পানছড়িতে দুই গ্রামবাসী অপহৃত

0
1

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি, সিএইচটিনিউজ.কম

পানছড়ি: গত রবিবার ২৪ অক্টোবর ২০১০ রাত আনুমানিক ১২:০০টার সময় খাগড়াছড়ি জেলার পানছড়িতে দুই গ্রামবাসীকে অস্ত্রের মুখে অপহরণ করেছে সন্ত্রাসীরা এর মধ্যে পানছড়ি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সর্বোত্তম চাকমার বড় ভাইও রয়েছে

ঘটনার বিবরণে জানা যায়, সন্তু লারমার পরিচালিত একটি সীমান্ত চোরাকারবারী সংঘবদ্ধ অপরাধী চক্রের সদস্য মহেন্দ্র সেন চাকমা, পিতা- নম চাকমা, গ্রাম- মাস্যা পাড়া, পানছড়ি-এর নেতৃত্বে ১০-১২ জন সশস্ত্র সন্ত্রাসী ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তের ৩নং গেট দিয়ে প্রবেশ করে খাগড়াছড়ি জেলাধীন পানছড়ি উপজেলার ধুধুক ছড়ায় হানা দেয় এ সময় তারা দক্ষিণ ধুধুকছড়া গ্রামের বাসিন্দা পানছড়ি উপজেলা চেয়ারম্যান সর্বোত্তম চাকমার বড় ভাই মনোরম চাকমা(৫০) পিতা- মৃত. রেবতী রঞ্জন চাকমা ও উত্তর ধুধুকছড়া গ্রামের বাসিন্দা ও শরণার্থী রেশন বিতরণ কমিটির প্রজেক্ট চেয়ারম্যান ভূবন মোহন চাকমা(৪৫) পিতা- সুরকর্মা চাকমাকে নিজ নিজ বাড়ি থেকে অপহরণ করে একই রাস্তা দিয়ে ভারতের ত্রিপুরার বাঘেইছড়ায় নিয়ে যায় চোরাকারবারী চক্রের সাথে সন্তু লারমার ভাড়াটে লোক যুক্ত বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে সন্ত্রাসীরা তাদেরকে এখনো ছেড়ে দেয়নি মুক্তিপণ আদায়ের লক্ষ্যে তারা এ কাজ করে থাকতে পারে ধারণা করা হচ্ছে

এদিকে ইউনাইট্ডে পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট(ইউপিডিএফ)-এর খাগড়াছড়ি জেলা সমন্বয়ক উজ্জ্বল স্মৃতি চাকমা ২৫ অক্টোবর ২০১০ সোমবার সংবাদ মাধ্যমকে দেয়া এক বিবৃতিতে অপহৃত গ্রামবাসীদের উদ্ধারের জন্য সরকার-প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন বিবৃতিতে তিনি তীব্র ক্ষোভ ও নিন্দা জানিয়ে বলেন অপহৃতদের উদ্ধারে প্রশাসন ব্যর্থ হলে এলাকাবাসী সংগঠিত হয়ে অভিযানে নামতে বাধ্য হবে।
বিবৃতিতে তিনি আরো বলেন,
অতীতে সরকারের নিরাপত্তা প্রহরায় সন্তু লারমা ধুধুকছড়ায় যেতেন ক্ষুদ্ধ এলাকাবাসীর ভয়ে বর্তমানে আর যেতে পারেন না এলাকাবাসীকে নিজ দলে প্রভাবিত করতে ব্যর্থ হয়ে তিনি সীমান্তের ওপারের চোরাকারবারী ও সংঘবদ্ধ অপরাধী চক্রের সাথে আঁতাত করে ধুধুকছড়ার নিরীহ গ্রামবাসীদের হয়রানি শুরু করেছন।

এছাড়া ঘটনার প্রতিবাদ ২৫ অক্টোবর বিকেল ২:৩০ টার সময় বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ ও গণতান্ত্রিক যুব ফোরাম পানছড়িতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে। পানছড়ি কলেজ গেট থেকে মিছিলটি শুরু হয়ে পানছড়ি বাজারের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে আবার কলেজ গেটে গিয়ে এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশে মিলিত হয়। এতে বক্তব্য রাখেন পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের পানছড়ি থানা শাখার সভাপতি প্রণয় চাকমা, সাধারণ সম্পাদক হরিকমল ত্রিপুরা ও গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের পানছড়ি থানা শাখার সভাপতি নিকোলাস চাকমা।
বক্তারা অবিলম্বে অপহৃতদের উদ্ধার করে অপহরণকারীদের বিরুদ্ধে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.