বাঘাইছড়িতে সেনাবাহিনীর ব্রাশফায়ারে নিহত ৫ জনের লাশ ময়না তদন্ত শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্তর

0
1

সিএইচটি নিউজ ডটজম
Khagrachari-rangamati baghaichai army-pcjss mn larma gun fight 5dead body  postmartam pic2, 16-08-2015
খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি: রাঙামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলার বড়াদাম এলাকায় গত শনিবার সেনাবাহিনীর ব্রাশফায়ারে নিহত ৫ জনের লাশ খাগড়াছড়িতে ময়না তদন্তের পর পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। রবিবার (১৬ আগস্ট) বিকেলে খাগড়াছড়ি আধুনিক সদর হাসপাতাল প্রাঙ্গনে বাঘাইছড়ি থানার ওসি মোঃ জাকির হোসেনের উপস্থিতিতে এ হস্তান্তর প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হয়। নিহতদের আত্মীয়স্বজনরা প্রথমে সেনবাহিনীর ভয়ে কাছে আসতে না চাইলেও পরে খোজ-খবর নিয়ে হাসপাতাল এলাকায় আসতে থাকে। তারপর একে একে আত্মীয় স্বজনরা মর্গে থাকা লাশগুলো সনাক্ত করার পর বিকেল সাড়ে ৩টায় পরিবাবের কাছে বুঝিয়ে দেওয়া হয়। এর আগে শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৮টায় খাগড়াছড়ি আধুনিক সদর হাসপাতালে লাশগুলো আনা হলেও সংবাদকর্মী ও নিহতের আত্মীয় স্বজনের কাউকে কাছে যেতে বা চেহারা চিহ্নিত করতে দেওয়া হয়নি।

নিহত হওয়া গুইমারার বাইল্যাছড়ির মাষ্টার পাড়ার খোকন ত্রিপুরা ওরফে কান্তি মারমার (১৮) লাশটি বুঝিয়ে নেয় তার বড় ভাই জীতেন্দ্র ত্রিপুরা। মহালছড়ি সিঙ্গিনালার চন্দ্রমনি ত্রিপুরা ছেলে তাতুমনি ত্রিপুরার(৩০) লাশটি তার স্ত্রী ফুলেন্টি ত্রিপুরা বুঝিয়ে নেয়। নানিয়াচর বড় পাড়া দীপায়ন চাকমার ছেলে রুবেল চাকমার(১৬) লাশ তার পিতা উপস্থিত হয়ে বুঝিয়ে নেয়। বাঘাইছড়ি দিপুপাড়ার প্রহর চন্দ্র চাকমা ছেলে বাবুল চাকমার (২২) লাশটি বুজিয়ে নেয় তার স্ত্রী শিপা চাকমা। বাঘাইহাট মারিশ্যা বালুখালীর শান্তি কুমার চাকমার ছেলে রুপায়ন চাকমা ওরফে কিরণ চাকমার(৩২) লাশটি বুঝিয়ে নেন তার পিতা।

নিহত তাতুমনি ত্রিপুরার স্ত্রী ঝর্না ত্রিপুরা জানান, মহালছড়ি থানার সামনে স’মিলের শ্রমিকের কাজ করতো তার স্বামী । ঐ এলাকায় বেড়াতে গেলে এ ঘটনার শিকার হয় । অন্যায়ভাবে ধরে সেনা সদস্যরা তার স্বামীকে হত্যা করেছে অভিযোগ করে তিনি ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে এর বিচার দাবি করেন ।

নিহত বাবুল চাকমার স্ত্রী শিপা চাকমা জানান, তার স্বামী কোন সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের সাথে জড়িত ছিলেন না। আর্মিরা তার স্বামীকে অন্যায়ভাবে গুলি করে হত্যা করেছে বলে তিনি অভিযোগ করেন। তিনি বলেন, ধান রোপনে সহযোগিতা করতে ১০/১২ দিন আগে চট্টগ্রাম ইপিজেড থেকে বড়াদামে শ্বশুর বাড়িতে গিয়েছিলেন তার স্বামী। জন্ডিস রোগে আক্রান্ত হওয়ার কারণে পাহাড়ি ঔষধ দিয়ে চিকিৎসারত ছিলেন। ৭ মাস আগে চট্টগ্রামে গার্মেন্টসে চাকুরী করার সময় তাদের বিবাহ হয় বলে তিনি জানান।

খাগড়াছড়ি সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) মোঃ সামসুদ্দিন ভূইঞা জানান, বাঘাইছড়ি বড়াদামে নিহত ৫ জনের লাশ খাগড়াছড়ি আধুনিক সদর হাসপাতালে মর্গে আনার পর অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করে নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে । রবিবার দুপুরে রাশগুলোর ময়না তদন্ত সম্পন্ন করা হয়েছে।

খাগড়াছড়ি আধুনিক সদর হাসপাতালে ময়না তদন্তে মেডিক্যাল বোর্ডের টিমে ছিলেন আবাসিক চিকিৎসক ডাঃ সঞ্জীব ত্রিপুরা, ডাঃ মীর মোশারফ, ডাঃ সুমেন চাকমা।

বাঘাইছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) মোঃ জাকির হোসেন ফকির জানান, নিহত ৫ ব্যক্তিকে খাগড়াছড়ি আধুনিক সদর হাসপাতালে ময়না তদন্ত সম্পন্ন করা হয়েছে। গত শনিবার পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশগুলো বুঝে নেয়। এ ঘটনায় বাঘাইছড়ি থানায় হত্যা ও অস্ত্র আইনে (মামলা নং-০২, ০৩, তারিখঃ ১৫/০৮/২০১৫খ্রিঃ।) দুটি মামলা দায়ের করা হয়েছে বলে তিনি জানান।
——————-

সিএইচটিনিউজ.কম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.