চিম্বুক পাহাড়ে পাঁচতারকা হোটেল নির্মাণের প্রতিবাদে সাজেক ও বাঘাইছড়িতে বিক্ষোভ

0
82

বাঘাইছড়ি প্রতিনিধি ।। বান্দরবানের চিম্বুক পাহাড়ে পাঁচতারকা হোটেল নির্মাণের নামে ম্রো জাতিসত্তার জনগণকে উচ্ছেদ প্রক্রিয়ার প্রতিবাদে পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ (পিসিপি), গণতান্ত্রিক যুব ফোরাম (ডিওয়াইএফ) ও হিল উইমেন্স ফেডারেশন (এইচডব্লিউএফ) রাঙামাটির সাজেক ও বাঘাইছড়িতে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে।

আজ রবিবার (১৫ নভেম্বর ২০২০) দুপুর ১২টায় সাজেকের বাইবাছড়া স্কুল মাঠে অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ সমাবেশে মার্টিন চাকমার সঞ্চালনায় ও ইংগেছ চাকমার সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন পিসিপি’র সাজেক শাখার নেতা রূপায়ন চাকমা, ইউপিডিএফ সংগঠক রুপম চাকমা ও স্থানীয় কার্বারী বিশ্বময় চাকমা।

অপরদিকে বাঘাইছড়ি উপজেলা সদর এলাকায় অনুষ্ঠিত সমাবেশে সুজন চাকমার সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের সাজেক থানা শাখার সাধারণ সম্পাদক কালো বরণ চাকমা, পিসিপি’র রাঙামাটি জেলা শাখার তথ্য ও প্রচার সম্পাদক সুমন চাকমা ও এইচডব্লিউএফের বাঘাইছড়ি থানা শাখার আহ্বায়ক সমাহার চাকমা ও স্থানীয় মুরুব্বী সন্তোষ কুমার চাকমা প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, চিম্বুক পাহাড়ে ম্রো জাতিসত্তার জনগণ শত শত বছর ধরে বসবাস করে আসছে। এই জায়গা থেকে তাদেরকে উচ্ছেদের লক্ষ্যেই বিতর্কিত সিকদার গ্রুপ, সেনা কল্যাণ ট্রাস্ট, সেনাবাহিনীর ২৪ পদাতিক ডিভিশন ও ৬৯ ব্রিগেড মিলে সেখানে ম্রোদের এক হাজার একর জায়গা বেদখল করে পাঁচতারকা হোটেলসহ বিলাসবহুল পর্যটন স্থাপনা-পার্ক নির্মাণের উদ্যোগ নিয়েছে।

বক্তারা আরো বলেন, শুধু চিম্বুক পাহাড়ে নয়, আমাদের এই সাজেকেও সেনাবাহিনী কর্তৃক পর্যটন কেন্দ্র স্থাপন করে স্থানীয় পাহাড়িদের উচ্ছেদ করা হচ্ছে। এখন পাহাড়ি অধ্যুষিত পর্যটন এলাকায় মসজিদ নির্মাণ করে চলেছে।

তারা বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামে সেনাবাহিনীর এইসব পর্যটন স্থাপনের মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে পাহাড়িদের নিজ জায়গা-জমি ও ভিটেমাটি থেকে চিরতরে উচ্ছেদ করা। তারই অংশ হিসেবে নানাভাবে পাহাড়িদের উপর নিপীড়ন জারি রেখেছে। তাই এর বিরুদ্ধে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে রুখে দাঁড়াতে হবে।

বক্তারা অবিলম্বে চিম্বুক পাহাড়ে ম্রোদের উচ্ছেদ করে পাঁচতারকা হোটেলসহ পর্যটন স্থাপনা নির্মাণ বন্ধ করা এবং ম্রোদের কাছ থেকে বেদখল করা সকল জায়গা ফিরিয়ে দেওয়ার দাবি জানান।

 


সিএইচটি নিউজে প্রকাশিত/প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ,ভিডিও, কনটেন্ট ব্যবহার করতে হলে কপিরাইট আইন অনুসরণ করে ব্যবহার করুন।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.