বান্দরবানে হোটেল-পর্যটন রিসোর্ট নির্মাণ বন্ধের আহ্বান জাতিসংঘ বিশেষজ্ঞদের

0
176

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ।। পার্বত্য চট্টগ্রামের বান্দরবানে ম্রো অধ্যুষিত এলাকায় হোটেলসহ বৃহদাকারের পর্যটন রিসোর্ট নির্মাণ বন্ধ করতে বাংলাদেশ সরকারকে আহ্বান জানিয়েছেন জাতিসংঘের মানবাধিকার বিশেষজ্ঞরা। তারা বলেছেন এই রিসোর্ট নির্মাণের ফলে ওই এলাকার ম্রো জাতিগোষ্ঠীকে তাদের ঐতিহ্যগত ভূমি থেকে উচ্ছেদ এবং পরিবেশের মারাত্মক ক্ষতির হুমকি সৃষ্টি করছে।

মঙ্গলবার (০৯ ফেব্রুয়ারি ২০২১) জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক হাইকমিশনারের কার্যালয়ের (ইউএন হিউম্যান রাইটস: অফিস অব দ্য হাইকমিশনার) ওয়েবসাইটে এক বিবৃতিতে তারা এ আহ্বান জানান।

এতে বলা হয়, বাংলাদেশ সেনাবাহিনী ও সিকদার গ্রুপের বহুবিধ ব্যবসায়িক কোম্পানি আরএন্ডআর হোল্ডিংস লিমিটেড যৌথভাবে বান্দরবান জেলার ম্রোদের ভূমিতে ২০২০ সালের সেপ্টেম্বর মাসে উক্ত পর্যটন রিসোর্টের নির্মাণ কাজ শুরু করে।

বিশেষজ্ঞগণ বলেন, ম্রোরা তাদের সংস্কৃতি ও পরিচয়ের জন্য নির্ভর করেন এমন ঐতিহ্যগত ভূমিতে নিয়মবহির্ভূত ভূমি ইজারাদান প্রক্রিয়া এবং চারণভূমি হিসেবে ব্যবহার ও জলের জন্য সেখানে প্রবেশে সেনাবাহিনী কর্তৃক অস্বীকৃতি নিয়ে তারা বিচলিত।

পাঁচতারকা হোটেল নির্মাণ প্রকল্প বাতিলের দাবিতে চিম্বুক থেকে বান্দরবান শহরে ম্রোদের লংমার্চ

বিবৃতিতে বিশেষজ্ঞরা উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেছেন, জানুয়ারি থেকে আদিবাসী মানবাধিকার কর্মীদের বিরুদ্ধে হুমকি ও ভয় দেখানোর প্রবণতা বাড়ছে। এসব মানবাধিকার কর্মীরা শান্তিপূর্ণভাবে তাদের জনগোষ্ঠীর ভূমির অধিকার রক্ষার জন্য কাজ করছেন।

শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভে অনুমতি, প্রতিবাদকারীদের হুমকি দেওয়া থেকে বিরত থাকা এবং শান্তিপূর্ণ সমাবেশগুলোর বিরুদ্ধে শক্তিপ্রয়োগ থেকে বিরত থাকার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানান বিশেষজ্ঞরা।

মানবাধিকার বিশেষজ্ঞরা বলেন, পাঁচতারকা পর্যটন প্রকল্পের মধ্যে অন্তর্ভুক্ত রয়েছে একটি ম্যারিয়ট হোটেল এবং যার জন্য বিল্ডিং, সড়ক, নালা ও পয়নিষ্কাশন ব্যবস্থার প্রয়োজন হবে। এসব নির্মাণের ফলে এলাকার জীববৈচিত্র্যকে দূষিত ও ক্ষতি করবে। এই নির্মাণ কাজের কারণে ১০ হাজার মানুষ উচ্ছেদের ঝুঁকিতে পড়বে।

তারা বলেন, এমন কর্মকাণ্ড বাস্তবায়নের আগে ক্ষতিগ্রস্ত স্থানীয় জাতিগোষ্ঠীর মানুষদের কাছে থেকে সম্মতি নিতে হবে। এই অঞ্চলে একটি পরিবেশগত ও সামাজিক প্রভাবের নিরীক্ষণ করাও জরুরি।

যারা পরিবেশ ও আদিবাসীদের অধিকার রক্ষা করেন এবং প্রত্যাঘাত থেকে তাদেরকে সুরক্ষা দেন তাদের জন্য একটি নিরাপদ পরিবেশ নিশ্চিত করতে বাংলাদেশ সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন জাতিসংঘের বিশেষজ্ঞরা।

বিশেষজ্ঞদের মধ্যে রয়েছেন- জাতিসংঘের আদিবাসী জাতিগোষ্ঠীর অধিকার বিষয়ক স্পেশাল র‌্যাপোটিউর ফ্রান্সিসকো কালি জে; মানবাধিকার এবং ট্রান্সন্যাশনাল কর্পোরেশন ও অন্যান্য ব্যবসায়িক উদ্যোগ বিষয়ক ওয়ার্কিং গ্রুপের চেয়ার দাঁতে পেস, ভাইস-চেয়ার সূর্য দেব, গিথু মুইগাই, এলজবিয়েতা কার্সকা, আনিতা রামাসাস্ত্রী; মানবাধিকার ও পরিবেশ বিষয়ক স্পেশাল র‌্যাপোটিউর ডেভিড আর. বয়ড ও মানবাধিকার সুরক্ষাকর্মীদের পরিস্থিতি বিষয়ক স্পেশাল র‌্যাপোটিউর মেরী লওলোর।

 


সিএইচটি নিউজে প্রকাশিত প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ,ভিডিও, কনটেন্ট ব্যবহার করতে হলে কপিরাইট আইন অনুসরণ করে ব্যবহার করুন।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.