‘পাবর্ত্য চট্টগ্রামের বর্তমান পরিস্থিতি’ শীর্ষক আলোচনা সভায় বক্তারা : সারা দেশে ফ্যাসিবাদী শাসন চলছে

0
1

সিএইচটি নিউজ ডটকম
ctb alochonasova3চট্টগ্রাম: পার্বত্য চট্টগ্রামসহ সারা দেশে বর্তমানে গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া নেই বললেই চলে। সরকার প্রতিনিয়ত সভা সমাবেশে বাধা প্রদানসহ মত প্রকাশের স্বাধীনতা হরণ করে চলেছে। কার্যত সারা দেশে ফ্যাসিবাদী কায়দায় শাসন চলছে।

বৃহস্পতিবার (৬ আগস্ট) বিকাল ৩:৪৫টায় চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবে ইঞ্জিনিয়ার আবদুল খালেক মিলনায়তনে গণতান্ত্রিক যুব ফোরাম ও হিল উইমেন্স ফেডারেশনের যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত “পার্বত্য চট্টগ্রামের বর্তমান পরিস্থিতি” শীর্ষক এক আলোচনায় সভায় বক্তারা এসব কথা বলেন।

হিল উইমেন্স ফেডারেশনের সভাপতি নিরূপা চাকমা সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় পার্বত্য চট্টগ্রামের পরিস্থিতির উপর লিখিত প্রবন্ধ পাঠ করেন গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের কেন্দ্রীয় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এসিংমং মারমা। এছাড়া সভায় আলোচনা করেন বাংলাদেশ মুক্তি সংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধ গবেষণা কেন্দ্রের চেয়ারম্যান ডা. মাহফুজুর রহমান, জাতীয় মুক্তি কাউন্সিল পূর্ব-৩ এর সভাপতি ভূলন লাল ভৌমিক, গণসংহতি আন্দোলন, চট্টগ্রাম জেলা সমন্বয়কারী হাসান মারুফ রুমী, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের অধ্যাপক মোঃ আমির উদ্দিন, লেখক ও গল্পকার আহমদ জসিম ও গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক অংগ্য মারমা। আলোচনা সভায় প্রায় ২ শতাধিক ছাত্র, যুব-নারী অংশগ্রহণ করেন।ctg alochonasova1

আলোচনা সভায় বক্তারা পাবর্ত্য চট্টগ্রামে সেনা শাসন, রাজনৈতিক নিপীড়ন, ভূমি বেদখল ও নারী নির্যাতনের ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেন। পাবর্ত্য চট্টগ্রাম সহ সারা দেশে নিপীড়িত জনগণের জাতীয় মুক্তির সংগ্রাম বেগবান করার জন্য পাহাড় ও সমতলে ঐক্যবদ্ধ সংগ্রামের বিকল্প নেই বলে বক্তারা মত প্রকাশ করেন।

আলোচনা সভা থেকে পার্বত্য পার্বত্য চট্টগ্রামের পরিস্থিতি উত্তরণে ৬ দফা দাবি তুলে ধরা হয়। দাবিগুলো হচ্ছে- অবিলম্বে পার্বত্য চট্টগ্রামে দমন-পীড়ন, ধড়পাকড় বন্ধ করে পূর্ণগণতান্ত্রিক পরিবেশ নিশ্চিত করা, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয় জারিকৃত ১১দফা অগণতান্ত্রিক নির্দেশনা বাতিল করা, পার্বত্য চট্টগ্রামে অপারেশন উত্তরণের নামে সেনা শাসন বন্ধ করা, সংবিধানের পঞ্চদশ সংশোধনী বাতিল করে সংখ্যালঘু জাতিসমূহের সাংবিধানিক স্বীকৃতি দেয়া, পাহাড় থেকে সেনা-সেটলার প্রত্যাহার করে নারীর নিরাপত্তা নিশ্চিত করা এবং মানিকছড়ি উপজেলার মনাদং পাড়াসহ তিন পার্বত্য জেলায় সেনা-বিজিবি-সেটলার কর্তৃক ভূমি বেদখল বন্ধ করা।
—————–

সিএইচটিনিউজ.কম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.