বগাছড়িতে সেনা-সেটলার হামলার ৬ বছর

0
194
ফাইল ছবি

রাঙামাটি : আজ ১৬ ডিসেম্বর ২০২০ রাঙামাটির নান্যাচর উপজেলার বুড়িঘাট ইউনিয়নের বগাছড়িতে পাহাড়িদের কয়েকটি গ্রামে সেনা-সেটলার হামলার ৬ বছর পূর্ণ হলো। ২০১৪ সালের এই দিনে বগাছড়ি, সুরিদাশ পাড়া, নবীন তালুকদার পাড়ায় হামলা চালিয়ে পাহাড়িদের ঘরবাড়িতে অগ্নিসংযোগ, ভাংচুর ও লুটপাট করে বিজয় উৎসব করেছিল সেনাবাহিনী ও সেটলার বাঙালিরা।

সেদিন সকাল ৭টা থেকে সেনা-সেটলাররা পাহাড়িদের ঘরবাড়িতে হামলা ও অগ্নিসংযোগ শুরু করে। একে একে তিনটি গ্রামে পাহাড়িদের ৬০টির অধিক বাড়ি-দোকান পুড়ে ছাই করে দেয়। এছাড়া সেটলাররা স্থানীয় বৌদ্ধ বিহার জ্বালিয়ে দেয়ার চেষ্টা করে এবং বিহারে ঢুকে বৌদ্ধ ভিক্ষুকে মারধর ও বুদ্ধ মূর্তি লুট করে।

এ হামলার আজ ছয় বছর পূর্ণ হলেও বিচার হয়নি হামলাকারী সেনা-সেটলারদের। তারা রয়েছে এখনো বহাল তবিয়তে। ফলে পাহাড়িরা এখনও নানা আতঙ্কের মধ্যে দিনযাপন করতে বাধ্য হচ্ছেন।

অপরদিকে সেনা-প্রশাসনের প্রত্যক্ষ-পরোক্ষ সহযোগীতায় সেটলার বাঙালিরা প্রতিনিয়ত পাহাড়িদের ভোগদখলীয় জায়গা-জমি বেদখলের অপচেষ্টায় লিপ্ত থাকার অভিযোগ রয়েছে।

শুধু বগাছড়ি হামলা নয়, পার্বত্য চট্টগ্রামে এ যাবত যত হত্যাকাণ্ড ও সাম্প্রদায়িক হামলার ঘটনা ঘটেছে তার কোনটিরই বিচার হয়নি। উপরন্তু পার্বত্য চট্টগ্রামে পাহাড়ি জনগণের উপর নিপীড়ন-নির্যাতন, ভূমি বেদখলের মাত্রা আগের চেয়েও বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। অন্যায় ধরপাকড়, মিথ্যা মামলায় জেলে প্রেরণ, বিনা বিচারে হত্যা, রাত-বিরাতে ঘরবাড়িতে তল্লাশি যেন নিত্য নৈমিত্তিক ঘটনায় পরিণত হয়েছে। সাধারণ মানুষও এই নির্যাতনের হাত থেকে রেহাই পাচ্ছেন না।

বগাছড়ি হামলার বিবরণ সম্বলিত সংক্ষিপ্ত ভিডিও চিত্রটি দেখুন:

 


সিএইচটি নিউজে প্রকাশিত/প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ,ভিডিও, কনটেন্ট ব্যবহার করতে হলে কপিরাইট আইন অনুসরণ করে ব্যবহার করুন।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.