ইউপিডিএফ সমর্থিত প্রার্থীর পক্ষে মনোনয়ন পত্র জমা দিতে গিয়ে

পিসিপি নেতা অমল ত্রিপুরা ও এন্টি চাকমাকে আটক করেছে পুলিশ, পিসিপি’র নিন্দা ও প্রতিবাদ

0
7

খাগড়াছড়ি :  আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে খাগড়াছড়িতে ইউপিডিএফ সমর্থিত প্রার্থীর পক্ষে মনোনয়ন পত্র জমা দিতে  গিয়ে পুলিশ বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ(পিসিপি)-এর কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও খাগড়াছড়ি জেলা সভাপতি অমল ত্রিপুরা এবং জেলা সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক ও হিল উইমেন্স ফেডারেশনের জেলা শাখার সদস্য এন্টি চাকমাকে আটক করেছে।  পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ উক্ত আটকের ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে।

অমল ত্রিপুরা ও এন্টি চাকমাকে আটক করে নিয়ে যাচ্ছে পুলিশ।

[divider style=”normal” top=”20″ bottom=”20″]

নির্বাচন কমিশনের ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী মনোনয়ন পত্র জমাদানের শেষ দিন আজ বুধবার (২৮ নভেম্বর ২০১৮) বেলা ৩টার দিকে অমল ত্রিপুরা, এন্টি চাকমাসহ একটি টিম ২৯৮ নং খাগড়াছড়ি সংসদীয় আসনে ইউপিডিএফ সমর্থিত স্বতন্ত্র প্রার্থী নুতন কুমার চাকমা ও সচিব চাকমার পক্ষে মনোনয়ন পত্র জমা দিতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও জেলা সহকারী রিটার্নিং অফিসার খান মো. নাজমুস শোয়েব-এর কার্যালয়ে যান। মনোনয়ন পত্র জমাদান শেষে সেখান থেকে বের হওয়ার সময় একদল পুলিশ তাদের দু’জনকে অন্যায়ভাবে আটক করে নিয়ে যায়।

উক্ত আটকের ঘটনায় পিসিপি’র কেন্দ্রীয় সভাপতি বিপুল চাকমা ও সাধারণ সম্পাদক সুনয়ন চাকমা তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন।

সংবাদ মাধ্যমে প্রদত্ত বিবৃতিতে নেতৃদ্বয় এ আটকের ঘটনাকে ন্যাক্কারজনক আখ্যায়িত করে বলেন, সারা দেশে যেখানে উৎসবমুখর পরিবেশে মনোনয়ন পত্র দাখিলের কার্যক্রম চলেছে সেখানে খাগড়াছড়ি জেলা সহকারী রিটার্নিং অফিসারের কার্যালয়ে মনোনয়ন পত্র জমা দিতে গিয়েই আমাদের নেতা-কর্মীদের আটক করা হয়েছে। এটা গণতান্ত্রিক অধিকারের ওপর চরম আঘাত বলে নেতৃদ্বয় মন্তব্য করেন।

নেতৃদ্বয় অবিলম্বে অমল ত্রিপুরা ও এন্টি চাকমাকে নিঃশর্ত মুক্তি এবং অন্যায় ধরপাকড় বন্ধ করে পার্বত্য চট্টগ্রামে সুষ্ঠু গণতান্ত্রিক পরিবেশ নিশ্চিতের দাবি জানান।
—————-
সিএইচটি নিউজ ডটকম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.