বাবুছড়ায় বিজিবি’র মামলায় আটক অপ্সরী চাকমা জামিনে মুক্ত

0
0

সিএইচটিনিউজ.কম
Opsori Chakmaখাগড়াছড়ি: খাগড়াছড়ির দীঘিনালার বাবুছড়ায় গত ১০ জুন বিজিবি কর্তৃক পাহাড়িদের উপর হামলার ঘটনায় বিজিবি’র দায়ের করা মামলায় আটক ১৬ বছরের কিশোরী অপ্সরী চাকমা আজ ৮ জুলাই মঙ্গলবার জামিনে মুক্তি পেয়েছেন।

গতকাল সোমবার এ্যাডভোকেট আশুতোষ চাকমা, এ্যাডভোকেট আব্দুল মালেক এবং এ্যাডভোকেট সমারী চাকমা অপ্সরী চাকমার জামিন প্রার্থনা করলে খাগড়াছড়ি জেলা জুডিশিয়াল মেজিস্ট্রেট সাইফুল ইসলাম তাঁর জামিন মঞ্জুর করেন।

উল্লেখ্য, গত ১০জুন বাবুছড়ার যত্নমোহন কার্বারী পাড়ায় গ্রামের নারীরা নিজস্ব জায়গায় কলাগাছের চারা লাগাতে গেলে বিজিবি  সদস্যরা বাধা দেয়। এ সময় পাহাড়ি গ্রামবাসীরা প্রতিবাদ জানালে বিজিবি-পুলিশ ও সেটলার বাঙালি শ্রমিকরা তাদের উপর হামলা চালায়। এ হামলায় গুরুতর আহত হলে অপ্সরী চাকমা, তার মা গোপা চাকমা, মায়ারাণী চাকমা ও ফুলরাণী চাকমাকে খাগড়াছড়ি সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। উক্ত ঘটনার পর বিজিবি’র সুবেদার মেজর গোলাম রসুল ভূঁইয়া বাদী হয়ে ১১১ জনের নাম উল্লেখ করে ১৫০ জন পাহাড়ি গ্রামবাসীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করলে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত ১৩ জুন পুলিশ অপ্সরী চাকমাসহ ৪ নারীকে আটক করে এবং অসুস্থ অবস্থায় ১৭ জুন আদালতে হাজির করে। ওই দিন আদালত অপ্সরী চাকমার মা গোপা চাকমাকে জামিন দিলেও অপ্সরীসহ  তিন নারীর জামিন নামঞ্জুর করে জেল হাজতে পাঠিয়ে দেয়। এরপর আরো কয়েকবার জামিন আবেদন করা হলেও বার বার জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে দেয় আদালত।

নাবালিকা হওয়ার কারণে অপ্সরী চাকমাকে গত ২২জুন ২০১৪ খাগড়াছড়ি জেলা কারাগার থেকে চট্টগ্রামের হাটাজারীর ফরহাদাবাদে অবস্থিত সেইফ হোমে প্রেরণ করা হয়। সেখানে ১৭ দিন সহ মোট ২৫ দিন আটক থাকার পর আজ মঙ্গলবার বিকাল সাড়ে ৩টায় তিনি জামিনে মুক্ত হন।

বিজিবি’র দায়ের করা উক্ত মামলায় বর্তমানে ২ নারী সহ ৬ জন খাগড়াছড়ি কারাগারে বন্দী রয়েছেন। এরা সবাই পঞ্চাশোর্ধ বয়সী নারী-পুরুষ।
————

সিএইচটিনিউজ.কম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.