পানছড়িতে গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের ১৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা

0
110

পানছড়ি প্রতিনিধি ।। খাগড়াছড়ির পানছড়িতে গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের ১৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আজ ৫ এপ্রিল ২০২১, সোমবার সকাল ১০টায় গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের পানছড়ি উপজেলা শাখা এই সভার আয়োজন করে।

সভার ব্যানার শ্লোগান ছিল ‘অবিলম্বে ভ্রাতৃঘাতি সংঘাত বন্ধ কর, লড়াই সংগ্রামের পথ ধর’। আর দাবি ছিল ‘পার্বত্য চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী প্রধান উৎসব বৈসাবি উপলক্ষে ৪ দিনের সাধারণ ছুটি ঘোষণা ও পরিত্যক্ত সেনা ক্যাম্প-পুলিশ ক্যাম্প স্থাপনের সিদ্ধান্ত বাতিল কর’

সভা শুরুর আগে শহীদ যুব নেতা পঞ্চসেন ত্রিপুরাসহ গণতান্ত্রিক আন্দোলনে আত্মবলিদানকারী সকল শহীদদের স্মরণে দাঁড়িয়ে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়।

আলোচনা সভায় গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের পানছড়ি উপজেলা শাখার সভাপতি কৃপায়ন চাকমার সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক এস মঙ্গল চাকমার সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন ইউপিডিএফ সংগঠক দারুণ চাকমা, গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক জিকো ত্রিপুরা, খাগড়াছড়ি জেলা সভাপতি বরুণ চাকমা ও বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ(পিসিপি)-এর কেন্দ্রীয় কমিটির দফতর সম্পাদক শুভাশিষ চাকমা।

আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, গণতান্ত্রিক যুব ফোরাম গঠন হওয়ার পর থেকে পার্বত্য চট্টগ্রামে অধিকার বঞ্চিত ও নিপীড়িত জনগণের অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। ভূমি বেদখলসহ সকল অন্যায়-অবিচারের বিরুদ্ধে যুব ফোরাম সব সময় সোচ্চার রয়েছে। কোন অপশক্তি গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের আন্দোলন দমিয়ে রাখতে পারবে না।

বক্তারা যুব ফোরামের পতাকাতলে সমবেত হয়ে জাতীয় অস্তিত্ব রক্ষায় পূর্ণস্বায়ত্তশাসনের আন্দোলন বেগবান করার জন্য যুব সমাজের প্রতি আহ্বান জানান।

বক্তারা আরও বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রাম থেকে পাহাড়িদের উচ্ছেদসহ অস্তিত্ব ধ্বংস করে দিতে শাসকগোষ্ঠীর ষড়যন্ত্রের কোনো শেষ নেই। একদিকে একটি প্রতিক্রিয়াশীল গোষ্ঠী সৃষ্টি করে সংঘাত জিইয়ে রেখে ফায়দা লুটছে, অপরদিকে কথিত উন্নয়ন, পর্যটন কেন্দ্র নির্মাণ, ক্যাম্প স্থাপন ও সেটলার বাঙালিদের লেলিয়ে দিয়ে পাহাড়িদের বংশপরম্পায় ভোগদখলীয় জমি জবরদখল করে তাদের ভিটেমাটি থেকে উচ্ছেদ করা হচ্ছে।

বক্তারা বলেন, সরকার ১৯৯৭ সালে জেএসএস’র সাথে স্বাক্ষরিত চুক্তি মোতাবেক প্রত্যাহারকৃত পরিত্যক্ত সেনা ক্যাম্পের জায়গায় ‌‘আধুনিক পুলিশ’ মোতায়নের সিদ্ধান্ত নিয়ে পাহাড়িদের উপর আরও নিপীড়নের মাত্রা বাড়িয়ে দেয়ার অপচেষ্টা চালাচ্ছে। তারা অবিলম্বে এই সিদ্ধান্ত বাতিল করে পরিত্যক্ত ক্যাম্পের জায়গাগুলো স্ব স্ব মালিকদেরকে ফেরত দেয়ার দাবি জানান।

বক্তারা পার্বত্য চট্টগ্রামে জুম্ম জনগণের ঐতিহ্যবাহী প্রধান সামাজিক উৎসব বৈ-সা-বি (বৈসু-সাংগ্রাই-বিঝু…) উপলক্ষে চার দিনের সাধারণ ছুটি ঘোষণাসহ পার্বত্য চট্টগ্রামে সুষ্ঠু গণতান্ত্রিক পরিবেশ ফিরিয়ে দেয়ার দাবি জানান।

আলোচনা সভা থেকে বক্তারা শাসকগোষ্ঠীর পাতানো ফাঁদ থেকে বেরিয়ে এসে ভ্রাতৃঘাতি সংঘাত বন্ধ করার মাধ্যমে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন গড়ে তোলারও আহ্বান জানিয়েছেন।

উল্লেখ্য, ২০০২ সালের ৫ এপ্রিল চট্টগ্রামে যুব ফোরাম গঠিত হয়। প্রথমে সংগঠনটি নাম ছিল পাহাড়ি যুব ফোরাম। পরে এক সম্মেলনের মাধ্যমে সংগঠনটির নাম পরিবর্তন করে ’গণতান্ত্রিক যুব ফোরাম’ করা হয়।

 


সিএইচটি নিউজে প্রকাশিত প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ,ভিডিও, কনটেন্ট ব্যবহার করতে হলে কপিরাইট আইন অনুসরণ করে ব্যবহার করুন।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.