নির্বাচন নিয়ে ষড়যন্ত্র বন্ধের দাবি ইউপিডিএফের

0
1

নিজস্ব প্রতিবেদক, সিএইচটিনিউজ.কম
জাতীয় সংসদ নির্বাচন পরিচালনা ও সমন্বয় কমিটির আহ্বায়ক ও ইউপিডিএফের কেন্দ্রীয় নেতা সচিব চাকমা আজ ৩১ ডিসেম্বর মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে খাগড়াছড়ির পানছড়িতে নির্বাচনী কাজে নিয়োজিত দুই কর্মীকে আটক ও সেনা অভিযানের নামে ভোটারদের মধ্যে আতঙ্ক সৃষ্টির তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন এবং নির্বাচন নিয়ে ষড়যন্ত্র বন্ধ করার দাবি করেছেন।

বিবৃতিতে তিনি বলেন, আজ মঙ্গলবার সকাল ১১টার দিকে পানছড়ি উপজেলার পাকুজ্জেছড়ির বড়ইতলী এলাকা থেকে কোনো কারণ ছাড়াই সেনাবাহিনীর একটি দল মুনি চাকমা(৩৭)-কে আটক করে গাড়িতে উঠিয়ে নিয়ে যায়। তিনি নির্বাচনী কাজে ওই এলাকায় অবস্থান করছিলেন।

এছাড়া এ ঘটনার কয়েক ঘন্টা পর বিকেলে সেনা সদস্যরা কলেজ গেটের উপজেলা নির্বাচনী কার্যালয় এলাকায় গিয়ে নির্বাচনী কাজে নিয়োজিত কর্মীদের ধাওয়া করে এবং শ্যামল চাকমা(২৮) নামে আরেক কর্মীকে আটক করে নিয়ে যায়। এ সময় সেনা সদস্যরা শ্যামল চাকমার সাথে থাকা একটি মটর সাইকেলও (গাড়ির নং-খাগড়াছড়ি-হ-১১-১২-১৭) নিয়ে যায় বলেও বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়।

বিবৃতিতে সচিব চাকমা নির্বাচন নিয়ে ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে অভিযোগ করে বলেন, সেনাবাহিনীকে দিয়ে নির্বাচনী কাজে নিয়োজিত কর্মীদের আটকের মাধ্যমে এলাকার সাধারণ ভোটারদের মধ্যে আতঙ্কের পরিবেশ সৃষ্টি করা হচ্ছে।  আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ইউপিডিএফ প্রার্থীর জয় ঠেকানোর লক্ষ্যে এটা সুগভীর ষড়যন্ত্র ছাড়া আর কিছুই নয়। এ অবস্থায় নির্বাচন কতটুকু সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হবে তা নিয়ে যথেষ্ট সংশয় দেখা দিয়েছে।

তিনি অবিলম্বে আটককৃতদের নিঃশর্ত মুক্তি, নির্বাচনী কাজে ব্যাঘাত সৃষ্টি ও ষড়যন্ত্র বন্ধ করা এবং সুষ্ঠু, অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের পরিবেশ সৃষ্টি করার জোর দাবি জানান।

জাতীয় সংসদ নির্বাচন পরিচালনা ও সমন্বয় কমিটির সদস্য সচিব প্রদীপন খীসার স্বাক্ষরে সংবাদ মাধ্যমে উক্ত বিবৃতিটি পাঠানো হয়।


Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.