বাঘাইছড়িতে যাত্রীবাহী লঞ্চে সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদে রাজধানীতে পিসিপি’র বিক্ষোভ

0
2

সিএইচটি নিউজ ডটকম
IMG_20151115_160459ঢাকা: রাঙামাটির বাঘাইছড়িতে সেটলার কর্তৃক পাহাড়িদের ওপর উগ্রসাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদে রাজধানী ঢাকায় বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ(পিসিপি) ঢাকা শাখা।

আজ রবিবার (১৫ নভেম্বর) বিকাল ৪টায় জাতীয় প্রেসক্লাবে সম্মুখে অনুষ্ঠিত সমাবেশে ঢাকা শাখার সভাপতি ত্রিশঙ্কু খীসার সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন পিসিপি’র সভাপতি সিমন চাকমা, হিল উইমেন্স ফেডারেশনের সভাপতি নিরূপা চাকমা, গণতান্ত্রিক যুব ফোরাম নেতা বরুন চাকমা এবং সংহতি জানিয়ে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশন এর কেন্দ্রীয় সভাপতি এমএম পারভেজ লেলিন । সভা পরিচালনা করেন, পিসিপি ঢাকা শাখার সদস্য রিয়েল ত্রিপুরা। সমাবেশের পূর্বে প্রেসক্লাবের সামনে থেকে বিক্ষোভ মিছিল শুরু হয়ে পল্টন মোড় প্রদক্ষিণ করে।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, গতকাল শনিবার বাঘাইছড়িতে যাত্রীবাহী লঞ্চে গুলশাখালী ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডের সদস্য মো:বাবুলের নেতৃত্বে পরিকল্পিতভাবে সেটলাররা পাহাড়ি যাত্রীদের ওপর হামলা চালিয়ে কমপক্ষে ৫ জনকে গুরুতর জখম করে। ঘটনার ধরন ও আলামতে এটা স্পষ্ট করে বলা যায়, এটি ছিল একটি সুপরিকল্পিত উগ্র সাম্প্রদায়িক হামলা। বক্তারা আরও মন্তব্য করে বলেন, এ হামলার পেছনে উগ্রসাম্প্রদায়িক গোষ্ঠীর ইন্ধন রয়েছে, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ১১দফা নির্দেশনা জারি থাকায় সেনাবাহিনীই এখন পার্বত্য চট্টগ্রামে সর্বেসর্বা। কাজেই সেনাবাহিনীর মধ্যকার উগ্রসাম্প্রদায়িক গোষ্ঠীটির উস্কানি ছাড়া একজন ইউপি মেম্বারের পক্ষে প্রকাশ্য দিবালোকে সেটলার নিয়ে যাত্রীবাহী লঞ্চ থামিয়ে এভাবে বর্বরোচিত হামলা করা সম্ভব ছিল না।

বক্তারা আরো বলেন, এ হামলা কোন বিচ্ছিন্ন ঘটনা নয়, শাসকগোষ্ঠী ও সেনা-প্রশাসনের মদদে পার্বত্য চট্টগ্রামে অহরহ যে সাম্প্রদায়িক হামলা হচ্ছে; এ হামলা তারই অংশ। শাসকগোষ্ঠি, সেনা-প্রশাসনের আশীর্বাদপুষ্ট সেটলাররা পাহাড়ে এত বেপরোয়া হয়েছে যে, তারা দেশের প্রচলিত আইন-আদালত তোয়াক্কা করে না, যে কোন সময় যে কোন স্থানে অপরাধ করতে দ্বিধা করে না। কারণ তাদের পেছনে রয়েছে রাষ্ট্রীয় শক্তি, অপরাধ করলেও তাদের শাস্তি হয় না। এ কারণে পাহাড়ে একের পর এক সাম্প্রদায়িক হামলার ঘটনা ঘটে যাচ্ছে।

নেতৃবৃন্দ এ হামলার নিন্দা জানিয়ে বলেন, এ হামলা একটি বর্বর ঘটনা। মধ্য যুগে এ ধরনের বর্বর হামলার ঘটনা ঘটত। কিন্তু বড়ই পরিতাপের বিষয় আধুনিক সভ্য সমাজে পাহাড়িদের এ ধরনের ঘটনা প্রত্যক্ষ করতে হচ্ছে। এ ধরনের সাম্প্রদায়িক হামলা কোন সভ্য দেশে কল্পনা করা যায় না।

সমাবেশে বক্তারা অবিলম্বে বাঘাইছড়িতে নিরীহ পাহাড়ি লঞ্চ যাত্রীদের ওপর হামলায় নেতৃত্বদানকারী ইউপি মেম্বার মো: বাবুলসহ সেটলার সর্দারদের গ্রেফতার ও শাস্তির দাবি জানান।

উল্লেখ্য, গতকাল (১৪ নভেম্বর) সকাল সাড়ে ৯ টার দিকে বাঘাইছড়ি উপজেলা আমতলী ইউনিয়নের ছোট মাল্যার দিগোরমুখ এলাকায় যাত্রীবাহী লঞ্চে ৪০-৫০ জন সেটলাররা ১৪-১৫ টি বোট নিয়ে লঞ্চ থামিয়ে পাহাড়ি যাত্রীদের উপর হামলা চালায়। এতে তন্না চাকমা(৩২), বিনতী চাকমা(৪০), রিসিকা চাকমা(৩৬), সিবলী কুমার চাকমা(৩০) ও জ্যোতির্ময় চাকমা (৩১) আহত হয়।
———————-

সিএইচটিনিউজ.কম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.