টেকনাফের আমতলী চাকমা গ্রামে ভূমি দস্যু ও পুলিশী হামলার বিচার দাবিতে মানববন্ধন

0
0
নিজস্ব প্রতিবেদক
সিএইচটিনিউজ.কম

Teknaf human chainকক্সবাজার :  টেকনাফ উপজেলার হোয়াইক্যঙ ইউনিয়নের আমতলী গ্রামে গত২৯ ও৩০ মে প্রভাবশালী ভূমি দস্যু আব্দুল হক বাহিনী ও পুলিশের যৌথ হামলার বিচারের দাবিতউখিয়া-টেকনাফের ১২টি চাকমা গ্রামের জনগণ কক্সবাজার প্রেস ক্লাবের সামনে মানববন্ধন ও সমাবেশ করেছে।
আজ ৬ জুন বুধবার দুপুর ১টায় টেকনাফের আমতলী গ্রামের চাকমা পল্লীতে প্রভাবশালী ভূমি দস্যু কর্তৃক হামলা ও ভূমি আত্মসাৎ প্রচেষ্টা, পুলিশী হয়রানি, নারী বৃদ্ধার উপর নির্যাতন ও শ্লীলতাহানির বিচারদাবিতে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে এলাকাবাসীর পক্ষে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন ওরাঙ্গ চাকমা। এ সময় সংহতি জানয়ে আরো বক্তব্য রাখেন হিল উইমেন্স ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক রীনা দেওয়ান, ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ)-এর সংগঠক চরণ সিং তঞ্চঙ্গ্যা ও কক্সবাজার জেলা প্রেস ক্লাবের সহ সভাপতি ও পরিবেশ আন্দোলনেরকক্সবাজার জেলা সভাপতি মো: নুরুল ইসলাম। মানববন্ধনে প্রায় ১৫০ জন এলাকার নারী-পুরুষ বিভিন্ন দাবির ব্যানার নিয়ে অংশ নেন।
মানববন্ধন থেকে বক্তারা অবিলম্বে প্রভাবশালী মহলের সহায়তায় ভূমি দস্যু কর্তৃক চিংপুঅংসহ সাত ভাইয়ের ভূমি আত্মসাত ও জবরদখল প্রচেষ্টা বন্ধ করা, ভূমি দস্যু আব্দুল হক ও তার দলবলের বিরুদ্ধে আইনগত পদক্ষেপ নেয়া, ভূমি আত্মসাতের উদ্দেশ্যে এ যাবত আব্দুল হক ও তার দলবল কর্তৃক যে সমস্ত হয়রানিমূলক মামলা করা হয়েছে সে সকল মামলা প্রত্যাহার ও গ্রেফতারকৃত ৭ জনের নিঃশর্ত মুক্তি, আমতলী গ্রামের লোকজনের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার, হামলাকারীদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ, ক্ষতিগ্রস্তদের ক্ষতিপূরণ প্রদান ও উখিয়া টেকনাফে বসবাসরত ১২ গ্রামের চাকমা অধিবাসীরা যাতে নিরাপদ, নিরুপদ্রপ ও শান্তিপুর্ণভাবে বসবাস করতে পারে তার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানানো হয়।
উল্লেখ্য, গত ২৯ ও ৩০ মে দুদফায় কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলার হোয়াইক্যঙ ইউনিয়নের আমতলী চাকমা গ্রামে আসামী ধরার নামে ভূমি দস্যু আব্দুল হকের সহযোগী হিসেবে নিকটবর্তী পুলিশ ফাঁড়িথেকেএকদল পুলিশ ব্যাপক তান্ডবলীলা চালায়এ সময় পুলিশের নির্যাতনে এক গর্ভবতী মহিলার গর্ভপাত সহ অন্তত ৬/৭ জন মহিলা ও বেশ কয়েকজন আহত হয়পুলিশ কয়েকজন তরুণীর শ্লীলতাহানি ঘটায়এ সময় পুলিশ নিজ বাড়ি থেকে উছা থাইন চাকমা, ছাত্রা খোচাইন চাকমা, অংজা চাকমা ওরনয়ন ও ছা থোয়াই চিং চাকমাকে আটক করে নিয়ে যায়

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.