চট্টগ্রামে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে পুলিশী বাধা ও হামলার প্রতিবাদে ঢাকায় পিসিপি’র বিক্ষোভ

0
0

সিএইচটিনিউজ.কম
ঢাকা: “সরকারের ফ্যাসীবাদী নগ্ন দমন নীতির বিরুদ্ধে ছাত্র-যুব-নারী সমাজ রুখে দাঁড়াও! চট্টগ্রামে পিসিপি’র ২৬তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী অনুষ্ঠানে প্রশাসনের বাধা প্রদান, পুলিশ কর্তৃক ব্যানার ছিনতাই, জেএম সেন হ’লে তালা ঝুলিয়ে নেতা-কর্মীদের হেনস্থা করার প্রতিবাদে” পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ ঢাকা শাখার উদ্যোগে এক বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। জাতীয় প্রেসক্লাবের সম্মুখে বিকাল সাড়ে ৪টায় পিসিপি ঢাকা শাখার সংগঠক সুজেল চাকমার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সংক্ষিপ্ত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশেনের সভাপতি এমএম পারভেজ লেনিন, হিল উইমেন্স ফেডারেশনের সভাপতি নিরূপা চাকমা, গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের সভাপতি মাইকেল চাকমা। সভা পরিচালনা করেন পিসিপি নেতা বিপুল চাকমা।

সমাবেশে বাংলাদেশে ছাত্র ফেডারেশনের সভাপতি এমএম পারভেজ লেনিন চট্টগ্রামে পিসিপি’র ২৬তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে পুলিশী বাধা এবং হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে বলেন, রাষ্ট্রীয় দমন-পীড়নের বিরুদ্ধে  পিসিপি’র ২৬ বছরের সংগ্রামী ঐতিহ্য রয়েছে। বর্তমান ফ্যাসিবাদী সরকার কর্তৃক পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের উপর হামলার অর্থ হচ্ছে পিসিপি সঠিক লাইনে রয়েছে। তিনি পাহাড় থেকে সেনাশাসন প্রত্যাহারের দাবী জানান।

গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের সভাপতি মাইকেল চাকমা বলেন, পাহাড়ে অঘোষিত জরুরী অবস্থা চলছে। খাগড়াছড়িসহ বিভিন্ন এলাকায় জনগণের পক্ষের সংগঠনগুলোর বিরুদ্ধে সভা-সমাবেশের উপর সেনাবাহিনী ও প্রশাসনের কড়া নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। খাগড়াছড়িতে পাহাড়ের প্রধান সামাজিক উৎসব বৈসাবি র‌্যালী পর্যন্ত করতে দেয়নি সরকার।

তিনি আরো বলেন, সরকারের পদলেহনকারী ও দালাল পাহাড়ি রাজাকার সন্তু লারমাকে বিশেষ নিরাপত্তা দিয়ে প্রশাসন বান্দরবানে তাকে সমাবেশ করতে সব রকম সহায়তা দিচ্ছে। কিন্তু যারা জনগণের পক্ষে কথা বলছে, যারা ভূমি বেদখল ও রাষ্ট্রীয় নিপীড়নের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ প্রতিরোধ করছে তাদেরকে ঘরোয়া সমাবেশ পর্যন্ত করতে দিচ্ছেনা। পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের ২৬তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানটি ছিল একটি হল রুমের ভিতর। তিনি অভিযোগ করে বলেন, প্রশাসন সম্পূর্ণ গায়ের জোরে অনুষ্ঠানে বাধা দিয়েছে, আয়োজকদের কাছ থেকে ব্যানার ছিনিয়ে নিয়েছে এবং হলরুমটিতে তালা ঝুলিয়ে দিয়ে পিসিপি’র নেতা কর্মীদের হেনস্থা করেছে, গ্রেফতারের হুমকি দিয়ে জেএমসেন হল প্রাঙ্গন ত্যাগ করতে নির্দেশ দিয়েছে। শুধু তাই নয়, পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের নেতারা বিকাল সাড়ে ৩টায় চট্টগ্রামের প্রেসক্লাবে সাংবাদিক সম্মেলন করতে গেলে সেখানে পুলিশ গোয়েন্দা সংস্থা তাদের অবরুদ্ধ করে রাখে। সংবাদ সম্মেলন শেষে প্রেসক্লাব থেকে বেরুনোর সময় বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশনের সাবেক সভাপতি সামিউল আলম সহ দু’জনকে আটক করে নিয়ে যায় পুলিশ।

তিনি পাহাড় থেকে অঘোষিত জরুরী অবস্থা প্রত্যাহার, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের দমনমূলক ১১ নির্দেশনা বাতিল করে সরকারের উগ্র ফ্যাসিবাদী দমন নীতি বন্ধের দাবি জানান।

সমাবেশ শেষে একটি মিছিল বের করা হয়। মিছিলটি জাতীয় প্রেসক্লাব থেকে হাইকোর্ট মোড় হয়ে পল্টন মোড়ে গিয়ে এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশের মাধ্য শেষ হয়।
——————–

সিএইচটিনিউজ.কম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.