দীঘিনালায় ইউপিডিএফ অফিস ভাংচুর ও জিনিসপত্র পুড়িয়ে দিয়েছে জেএসএস(এমএন লারমা) দুর্বৃত্তরা

0
0

দীঘিনালা : খাগড়াছড়ির দীঘিনালা সদরের মাস্টার পাড়ায় অবস্থিত ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট(ইউপিডিএফ) এর অফিস ভাংচুর ও সংগঠনের দলিলপত্রসহ অফিসের সকল জিনিসপত্র আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দিয়েছে জেএসএস(এমএন লারমা)-এর সেনা মদদুষ্ট দুর্বৃত্তরা।

আজ সোমবার (২০ নভেম্বর ২০১৭) দুপুর সাড়ে ১২টায় দুর্বৃত্তরা এ অপকর্ম সংঘটিত করে।

প্রক্ষদর্শীরা জানান, আজ দুপুর ১২টার দিকে জেএসএস(এমএন লারমা) এর উপজেলা সভাপতি রোমান চাকমা(৪৫) ও তার সহযোগী সমর বিকাশ চাকমা(৪০), স্বপন ত্রিপুরা(৫০), রাজ্যময় চাকমা ও জিনেথ চাকমার নেতৃত্বে ২৫-৩০ জনের একদল সেনা মদদপুষ্ট দুর্বৃত্ত সেনা-পুলিশের উপস্থিতিতে ইউপিডিএফ অফিসে তালা ভেঙে প্রবেশ করে এবং অফিসে রাখা চেয়ার-টেবিলসহ প্রয়োজনীয় আসববাপত্র ও অফিসের সাইনবোর্ড ভাঙচুর করে, দলিল-দস্তাবেজ নষ্ট করে দেয় এবং পরে রাস্তার ছুঁড়ে ফেলে দিয়ে সকল জিনিসপত্র আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেয়।

তারা আরো জানান, দুর্বৃত্তরা যখন অফিস ভাংচুর ও জিনিসপত্র পুড়ে দিচ্ছিল তখন সেখানে উপস্থিত সেনা-পুলিশ তাদের বিরুদ্ধে কোন পদক্ষেপ না নিয়ে প্রয়োজনীয় নিরাপত্তা দেয় এবং লোকজনকে অফিসের দিকে যাওয়া ও ছবি তুলতে নিষেধ করে। পরে সেনারা সেখান থেকে চলে গেলে পুলিশ দায় এড়ানোর জন্য হালকাভাবে পুড়ে যাওয়া জিনিসপত্রের উপর হালকা পানি ছিটিয়ে দেয়। যদিও ততক্ষণে সবকিছু পুড়ে ছাই হয়ে গেছে।

উক্ত ঘটনায় ইউপিডিএফ’র দীঘিনালা উপজেলা সংগঠক সুকীর্তি চাকমা তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, সেনাবাহিনীর প্রত্যক্ষ সহযোগীতায় জেএসএস(এমএন লারমা) নামধারী কতিপয় চিহ্নিত দুর্বৃত্ত অফিস ভাংচুর-জিনিসপত্র পুড়িয়ে দিয়েছে। সেনাবাহিনীই এসব দুর্বৃত্তদের পৃষ্ঠপোষকতা দিয়ে অরাজক পরিস্থিতি সৃষ্টির অপচেষ্টা চালাচ্ছে।

তিনি অবিলম্বে অফিস ভাংচুর ও জিনিসপত্র পুড়িয়ে দেয়ার ঘটনায় জড়িত চিহ্নিত দুর্বৃত্তদের গ্রেপ্তারের দাবি জানিয়েছেন।
————
সিএইচটি নিউজ ডটকম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.