্যাচর উপজেলার ঘিলাছড়িতে গতকাল সোমবার রাতে দুই নিরীহ গ্রামবাসীকে ‘অস্ত্র’ গুঁজে দিয়ে আটক করেছে সেনাবাহিনী।
আটককৃতরা হলেন অনন্ত বিকাশ দেওয়ান(৬৭), পিতা- দেবসেন দেওয়ান ও সমর চাকমা(৩৭), পিতা পুতুল চাকমা।

জানা যায়, গতকাল সোমবার রাত ১০টার দিকে নান্যাচর জোন থেকে একদল সেনা সদস্য ঘিলাছড়িতে গিয়ে অনন্ত বিকাশ দেওয়ান (৬৭), পিতা দেবসেন চাকমা ও সমর চাকমা(৩৭), পিতা পুতুল চাকমার বাড়ি ঘেরাও করে। পরে তল্লাশির নামে ৮-১০জন সেনা সদস্য বাড়িতে ঢুকে পরিবারের সদস্যদের অগোচরে অস্ত্র রেখে দেয় এবং নিজেদের রেখে দেয়া ওই অস্ত্র উদ্ধার দেখিয়ে তাঁদের দু’জনকে আটক করে। এসময় মুখোশ বাহিনীর ২ সদস্য কাপড় দিয়ে মুখ ঢাকা অবস্থায় সেনা সদস্যদের সাথে দেখেছেন বলে তাদের পরিবারের সদস্যরা জানিয়েছেন।
আটকের পর তাঁদেরকে প্রায় ২ ঘন্টা পর্যন্ত ঘিলাছড়ি বাজার ও ক্যাম্পে রেখে রাত ১২টার দিকে নান্যাচর নিয়ে যাওয়া হয়। এসময় সেনারা তিন জন দোকানদারের কাছ থেকে জোরপূর্বক স্বাক্ষর নেয় বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

ইউনাইটেড পিপল্স ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট(ইউপিডিএফ)-এর রাঙামাটি জেলা ইউনিটের সংগঠক সচল চাকমা আজ মঙ্গলবার (১৭ জুলাই ২০১৮) সংবাদ মাধ্যমে প্রদত্ত এক বিবৃতিতে উক্ত আটকের ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন।

বিবৃতিতে ইউপিডিএফ নেতা বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামে সেনাবাহিনীর অন্যায় দমন-পীড়ন এমনভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে এখন সাধারণ মানুষও আর নির্যাতন-হয়রানির হাত থেকে রেহাই পাচ্ছে না। অস্ত্র গুঁজে দিয়ে “সন্ত্রাসী” সাজিয়ে আটকের ঘটনা যেন নিত্যনৈমিত্তিক ঘটনায় পরিণত হয়েছে। প্রমোশন লাভের আশায় সেনাবাহিনী এ ধরনের অন্যায় ধরপাকড় ও নিপীড়ন-নির্যাতন চালাচ্ছে বলে তিনি মন্তব্য করেন।

তিনি অবিলম্বে সাজানো মিথ্যা অভিযোগ আটক দুই নিরীহ নিরপরাধ গ্রামবাসীকে নিঃশর্ত মুক্তি ও অন্যায় ধরপাকড় এবং জনহয়রানিমূলক সেনা অভিযান বন্ধের দাবি জানিয়েছেন
——————–
সিএইচটিনিউজ ডটকম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.