সাক্ষাতকার

জেএসএস-সন্তু গ্রুপের বিদেশে প্রচারণা: দুই ভিক্ষু ছাড়া বাকি সবাইয়ের চরিত্র খারাপ, পাঁচটি দূতাবাস খুলছে

0
2

সিএইচটি নিউজ ডটকম

ঢাকা:  জেএসএস-সন্তু গ্রুপের পররাষ্ট্র মন্ত্রী, নয়া দিল্লিতে বসবাসরত করুনালংকার ভিক্ষু সিএইচটি নিউজ ডটকমকে দেয়া (ফোন: +৯১-১১-২৫৩৯৮৩৮৩ এবং +৯১-৭৮২৭৮১৩৩৩৬) একান্ত সাক্ষাত্কারে বলেছেন দুই ভিক্ষু (করুনালংকার ভিক্ষু  এবং প্রজ্ঞালংকার ভিক্ষু-যিনি পশ্চিম বঙ্গের শান্তিনিকেতনে অবস্থিত বিশ্ব ভারতী ইউনিভার্সিটি ডেপুটি রেজিষ্টার) ছাড়া বাকি সবাইয়ের চরিত্র খারাপ বা জাতির জন্য কাজ করার প্রতিজ্ঞার অভাব। জেএসএস নাকি  ভারত এবং ইউরোপের অনেক নাগরিকের  উপর  বিদেশে প্রচারণার কাজে লক্ষ লক্ষ টাকা খরচ করেছে।

বিদেশে বড় দুতাবাস না থাকার কারণ হিসাবে করুনালংকার ভিক্ষু বলেন, আগে বাংলাদেশ থেকে টাকা আনলে ভারতে মাত্র ৪৫ রুপীস্ পাওয়া যেত এবং আমেরিকায় গেলে আরো কম হয়।

করুনালংকার ভিক্ষু বলেন “সবচেয়ে ঘাটতি হচ্ছে মানুষের”। জেএসএস-সন্তু গ্রুপের পাঁচটি দুতাবাস খোলার পরিকল্পনা চলছে এবং সেগুলো হচ্ছে দূর প্রান্ত এশিয়া (জাপান), দক্ষিণ পূর্ব এশিয়া (থাইল্যান্ড), দক্ষিণ এশিয়া, ইউরোপ এবং আমেরিকা।

করুনালংকার ভিক্ষু আরো বলেন, “জে এস এস  অনেক লোককে বিদেশী প্রচারণায় পেতে চেয়েছিল  এবং তারা হচ্ছেন  সুবোধ বিকাশ চাকমা (কানাডা), প্রনয়ন খীসা (বাংলাদেশের সাংবাদিক), জ্যোতিরিন্দ্র চাকমা (জার্মানি), মৃনাল চাকমা (কলকাতা), প্রজ্ঞালংকার ভিক্ষু, সঞ্জীব চাকমা (Sweden), রামেন্দু শেখর দেওয়ান (ব্রিটেন) এবং গোতম চাকমা (ত্রিপুরা)। কিন্তু তাদের  চরিত্র খারাপ হওয়ার কারণে বা জাতির জন্য কাজ করার প্রতিজ্ঞার অভাবে কাউকে পাওয়া যায়নি। আমরা  দুই ভিক্ষু  (করুনালংকার ভিক্ষু  এবং প্রজ্ঞালংকার ভিক্ষু (পশ্চিম বঙ্গের শান্তিনিকেতনে অবস্তিত বিশ্ব ভারতী ইউনিভার্সিটি ডেপুটি রেজিস্টার) ছাড়া আর কেউ টিকে থাকতে পারেনি। অন্যদের পিচনে লক্ষ লক্ষ টাকা খরচ করা হয়েছে, কিন্তু তারা শুধু নিজেরটা বুঝে, জেএসএস-রটা বুঝতে চায় ন।”

করুনালংকার ভিক্ষু আরো বলেন, তিব্বতীদের দুতাবাস স্থাপন করতে সম্ভব, কারণ ভারত সরকার দালাই লামাকে সাহায্য করছে, তাদের ৬০ লাক্ষা মানুষ। কিন্তু পার্টিতে (জেএসএস) শিক্ষিত লোকের অভাব। দালাই লামা দূতাবাস খুলতে জেএসএস-কে আশ্রয় দিয়েছে। কিন্তু সেটা সম্ভব নয় কারণ জেএসএস চীন এবং ভারতের ব্যাপারে নিরপেক্ষ থাকতে চায়।…. (সাক্ষাৎকার চলবে)
———————
সিএইচটিনিউজ.কম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার 


Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.