নাইক্ষ্যংছড়িতে আটক ৬ জনের মধ্যে ২ জনকে মিথ্যা মামলায় পুলিশে সোপর্দ

0
104
আটক উথোয়াহ হ্লা মারমা ও ম্যানরুম মুরুং। ছবি: হিল ভয়েসের সৌজন্যে।

বান্দরবান ।। বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার দোছড়ি ইউনিয়নের কামিছড়া চাক পাড়ার কার্বারিসহ আটক ৬ জনের মধ্যে ২ জনকে মিথ্যা মামলায় জড়িত করে গত ৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ পুলিশের নিকট সোপর্দ করা হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে। তবে, আটক অপর ৪ জন সম্পর্কে বিস্তারিত এখনো জানা যায়নি।

পুলিশের নিকট সোপর্দ করা দুই ব্যক্তি হলেন- উথোয়াই হ্লা মার্মা (২৪), পিতা-মংদো মারমা ও ম্যানরুম মুরুং (৬০), পিতা- মৃত ধুই থং মুরুং। এর মধ্যে ম্যানরুম মুরুং সাবেক ইউপি সদস্য বলে জানা গেছে।

গত ৪ সেপ্টেম্বর নাইক্ষ্যংছড়ি ১১ বিজিবি’র পক্ষ থেকে উথোয়াই হ্লা মার্মা ও ম্যানরুম মুরুং এর বিরুদ্ধে দন্ডবিধি ১৪৪, ৩৫৩, ৩৩২, ৩৩৩, ৩০৭ ধারায় নাইক্ষ্যংছড়ি থানায় একটি মিথ্যা ও সাজানো মামলা দায়ের করা হয়। তাদের বিরুদ্ধে সরকারি কাজে বাধা এবং বিজিবি সদস্যদের হত্যার উদ্দেশ্যে গুলিবর্ষণের মত মিথ্যা অভিযোগ আনা হয়।

মামলার পরপরই বিজিবি সদস্যরা উথোয়াই হ্লা মার্মা ও ম্যানরুম মুরুং-কে নাইক্ষ্যছড়ি থানা পুলিশের নিকট সোপর্দ করে। এরপর নাইক্ষ্যংছড়ি থানা পুলিশ তাদেরকে বান্দরবান জেলা জজ আদালতে প্রেরণ করে। পরে তাদের জেলহাজতে প্রেরণ করা হয় বলে জানা গেছে।

এদিকে, আটক অপর আরো ৪ জনকে কোথায়, কিভাবে রাখা হয়েছে তা এখনও আটককৃতদের আত্মীয়-স্বজন ও গ্রামবাসীদের জানানো হয়নি। ফলে তাদের নিয়ে পরিবার ও গ্রামবাসীরা উদ্বেগের মধ্যে রয়েছেন।

উল্লেখ্য, গত ০১ সেপ্টেম্বর বুধবার সকালে আলিকদম জোনের সেনাবাহিনী ও নাইক্ষ্যংছড়ি জোনের বিজিবি’র একটি যৌথ দল দোছড়ি ইউনিয়নের কামিছড়া চাক পাড়ায় যৌথ অভিযান চালায়।এ সময় কামিছড়া চাক পাড়ার কার্বারী মংলাফো চাক (৬০), চিংলাঅং চাক (৫০) ও তাঁর এক ছেলে (নাম জানা যায়নি), লাগ্যছু চাক (৫৫), উথোয়াই হ্লা মার্মা (২৪) ও ম্যানরুম মুরুং (৬০) নামে ৬ নিরীহ গ্রামবাসীকে আটক করে ক্যাম্পে নিয়ে যাওয়া হয়।


সিএইচটি নিউজে প্রকাশিত প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ,ভিডিও, কনটেন্ট ব্যবহার করতে হলে কপিরাইট আইন অনুসরণ করে ব্যবহার করুন।

সিএইচটি নিউজের ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.