পার্বত্য চট্টগ্রামকে বিশেষ স্বায়ত্তশাসিত এলাকা হিসেবে ঘোষণার দাবি জানিয়েছে ইউপিডিএফ

0
3

ডেস্ক রিপোর্ট, সিএইচটিনিউজ.কম

PBসংবিধানে পার্বত্য চট্টগামকে বিশেষ স্বায়ত্তশাসিত এলাকা হিসেবে ঘোষণার দাবি জানিয়েছে ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট(ইউপিডিএফ)। আগামী ২ ডিসেম্বর পার্বত্য চুক্তির ১৩ বছরপূর্তির প্রাক্কালে ইউপিডিএফ-এর সভাপতি প্রসিত খীসা আজ ২৯ নভেম্বর সংবাদ মাধ্যমকে দেয়া এক বিবৃতিতে এ দাবি জানান।

প্রসিত খীসা বলেন, দীর্ঘ তের বছরেও সরকার পক্ষ চুক্তি বাস্তবায়ন না করায় এ ব্যাপারে তাদের যে কোন সদিচ্ছা নেই, সেটা আজ প্রমাণিত সত্য। চুক্তি সম্পর্কে কিছু মানুষের মনে প্রথম দিকে আশার সঞ্চার হলেও সময়ের সাথে সাথে সেটা প্রায় হতাশায় রূপ নিয়েছে।

বিবৃতিতে পার্বত্য চুক্তিকে জনসংহতি সমিতির আত্মসমর্পণের দলিল আখ্যায়িত করে প্রসিত খীসা আরও বলেন, চুক্তি মোতাবেক খাগড়াছড়ি স্টেডিয়ামে সামন্ত যুগীয় কায়দায় যেভাবে সন্তু লারমা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে একে-৪৭ রাইফেল তুলে দিতে বাধ্য হয়েছিলেন, ঐ অপমাণজনক ঘটনাতেই সরকারের মনোভাব এবং চুক্তির অনিশ্চয়তা সম্পর্কে ধারণা পাওয়া গিয়েছিল।

প্রসিত খীসা আরও বলেন, ১৯৯৭ সালের ২ ডিসেম্বর সন্তু লারমা ও তৎকালীন আওয়ামী লীগ সরকারের মধ্যে সম্পাদিত চুক্তি যদি এতদ্অঞ্চলের শান্তি স্থাপনের উদ্দেশ্যে হয়ে থাকে, তাহলে এ সরকারের আমলে এখনও কেন প্রতিনিয়ত পাহাড়িদের ভূমি বেদখল করা হচ্ছে, জনগণের ঘরবাড়ি পুড়িয়ে দেয়া হচ্ছে, লোকজনকে বিনা কারণে গুলি করে মেরে ফেলা হচ্ছে, গণতান্ত্রিক কার্যক্রমে বাধা সৃষ্টি করা হচ্ছে, কেন অপারেশন উত্তরণ জারি রয়েছে অর্থাৎ এক কথায় পাহাড়িদের ওপর সকল ধরনের নির্যাতন জারি রাখা হয়েছে?

বিবৃতিতে ইউপিডিএফ নেতা পার্বত্য অঞ্চলে স্থায়ী শান্তি প্রতিষ্ঠার জন্য সংবিধানে পার্বত্য চট্টগ্রামকে বিশেষ স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চল ঘোষণা করা ও পাহাড়িদের প্রথাগত ভূমি অধিকারের স্বীকৃতি প্রদান, অপারেশন উত্তরণ বন্ধসহ পার্বত্য চট্টগ্রাম থেকে সেনাবাহিনী প্রত্যাহার ও সেটলারদেরকে পার্বত্য চট্টগ্রামের বাইরে সম্মানজনক পুনর্বাসনের উদ্যোগ নিতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানান।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.