নান্যাচরে অপহৃত গ্রামবাসীদের উদ্ধারের দাবিতে এলাকাবাসীর মানববন্ধন : সেনা-পুলিশের বাধা

0
5

আগামীকাল ১০ জুলাই নান্যাচর উপজেলায় সকাল-সন্ধ্যা সড়ক ও নৌ পথ অবরোধ
[divider style=”normal” top=”20″ bottom=”20″]

নান্যাচর : সংস্কারবদী জেএসএস ও নব্য মুখোশ বাহিনী কর্তৃক অপহৃত ১৮ গ্রামবাসীকে উদ্ধারের  দাবিতে আজ সোমবার (৯ জুন) সকাল সাড়ে ১০টা থেকে দুপুর ১২টা পযর্ন্ত রাঙামাটি-খাগড়াছড়ি সড়কের নান্যাচর উপজেলার অংশে এলাকার শতশত নারী পুরুষ রাস্তায় নেমে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে।

মানববন্ধন চলাকালে ঘিলাছড়িসহ কয়েকটি স্থানে সেনাবাহিনী ও পুলিশ বাধা দিয়েছে। বিক্ষুব্ধ মানুষ প্রশাসনের বাধার মুখেও মানববন্ধন করেছে।

মানববন্ধন থেকে অবিলম্বে অপহৃত গ্রামবাসীদের অক্ষত অবস্থায় উদ্ধার ও নব্য মুখোশ বাহিনী কর্তৃক অপহরণ, খুন-গুম, চাঁদাবাজি বন্ধের দাবি জানানো হয়।

সকাল ১১টায় ঘিলাছড়ি বাজার এলাকায় মানববন্ধনের জন্য ব্যানার নিয়ে রাস্তায় দাঁড়ালে টহলরত সেনাবাহিনীর নির্দেশে নান্যাচর থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই মাসুদ বাধা দেন। পরে সেনাবাহিনীও তাতে যোগ দেয়। সেনা-পুলিশরে বাধার মুখে ঘিলাছড়ি এলাকার জনতা মানববন্ধন পন্ড হয়।

সকাল ১০:৩০টায় বুড়িঘাট ইউনিয়নের কেরেটছড়ি, দাজ্যাছড়িসহ বিভিন্ন গ্রাম থেকে আগত শতশত লোকজনকে লাঠি উচিয়ে ধাওয়া করে কুদুকছড়ি ক্যাম্প কমান্ডার মেজর জামানের নেতৃত্বে একদল সেনা সদস্য।

এসময় তিনি মানববন্ধনে আসা লোকজনকে উদ্দেশ্য করে বলেন, ‘মানববন্ধন করলে মেরে ঠ্যাং ভেঙ্গে দেবো’।

মানববন্ধনকে কেন্দ্র করে সকাল থেকে কুদুকছড়ি ও ঘিলাছড়ি ক্যাম্প থেকে সেনাবাহিনী কয়েকটি দলে বিভক্ত হয়ে বিভিন্ন স্থানে মারমুখী অবস্থান নেয়। সকাল থেকে ঘিলাছড়ি বাজার, জুরাছড়ি, ভুইয়ো আদাম, কুদুকছড়ি পূর্ব পাড়ায় সেনাসদস্যরা লাঠি হাতে অবস্থান করে।

সন্ত্রাসীদের হুমকি-ভয়-ভীতি প্রদর্শন ও সেনা-পুলিশের বাধার মধ্যেও মানববন্ধন সফল করার জন্য ‘নব্য মুখোশ বাহিনী প্রতিরোধ কমিটি’র পক্ষ থেকে নান্যাচরবাসীকে ধন্যবাদ জানানো হয়েছে। সংগঠনটির আহ্বায়ক ও ২নং নান্যাচর ইউপি চেয়ারম্যান জ্যোতি লাল চাকমা আগামীকাল ১০ জুলাই নান্যাচর উপজেলায় সকাল সন্ধ্যা সড়ক ও নৌ পথ অবরোধ সফল করতে উপজেলার সকল যান-বাহন শ্রমিক ও মালিকদের সর্বাত্মক সহযোগিতা কামনা করেছেন।

উল্লেখ্য, সংস্কারবাদী জেএসএস ও নব্য মুখোশ বাহিনীর সশস্ত্র দুর্বৃত্তরা গত ৪ জুলাই নান্যাচর বাজার থেকে ২ জন এবং ৮ জুলাই কুদুকছড়ি বাজারে আসার পথে হাতিমারা মুখ এলাকা থেকে ১৬ জন গ্রামবাসীকে অপহরণ করে। তাদেরকে এখনো ছেড়ে দেওয়া হয়নি।
——————
সিএইচটিনিউজ ডটকম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.