দীঘিনালায় উচ্ছেদ হওয়া ২১ পরিবারের সংবাদ সম্মেলন, স্ব স্ব জায়গায় পুনর্বাসন দাবি

0
0

সিএইচটিনিউজ.কম
DSC00193দীঘিনালা প্রতিনিধি: যথাযথ ক্ষতিপূরণসহ স্ব-স্ব জায়গায় পুনর্বাসনের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন করেছে দীঘিনালা বাবুছড়ায় বিজিবি কর্তৃক উচ্ছেদ হওয়া ২১ পরিবার। শনিবার (২৩ মে) সকাল সাড়ে ১১টায় সময়ে বাবুছড়ার আশ্রয় শিবিরে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। ২১ পরিবারের পক্ষ থেকে লিখিত বক্তব্য পড়ে শুনান কিরন চাকমা।

সংবাদ সম্মেলনে ২১ পরিবারের বর্তমান দূরাবস্থার কথা তুলে ধরে বলা হয়,  “হামলা ও উচ্ছেদের পর আমরা ২১ পরিবারের ৮৬ জন এই বাবুছড়ার উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তার পরিত্যক্ত কার্যালয়ে আশ্রয় নিতে বাধ্য হয়েছি। এখানে আমরা দুইটি কক্ষে গাদাগাদি করে মানবেতর জীবন যাপন করছি বললেও কম বলা হয়। এই অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে অনেকে এর মধ্যে অসুস্থ হয়ে পড়েছে। এই ৮৬ জনের মধ্যে রয়েছে ৪ জন কলেজ পড়ুয়া ছাত্রী, ৯ জন হাইস্কুলের ছাত্রছাত্রী ও ৭ জন প্রাইমারী লেভেলের ছাত্রছাত্রী। তাদের সবার পড়শুনা এখন বন্ধ হয়ে গেছে।”

সংবাদ সম্মেলনে ৪দফা দাবি জানানো হয়। দাবিগুলো হচ্ছে- ১. বিজিবি’র ৫১ নং ব্যাটালিয়নের সদস্যদের জন্য নির্মিতব্য ভবনের কাজ স্থগিত করা ও শান্তিপূর্ণ সমাধানের নিমিত্তে দীঘিনালা ভূমি রক্ষা কমিটির সাথে অবিলম্বে আলোচনায় বসার উদ্যোগ গ্রহন করা, ২. গত ১০ জুন ২০১৪ ও ১৫ মার্চ ২০১৫ তারিখের ঘটনার পর বিজিবি’র দায়ের করা মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার পূর্বক নিরাপদ ও শান্তি পূর্ণ পরিবেশ সৃষ্টি করা, ৩. নির্বিচারে ধরপাকড়, হয়রানি ও গ্রেপ্তার বন্ধ করা এবং ৪.যত্ন কুমার কার্বারী পাড়া ও শশী মোহন কার্বারী পাড়া থেকে বিজিবি ৫১ব্যাটালিয়ন কতৃক উচ্ছেদ হওয়া পরিবারগুলোকে নিজ নিজ জমিতে বা আলোচনা সাপেক্ষে যথাযথ ক্ষপিূরণসহ পূনর্বাসন করা।

সংবাদ সম্মেলন থেকে দেশের সকল বিবেকবান, গণতান্ত্রিক ও প্রগতিশীল দল, সংগঠন ও ব্যক্তির কাছে ২১ পরিবারের পক্ষে দাঁড়িয়ে ন্যায় বিচার প্রাপ্তিতে ঐকান্তিক সহযোগিতা প্রদানএবং তাদের ন্যায্য দাবির প্রতি সমর্থন দানের আহ্বান জানানো হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে সন্তোষ কুমার চাকমা (কার্বারী), নতুন চন্দ্র চাকমা(কার্বারী) দেবতরু চাকমা, শ্যামল চাকমা, মধুরিকা চাকমা সহ উচ্ছেদ হওয়া ২১ পরিবারে সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।
—————————

সিএইচটিনিউজ.কম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.