দিঘীনালায় বিজিবি ক্যাম্প স্থাপনের নামে ভূমি বেদখলের প্রতিবাদ: সেনাবাহিনীর হামলায় আহত ১

0
0
দিঘীনালা প্রতিনিধি, সিএইচটিনিউজ.কম 
 
দিঘীনালা: খাগড়াছড়ির দিঘীনালা উপজেলার সদর ইউনিয়নের ৫১নং দিঘীনালা মৌজার অন্তর্গত ২নং বাঘাইছড়ি গ্রামে পাহাড়িদের ১৫ একর জায়গার উপর বিজিবি ক্যাম্প স্থাপনের নামে ভূমি বেদখলের প্রতিবাদে এলাকাবাসীর প্রতিরোধের মুখে পড়ে বাবুছড়া ক্যাম্পের সেনা সদস্যরা । এ সময় সেনা সদস্যদের হামলায় স্মৃতি চাকমা (২৩), পিতা- আনন্দ মোহন চাকমা আহত হয়েছেন। তার বাম হাতে ও বাম পায়ে জখম হয়। আজ ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৩, সোমবার সকাল ৯টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।
জানা যায়, পার্বত্য চট্টগ্রামের বিরাজমান পরিস্থিতির কারণে ১৯৮৯ সালে উক্ত গ্রামে বসবাসরত ৪৭ পরিবার পাহাড়ি গ্রাম ছেড়ে ভারতে পালিয়ে শরণার্থী জীবন-যাপন করতে বাধ্য হন। এ সুযোগে সেনাবাহিনী উক্ত জায়গায়টি বাবুছড়া ক্যাম্পের আওতায় নিয়ে নেয়। পার্বত্য চুক্তির পর সরকারের প্রতিশ্রতি মোতাবেক পাহাড়িরা ভারত থেকে ফিরে আসলেও তারা নিজ জায়গায় ফিরে যেতে পারেননি। প্রশাসনের বিভিন্ন জায়গায় ধর্ণা দিয়েও কোন কাজ হয়নি।
প্রতিশ্রুতি মোতাবেক সরকার তাদের পুনর্বাসনে কোন উদ্যোগ গ্রহণ না করায় পাহাড়িরাও নিজ জায়গায় ফিরে যাওয়ার উদ্যোগ নেয়। এরই অংশ হিসেবে তারা উক্ত জায়গার উপর ঘরবাড়ি নির্মাণ করতে গেলে বাবুছড়া ক্যম্পের সেনারা তাদের বাধা দেয় এবং নির্মাণাধীন বাড়িগুলো ভেঙে দিতে চাইলে পাহাড়িরা তীব্র প্রতিবাদ করে। এ সময় সেনা সদস্যরা পাহাড়িদের উপর হামলা চালায়। এতে স্মৃতি চাকমা আহত হন। আহত অবস্থায় তাকে দিঘীনালা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে বাড়িতে পাঠানো হয়েছে।
উল্লেখ্য, উক্ত জায়গার উপর বিজিবি ক্যাম্প স্থাপনের পাঁয়তারা চালানো হচ্ছে বলে জানা গেছে। ফলে সেনাবাহিনী জায়গাটি তাদের দখলে রাখতে মরিয়া হয়ে প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।
 

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.