নান্যাচরে সেনাবাহিনীর ব্যাপক তল্লাশি, এলাকার জনমনে আতঙ্ক

0
1

নান্যাচর : রাংগামাটি জেলার নান্যাচর উপজেলায় জনপ্রতিনিধি ও এলাকার সাধারন মানুষের বাড়িঘর তল্লাশি, ভয়-ভীতি প্রদর্শন ও বিভিন্ন গ্রামে গ্রামে হুমকিমূলক অবস্থান নিয়েছে সেনাবাহিনী। ‍সদর উপজেলার টিএন্ডটি ও হামারপাড়া, বেতছড়ির লারমাপাড়া, জরিপ্পেপাড়া, তিবিরেছড়ি, বেতছড়ি, সোনারাম কার্বারীপাড়াতে অবস্থান নিয়ে রয়েছে। এতে এলাকার জনগণের দৈনন্দিন কাজে ব্যাঘাত সৃষ্টি হচ্ছে।

জানা যায়, আজ ভোর সোয়া ৫টার দিকে নান্যাচর জোন থেকে সেনাবাহিনীর সদস্যরা পৃথক পৃথকভাবে নান্যাচর সদর ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ড, ৮নং ও ৯নং ওয়ার্ড এলাকায় হানা দেয়। এ সময় সেনারা ২নং নান্যাচর  ইউনিয়নের ২ন ওয়ার্ডের  মেম্বার  প্রিয় লাল চাকমা (৪২), ৮নং ওয়ার্ডের মেম্বার রুপক চাকমা (৪৮), ৯ নং ওয়ার্ডের মেম্বার দিগন্ত চাকমা(৩৫), নান্যাচর সদরের টিএন্ডটি এলাকার সুশীল চাকমা (বাট্টো মনি ৩৫), দিকশন চাকমা(৩৮), ১৮ মাইল এলাকার সোনারাম পাড়ার বাসিন্দা রিপন চাকমা (৪১), রিটন চাকমা (৩৩) ও রুপম চাকমা (৩৬)-এর  বাড়িতে প্রবেশ করে তল্লাশি চালায় এবং জিনিসপত্র সম্পূর্ণ তছনছ করে দেয়। তবে তারা অবৈধ কোন কিছু পায়নি।

প্রিয় লাল চাকমা সিএইচটি নিউজ ডটকমের এই প্রতিনিধিকে জানান, আজ ভোরে সেনাবাহিনীর সদস্যরা যখন তার বাড়িতে হানা দেয় তখন তিনি ব্যক্তিগত কাজে বাড়ির বাাইরে ছিলেন। গ্রামের লোকজনের বরাত দিয়ে তিনি জানান, সেনারা তার বাড়ির পার্শ্ববর্তী কুনেন্টু চাকমা নামে এক গ্রামবাসীকে ধরে রাজনীতি করে কিনা জিজ্ঞাসা করে। এতে সে (কুনেন্টু) ‘আমি একজন খেটে খাওয়া দিন মজুর’ বলে উত্তর দিলে সেনারা তাকে ছবি তোলে এবং গ্রামের রাস্তাঘাট দেখিয়ে দিতে বাধ্য করে এবং পরে ছেড়ে দেয়।

সেনাবাহিনীর এমন তল্লাশির  কারণে বর্তমানে নান্যাচর এলাকাজুড়ে জনমনে চরম আতঙ্ক বিরাজ করছে বলে জানা গেছে।
———————-
সিএইচটিনিউজ ডটকম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.