পিসিপি’র দিঘীনালা কলেজ শাখার কাউন্সিল সম্পন্ন

0
1
দিঘীনালা প্রতিনিধি,সিএইচটিনিউজ.কম
“জাতীয় বেঈমান-দালাল-সুবিধাবাদী জাতির নিকৃষ্ট কুলাঙ্গারদের প্রতিহত করুন, আন্দোলন সংগ্রামে এগিয়ে আসুন, জাতীয় অস্তিত্ব রক্ষার্থে ছাত্র সমাজ এক হোন” এসব শ্লোগানে বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ(পিসিপি)-এর খাগড়াছড়ির দিঘীনালা কলেজ শাখার ৪র্থ কাউন্সিল আজ ১২ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার সম্পন্ন হয়েছে।
কাউন্সিল উপলক্ষে দিঘীনালা ডিগ্রী কলেজ মাঠে সকাল ১০টায় অনুষ্ঠিত ছাত্র সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন কলেজ শাখার সভাপতি বিজয় চাকমা। এতে আরো বক্তব্য রাখেন ইউনাইটেড পিপল্‌স ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট(ইউপিডিএফ)-এর সংগঠক দেবদন্ত ত্রিপুরা, পিসিপির কেন্দ্রীয় তথ্য, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক এবং চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি জুপিটার চাকমা, পার্বত্য চট্টগ্রাম নারী সংঘের সভাপতি সোনালী চাকমা, হিল উইমেন্স ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় সভাপতি কণিকা দেওয়ান, দিঘীনালা উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সুপ্রিয় চাকমা, ২নং বোয়ালখালী ইউপি চেয়ারম্যান চয়ন বিকাশ চাকমা ও দিঘীনালা ডিগ্রী কলেজের যুক্তি বিদ্যা বিভাগের প্রভাষক জেমি চাকমা প্রমুখ। সমাবেশে স্বাগত বক্তব্য রাখেন পিসিপি’র দিঘীনালা ডিগ্রী কলেজ শাখার সহ সভাপতি জহেল চাকমা এবং পরিচালনা করেন সাধারণ সম্পাদক রূপেশ চাকমা।

সমাবেশ শুরম্নতে শোক প্রস্ত্মাব পাঠ করেন দিঘীনালা ডিগ্রী কলেজের একাদশ শ্রেণীর ছাত্রী পূন্যাসি চাকমা। শোক প্রস্ত্মাব পাঠ শেষে শহীদদের স্মরণে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।
সমাবেশে দেবদন্ত্ম ত্রিপুরা বলেন, সরকার পঞ্চদশ সংশোধনীর মাধ্যমে পার্বত্য চট্টগ্রাম সহ দেশের সকল সংখ্যালঘু জাতির জনগণের উপর বাঙালি জাতীয়তা চাপিয়ে দিয়েছে। এর বিরদ্ধে ছাত্র সমাজকে আরো বেশি সোচ্চার হতে হবে।
কণিকা দেওয়ান বলেন, সরকারের প্রত্যÿ মদদে পাহাড়িদের উচ্ছেদ করার চেষ্টা চলছে। যেখানে ভুমি বেদখল, অন্যায় সংঘটিত হয়েছে সেখানে হিল উইমেন্স ফেডারেশনও অন্যান্য সংগঠনের ন্যায় সোচ্চার রয়েছে। তিনি নিপীড়িত, শোষিত জুম্ম জনগণের পক্ষে আন্দোলনে সামিল হওয়ার জন্য ছাত্র সমাজের প্রতি আহ্বান জানান।
সোনালী চাকমা বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামে নারীরা বিভিন্নভাবে নির্যাতন ও বঞ্চনার শিকার হচ্ছে। আন্দোলনের মাধ্যমেই এর থেকে মুক্ত হতে হবে। পাঠ্য পুস্তকে পাহাড়িদের বিষয়ে অবমাননাকর বক্তব্যের বিরুদ্ধেও আন্দোলন গড়ে তোলার জন্য ছাত্র সমাজের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।
দিঘীনালা কলেজের প্রভাষক জেমি চাকমা ছাত্রদের উদ্দেশ্যে বলেন, শুধুমাত্র পড়াশুনার মধ্যে সীমাবদ্ধ না থেকে অধিকার প্রতিষ্ঠার আন্দোলনেও যুক্ত হতে হবে। সুশিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে সমাজ ও জাতির জন্য কাজ করতে হবে।
জুপিটার চাকমা বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামে নিপীড়ন-নির্যাতনের বিরদ্ধে ছাত্রদেরকে সুসংগঠিত হয়ে প্রতিবাদ-প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে। অতীতের ইতিহাস থেকে শিক্ষা নিয়ে সকল অন্যায়-অত্যাচার সেখানে ছাত্রদের ছাত্রদেরকে প্রতিবাদে গর্জে উঠতে হবে।

 

 
সমাবেশ শেষে সর্বসম্মতিক্রমে রূপেশ চাকমাকে সভাপতি, রূপেন্টু চাকমাকে সাধারণ সম্পাদক ও জেনার চাকমাকে সাংগঠনিক সম্পাদক নির্বাচিত করে ১৫ সদস্য বিশিষ্ট কার্যকরী কমিটি গঠন করা হয়। এছাড়া কমিটিতে ৪৭ জনকে সাধারণ সদস্য হিসেবে অন্ত্মর্ভুক্ত করা হয়। নতুন কমিটির সদস্যদের শপথ বাক্য পাঠ করান জুপিটার চাকমা। 

 
সমাবেশ শেষে একটি মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

 

——
Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.