চিম্বুক পাহাড়ে পাঁচতারকা হোটেল নির্মাণের বিরুদ্ধে বান্দরবানে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ

0
73

বান্দরবান ।। উন্নয়নের নাম করে ম্রো জনগোষ্ঠীকে উচ্ছেদ এবং পরিবেশের ভারসাম্য নষ্ট করে চিম্বুক পাহাড়ে পাঁচতারকা হোটেল ও এমিউজমেন্ট পার্ক নির্মাণের বিরুদ্ধে বান্দরবানে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আজ শুক্রবার (২৭ নভেম্বর ২০২০) সকালে পার্বত্য চট্টগ্রাম সচেতন ছাত্র সমাজ ও নাগরিকবৃ্ন্দের ব্যানারে মিছিল সহকারে বান্দরবান জেলা শহরের মুক্তমঞ্চের সামনে এই মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

এতে ভূমি বেদখল ও পর্যটন স্থাপনা নির্মাণ বিরোধী বিভিন্ন ব্যানার-প্ল্যাকার্ড নিয়ে শত শত শিক্ষার্থী ও লোকজন  অংশগ্রহণ করেন।

তনয়া ম্রোর সঞ্চালনায় ও মেনপং ম্রোর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন চং ইয়ং ম্রো এবং সংহতি জানিয়ে বক্তব্য রাখেন- তরুণ ম্রো লেখক ইয়াঙয়ান ম্রো, এডভোকেট উবাথোয়াই মারমা, এডভোকেট মাধবী মারমা, কবি ও কথা সাহিত্যিক রুপন ভট্টাচার্য, থোয়াক্য জাই চাক, অলকা তঞ্চঙ্গ্যা, অনিক তঞ্চঙ্গ্যা, উহ্লায়ী মারমা, জনি খেয়াং, এবং ক্যাসামং মারমা প্রমুখ।

বক্তারা ম্রো জনগোষ্ঠীকে উচ্ছেদ করে চিম্বুক পাহাড়ে সিকদার গ্রুপ ও সেনাবাহিনীর উদ্যোগে পাঁচতারকা হোটেল ও এমিউজমেন্ট পার্ক নির্মাণের প্রতিবাদ জানান এবং অবিলম্বে এই প্রকল্প বন্ধের দাবি করেন।

তারা অভিযোগ করে বলেন, বান্দরবান জেলা পরিষদ সম্পূর্ণ বেআইনিভাবে সেনাবাহিনীর কাছে ৪০ বছরের জন্য জমি লিজ দিয়েছে। তারা বলেন, শুধু চিম্বুক পাহাড়ে নয়, জেলার নাইক্ষ্যংছড়ি, লামা, আলীকদমসহ এমন কোন জায়গা নেই, যেখানে বড় বড় কোম্পানী কর্তৃক জায়গা বেদখল হয়নি। এটা আর হতে দেওয়া যায় না।

সমাবেশ থেকে অবিলম্বে জেলা পরিষদ কর্তৃক সম্পাদিত জমি লিজ সংক্রান্ত চুক্তি বাতিলপুর্বক হোটেল-পার্ক নির্মাণ বন্ধ করা না হলে আরো কঠোর কর্মসূচি ঘোষণার হুঁশিয়ার উচ্চারণ করা হয়।

এছাড়া উন্নয়নের নামে পাহাড়ি উচ্ছেদ বন্ধ করা ও পার্বত্য চট্টগ্রাম ভুমি কমিশনের মাধ্যমে ভূমি বিরোধ নিষ্পত্তির কাজ শুরু করারও দাবি জানানো হয় সমাবেশ থেকে।

 


সিএইচটি নিউজে প্রকাশিত/প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ,ভিডিও, কনটেন্ট ব্যবহার করতে হলে কপিরাইট আইন অনুসরণ করে ব্যবহার করুন।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.