পাহাড়ি গ্রামে সেটলার হামলার প্রতিবাদে রাঙামাটি-খাগড়াছড়ি সড়কে অবরোধ অব্যাহত

0
1

সিএইচটিনিউজ.কম
Boghachari settler attack5 copyরাঙামাটি: রাঙামাটির নানিয়াচর উপজেলার বগাছড়িতে তিনটি পাহাড়ি গ্রামে হামলা, অগ্নিসংযোগ, লুটপাটের প্রতিবাদে এবং হামলাকারীদের গ্রেফতারসহ ৫ দফা দাবিতে নানিয়াচর ভূমি রক্ষা কমিটির ডাকে রাঙামাটি-খাগড়াছড়ি সড়কে অনির্দিষ্টকালের অবরোধ অব্যাহত রয়েছে। দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত সড়ক অবরোধের পাশাপাশি হামলাকারীদের যানবাহন ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বয়কটের আন্দোলন চলবে বলে জানিয়েছে ভূমি রক্ষা কমিটি। অবরোধের কারণে রাঙামাটি-খাগড়াছড়ি সড়কে যান চলাচল বন্ধ রয়েছে।

উক্ত ঘটনার প্রতিবাদে ভূমি রক্ষা কমিটি ইতিমধ্যে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করেছে। এ ঘটনার প্রতিবাদে পার্বত্য চট্টগ্রামসহ সারা দেশে বিভিন্ন সংগঠনের প্রতিবাদ কর্মসূচিও অব্যাহত রয়েছে।

ভূমি রক্ষা কমিটির অন্যান্য দাবিগুলো হলো-ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারদের যথাযথ ক্ষতিপূরণ ও লুণ্ঠিত বুদ্ধমূর্তিগুলো উদ্ধার, সেটলার বাঙালিদের বগাছড়ি এলাকা থেকে সরিয়ে নেওয়া, বেদখল হওয়া ভূমি ফেরত দেওয়া এবং ভবিষ্যতে যেন পাহাড়ি গ্রামে হামলা না হয়, তার নিশ্চয়তা দেওয়া।

এলাকার বর্তমান পরিস্থিতি আপাতত শান্ত থাকলেও পাহাড়িদের মধ্যে এখনো আতঙ্ক কাটেনি। সহায়-সম্বলহীন হয়ে এই শীতের দিনে বর্তমানে তারা মানবেতর জীবন-যাপন করতে বাধ্য হচ্ছেন।

এদিকে, রাঙামাটি জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারদের জন্য পর্যায়ক্রমে বাড়ি নির্মাণ করে দেয়ার আশ্বাস দেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে। প্রথম পর্যায়ে ১৫টি বাড়ি নির্মাণের কাজ শীঘ্রই শুরু করা হবে বলে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ১৬ ডিসেম্বর সেটলার বাঙালিরা সুরিদাস পাড়া, নবীন তালুকদার পাড়া ও বগাছড়িতে হামলা চালিয়ে পাহাড়িদের ৫০টি বসতবাড়ি ও ৭টি দোকান জ্বালিয়ে দেয়, বৌদ্ধ বিহারে হামলা চালিয়ে ধর্মীয় গুরুকে মারধর, বিহারের জিনিসপত্র তছনছ এবং বুদ্ধমূর্তি ও টাকা পয়সা লুটপাট করে নিয়ে যায়।
—————–

সিএইচটিনিউজ.কম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.