বগাছড়ি ক্ষতিগ্রস্তদের সাহায্যার্থে এ পর্যন্ত যারা এগিয়ে এসেছেন

0
1

সিএইচটিনিউজ.কম
Tran bitoronনান্যাচর(রাঙামাটি): গত ১৬ ডিসেম্বর রাঙামাটির নানিয়াচরের বগাছড়িতে সেটলার বাঙালিদের হামলা, অগ্নিসংযোগে ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য বেসরকারীভাবে বিভিন্ন সংগঠন, প্রতিষ্ঠান ও ব্যক্তি এগিয়ে এসেছেন। সকলকে পাশে পেয়ে ক্ষতিগ্রস্তরা কিছুটা হলেও মনোবল ফিরে পেয়েছেন।

গতকাল বুধবার পর্যন্ত যেসব সংগঠন, প্রতিষ্ঠান ও ব্যক্তির পক্ষ থেকে ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য ত্রাণ সামগ্রী প্রদান করা হয়েছে সেগুলো হলো- ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট(ইউপিডিএফ), রামহরি পাড়া গ্রামবাসী, চৌধুরী ছড়ার জ্ঞান মেম্বার, আনন্দ মেম্বার, তুল্যাপাড়া গ্রামবাসী, হাজাছড়ি পূর্ব পাড়া, নান্টু মিয়া, চোইছড়ি গ্রামবাসী, ঘিলাছড়ি এলাকাবাসী, নাঙ্গেল পাড়া এলাকাবাসী, কুদুকছড়ি বাজার ও গ্রামীণ শক্তি, নির্বাণপুর বনবিহার, রাঙামাটি সদরের রাজবাড়ী এলাকাবাসী- টিএন্ডটি এলাকাবাসী, গড়াকাটা ও পুলিপাড়া এলাকাবাসী, ডা: শান্তি রঞ্জন চাকমা, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীবৃন্দ, ধর্মঘর এলাকাবাসী, মহালছড়ি উপজেলার পাহাড়তলী- স’মিল পাড়া-বুয়াটেক-বাবুপাড়া-রামেসুকার্বারী পাড়া-দিপালু টিলা এলাকাবাসী, সিআইপিডি রাঙামাটি,ত্রিদিব নগর বনরূপা এলাকাবাসী, উপজাতীয় কাঠ ব্যবসায়ী সমিতি, সমর চাকমা, সাপছড়ি ইউনিয়ন, কুদুকছড়ির হাজাছড়া, আবাসিক এলাকা, হেডম্যান পাড়া, চংড়াছড়ি, চেগেয়াছড়ি, বটতলী এলাকাবাসী। এছাড়া সিঙ্গাপুর থেকে পাঠানে নগদ টাকা কিরণ চাকমা’র মাধ্যমে প্রদান করা হয়েছে।

সরকারি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে নানিয়াচর উপজেলা প্রশাসন, ঘিলাছড়ি ইউনিয়ন পরিষদ, কুদুকছড়ি ইউনিয়ন পরিষদ ও সাপছড়ি ইউনিয়ন পরিষদ থেকে সহযোগিতা প্রদান করা হয়েছে।

ত্রাণ সামগ্রীর মধ্যে চাল-তেল-লবণ, কম্বল, মশারী, শীতবস্ত্র, বাসা তৈরির জন্য তেলপাড়, হাড়ি-পাতিল, বাসন-কোচন, নগদ টাকা,…. ইত্যাদি রয়েছে। এই দুর্দিনে এগিয়ে আসার জন্য ক্ষতিগ্রস্তরা সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন।

এদিকে, গতকাল বুধবার রাঙামাটি জেলা প্রশাসন থেকে বুড়িঘাট ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান প্রমোদ খীসার মাধ্যমে বাড়ি তৈরি সরঞ্জাম ঢেউটিন, গাছ, সিমেন্ট, কংকর দেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

আজ বৃহস্পতিবার সকালে রাঙামাটির নবাগত জেলা প্রশাসক মো: শামসুল আরেফিন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এ সময় তিনি ক্ষতিগ্রস্তদের সাথে কথা বলেন এবং বাড়ি তৈরি করে দেয়া হবে বলে তাদেরকে আশ্বস্ত করেন।
—————

সিএইচটিনিউজ.কম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.