পাহাড়ি নারীকে গণধর্ষণের প্রতিবাদে খাগড়াছড়ি ও পানছড়িতে এইচডব্লিউএফের বিক্ষোভ

0
41

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি ।। খাগড়াছড়ি সদরের বলপিয়ে আদামে পাহাড়ি নারীকে গণধর্ষণের প্রতিবাদে খাগড়াছড়ি ও পানছড়িতে বিক্ষোভ মিছিল করেছে হিল উইমেন্স ফেডারেশন (এইচডব্লিউএফ)।

আজ শুক্রবার (২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০) বিকাল ৩টায় খাগড়াছড়ি সদর এলাকায় বিক্ষোভ মিছিল পরবর্তী অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন হিল উইমেন্স ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় দপ্তর সম্পাদক নীতি শোভা চাকমা ও খাগড়াছড়ি জেলা শাখার আহ্বায়ক এন্টি চাকমা।

অপরদিকে জেলার পানছড়ি উপজেলার লোগাং ইউনিয়নে অনুষ্ঠিত মিছিল পরবর্তী সমাবেশে হিল উইমেন্স ফেডারেশনের সদস্য মিতালি চাকমার সভাপতিত্বে ও কবিতা চাকমার সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন লোগাং ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক সদস্য নিরঙ্গলতা চাকমা, গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের পানছড়ি উপজেলা সাধারণ সম্পাদক সুর-মঙ্গল চাকমা ,পিসিপি’র খাগড়াছড়ি জেলা শাখা সাধারণ সম্পাদক নিকেল চাকমা এবং ইউপিডিএফ সংগঠক সাইক্লোন চাকমা প্রমুখ।

পৃথকভাবে অনুষ্ঠিত এসব সমাবেশে বক্তারা বলপিয়ে আদামে পাহাড়ি নারীকে গণধর্ষণ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে বলেন, সাম্প্রতিক সময়ে পার্বত্য চট্টগ্রামে যেভাবে নারী-শিশু ধর্ষণের ঘটনা ঘটছে তা অত্যন্ত উদ্বেগজনক। এদেশের শাসকগোষ্ঠী পার্বত্য চট্টগ্রামে জাতিগত নিপীড়নের অংশ হিসেবে দশকের পর দশক ধরে এ ধরনের ঘটনা জারি রেখেছে। বলপিয়ে আদামের গণধর্ষণের ঘটনাও তার কোন ব্যতিক্রম নয়।

বক্তারা বলেন, ঘটনার দুই দিন অতিক্রান্ত হলেও পুলিশ এখনো কোন অপরাধীকে গ্রেফতার করেনি। উপরন্তু জনগণ যাতে এ ঘটনার প্রতিবাদ করতে না পারে সেজন্য নানাভাবে চাপ সৃষ্ট করা হচ্ছে বলে তারা অভিযোগ করেন।

বক্তারা আরো বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামে যখনই পাহাড়ি নারী ধর্ষণের শিকার হয় তখনই ঘটনা ধামাচাপা দিতে ও অপরাধীদের রক্ষা করতে মেডিকেল টেস্ট রিপোর্ট গোপন করা থেকে শুরু করে নানা টালবাহানা করা হয়। এর ফলে ধর্ষকদের দৃষ্টান্তমূলক সাজা তো দূরের কথা তারা সহজেই রেহায় পেয়ে যায়। এসব কারণে পার্বত্য চট্টগ্রামে নারী নির্যাতনের ঘটনা দিন দিন বেড়েই চলছে।

বক্তারা অবিলম্বে বলপিয়ে আদামে পাহাড়ি নারীকে গণধর্ষণ ও লুটপাটের সাথে জড়িতদের গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি, নারী ধর্ষণে রাষ্ট্রীয় মদদদান বন্ধ করা এবং নারীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার দাবি জানান।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.