ছাত্রী ধর্ষণকারীদের গ্রেপ্তার ও শাস্তির দাবিতে দীঘিনালায় শিক্ষক ও ছাত্র-ছাত্রীদের বিক্ষোভ

0
0

সিএইচটিনিউজ.কম
Dighinala protest rally, 12.03.2015
দীঘিনালা প্রতিনিধি: দীঘিনালার বাবুছড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেণীর ছাত্রীর ধর্ষক মোঃ সোহেল রানা সহ অভিযুক্তদের গ্রেপ্তারপূর্বক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে দীঘিনালা বেসরকারী মাধ্যমিক বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ও সাধারণ ছাত্র-ছাত্রীরা। দীঘিনালার উচ্চ মাধ্যমিক বিভিন্ন বিদ্যালয়ের প্রায় ১৫০০ ছাত্র-ছাত্রী ও শিক্ষক মিছিলে অংশ গ্রহণ করেন।

“নারী নির্যাতন ও ধর্ষণের বিরুদ্ধে রুখে দাড়াঁও” এই শ্লোগানে বৃহস্পতিবার (১২ মার্চ) সকাল ১১.৩০টায় দীঘিনালা মডেল বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠ থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিলটি শুরু হয়ে বাস স্টেশন ও বিভিন্ন গুরুত্বর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে দীঘিনালা উপজেলা কমপ্লেক্স এর সামনে সমাবেশ করে।

উদাল বাগান উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষক শাক্যমনি চাকমার সঞ্চালনায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন দীঘিনালা বেসরকারী মাধ্যমিক বিদ্যালয় শিক্ষক সমিটির সভাপতি রঞ্জন কুমার চাকমা, সমিতির সাধরন সম্পাদক আমজাত হোসেন চৌধুরী, বাবুছড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেনীর ছাত্রী মুক্তা চাকমা ও দীঘিনালা ডিগ্রী কলেজের ছাত্র বাবলু ত্রিপুরা।

সমাবেশ বক্তারা বলেন, বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী নারী হয়েও দেশের নারী শিশু ধর্ষণ-নির্যাতন রোধ করতে সম্পূর্ণ ব্যর্থ। ধর্ষকদের উপযুক্ত শাস্তি না দেওয়ার কারণেই এ ধরনের ঘটনা ঘটছে বলে তারা উল্লেখ করেন।

তারা অভিযোগ করে বলেন, এর আগে ২০০৯ সালে ছোট মেরুং উচ্চ বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেনীর ছাত্রী রুনা চাকমাকে ধর্ষণের পর হত্যার বিচার করা হয়নি। যার কারণে ৯ মার্চ দিবাগত রাতে ওই ছাত্রীকে ধর্ষণ করতে সন্ত্রাসীরা সাহস পেয়েছে।

সমাবেশ থেকে বক্তারা ধর্ষক সোহেল সহ তার সহযোগীদের গ্রেপ্তার ও যথাযথ শাস্তির দাবি জানান। পলাতক বাকি তিন ধর্ষককে আগামী ৭ দিনের মধ্যে গ্রেপ্তার করা না হলে কঠোর কর্মসূচীরও হুশিয়ারী দেন তারা।

সমাবেশে সংহতি জানিয়ে আরও বক্তব্য রাখেন হিল উইমেন্স ফেডারেশনের দীঘিনালা উপজেলার সভাপতি এন্টি চাকমা, পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের দীঘিনালা সভাপতি জহেল চাকমা প্রমূখ।

উল্লেখ্য, গত সোমবার(৯ মার্চ) দীঘিনালা বনবিহারে ধর্মীয় অনুষ্ঠান থেকে ফেরার পথে কবাখালী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি মোঃ সোহেল ও তার তিন সহযোগী মোঃ সোহাগ, মো: সাইফুল ইসলাম ও মোঃ আমর হোসেন ওই স্কুল ছাত্রীকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। এ ঘটনায় ছাত্রীটির মা বাদী হয়ে দীঘিনালা থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেছেন। এ ঘটনায় পুলিশ ইতিমধ্যে সোহেলকে গ্রেফতার করেছে। বাকিরা এখনো পলাতক রয়েছে।
———————

সিএইচটিনিউজ.কম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.