বান্দরবানে উগ্য মারমা নামে এক পল্লি চিকিৎসককে অপহরণের পর হত্যা

0
149

বান্দরবান ।। বান্দরবান জেলা শহরতলির ক্যমলংপাড়া থেকে গতকাল রোববার (১৮ জুলাই) সন্ধ্যায় সশস্ত্র দুর্বৃত্তদের হাতে অপহৃত পল্লি চিকিৎসক উগ্য মারমার (৪৩) লাশ আজ সোমবার সকালে উদ্ধার করা হয়েছে। পাড়ার ওষুধের দোকান থেকে তাঁকে ডেকে নিয়ে মাহিন্দ্র গাড়িতে তুলে অস্ত্রধারীরা নিয়ে যায় বলে পাড়াবাসীর ভাষ্য। তাঁকে কে বা কারা অপহরণ ও হত্যা করেছে, সে ব্যাপারে খোঁজ চলছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

উগ্য মারমা কুহালং ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সদস্য।

পুলিশ ও স্থানীয় লোকজন জানিয়েছেন, জেলা শহর থেকে পাঁচ কিলোমিটার দূরে কুহালং ইউনিয়নের ক্যমলংপাড়া গতকাল সন্ধ্যায় ২০ থেকে ২২ জনের অস্ত্রধারী একটি দল ঘেরাও করে। সশস্ত্র ব্যক্তিরা পল্লি চিকিৎসক উগ্য মারমাকে খুঁজতে থাকেন। উগ্য মারমাকে দোকানের সামনে পেয়ে কিছু দূর হাঁটিয়ে সড়ক থেকে একটি মাহিন্দ্র গাড়িতে তুলে নিয়ে যান। আজ সকাল নয়টার দিকে বাকিছড়া ব্রিকফিল্ড এলাকা থেকে তাঁর লাশ পাওয়া যায়। বান্দরবান-চন্দ্রঘোনা-রাঙামাটি সড়কে জেলা শহরের কাছাকাছি হয়ে ক্যমলংপাড়া থেকে বাকিছড়া ব্রিকফিল্ড এলাকা আনুমানিক তিন কিলোমিটার দূরে। জমিজমা নিয়ে উগ্য মারমাদের পারিবারিক দ্বন্দ্ব রয়েছে। তবে জমিজমার দ্বন্দ্বে অপহরণের ঘটনা ঘটেছে কি না, পাড়াবাসী তা জানাতে পারেননি।

কুহালং ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) সদস্য ও ক্যমলংপাড়াবাসী মং উ চিং মারমা জানিয়েছেন, পাড়াবাসী সশস্ত্র ব্যক্তিদের চিনতে পারেননি।

বান্দরবান সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শহিদুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, অপহৃত উগ্য মারমার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বান্দরবান সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তাঁকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। হত্যাকারীদের গ্রেপ্তারের জন্য সেনাবাহিনী ও পুলিশ যৌথ অভিযান চালাচ্ছে।

সূত্র: প্রথম আলো


সিএইচটি নিউজে প্রকাশিত প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ,ভিডিও, কনটেন্ট ব্যবহার করতে হলে কপিরাইট আইন অনুসরণ করে ব্যবহার করুন।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.