পুনর্বাসনের দাবিতে

দীঘিনালায় বিজিবি কর্তৃক উচ্ছেদ হওয়া ২১ পরিবারের ডিসির কাছে স্মারকলিপি পেশ

0
0

Dighinala2দীঘিনালা : দীঘিনালায় বিজিবি ৫১ ব্যাটালিয়ন কর্তৃক উচ্চেদ হওয়া ২১ পরিবারের সদস্যরা গতকাল মঙ্গলবার (২২ মার্চ) খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসকের কাছে ক্ষতিপূরণসহ নিজ বাস্তুভিটায় পুনর্বাসনের দাবিতে চার দফা দাবি সম্বলিত স্মারকলিপি দিয়েছে।

স্মারকলিপিতে তারা বলেন, ২০১৪ সালের ১০ জুন উচ্ছেদ হওয়ার পর থেকে তারা মানবেতর জীবন যাপন করছেন। নিজ জমিতে ক্ষতিপূরণসহ পুনর্বাসনের দাবিতে তারা স্বরুাষ্ট্রমন্ত্রী ও পার্বত্য মন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি পেশ করেন, কিন্তু তাতে কোন কাজ হয়নি। অপরদিকে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক সংসদীয় কমিটিসহ মানবাধিকার সংগঠনগুলো তাদের দুরাবস্থা দেখে সহানুভূতি জানানো ছাড়া কিছুই করতে পারেনি। গত বছর খাগড়াছড়ি থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্য কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা তাদেরকে পুনর্বাসনের উদ্যোগ নেন। স্থানীয় হেডম্যানসহ জনপ্রতিনিধিদের নিয়ে এ জন্য একটি ৭ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়। কমিটির কাজ কিছু দূর এগোলেও রহস্যজনক কারণে কুজেন বাবু পুনর্বাসন প্রক্রিয়া শুরু না করেই বন্ধ করে দেন।

উচ্ছেদ হওয়া ২১ পরিবারের পক্ষে নতুন চন্দ্র কার্বারীসহ ৫ জন প্রতিনিধি গতকাল মঙ্গলবার সকালে দীঘিনালায় ডিসির কাছে উক্ত স্মারকলিপি পেশ করেন। ডিসি স্থানীয় হেডম্যান, কার্বারী ও জনপ্রতিনিধিদের সাথে আলোচনার জন্য দীঘিনালায় এসেছিলেন।

ডিসি মিটিং শেষে ২১ পরিবারের প্রতিনিধিদের সাথে একান্তে আলোচনা করেন। এ সময় টিএনও এবং নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিরাও উপস্থিত ছিলেন। তিনি তাদের বক্তব্য শোনেন, এ বিষয়ে এমপির সাথে আলাপ করবেন বলে জানান এবং টিএনওকে চলতি মাসের মধ্যে উচ্ছেদ হওয়া একুশ পরিবারের বিষয়ে তার কাছে লিখিত রিপোর্ট দেয়ার তাগিদ দেন। তিনি এমপির উদ্যোগেরও প্রশংসা করেন এবং বলেন মানবিক দিক বিবেচনায় হলেও তাদেরকে পুনর্বাসন করতে হবে।
—————

সিএইচটিনিউজ.কম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.