বিজিবির পলাশপুর জোন অধিনায়কের প্রত্যাহার দাবী করেছে ব্যবসায়ীরা

0
3
খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি
সিএইচটিনিউজ.কম
 
মাটিরাঙ্গা:খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গা উপজেলা বিজিবি পলাশপুর জোন কমান্ডার নুরুজামানকে প্রত্যাহারের দাবী করেছে মাটিরাঙ্গার বনজদ্রব্য আহরন ও সরবরাহকারী সমিতি। সমিতির সভাপতি ও সাধারন সম্পাদক প্রেরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এই দাবী করেন তারা।তারা বলেন, বৈধ উপায়ে ব্যাবসা করতে গিয়ে আমরা বিভিন্ন সময়ে মাটিরাঙ্গা উপজেলাধীন ২৯ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন বিজিবি (পলাশপুর) জোন কমান্ডার কর্তৃক অহেতুক হয়রানীর হইতেছি। আমরা ব্যবসায়ীক ভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হইতেছি। বিজিবি স্থানীয় ব্যবসায়ীদেরকে প্রতি দিন বাঁশ সরবরাহে অবৈধ ভাবে বিধি নিষেধ আরোপ করে সপ্তাহে মাত্র ০৩ (তিন) দিন বাঁশ সরবরাহের জন্য সময় বেঁধে দেয়। ফলে ব্যাবসায়ীরা বিভিন্ন ভাবে হয়রানীর শিকার হচ্ছে।

সাম্প্রতিক সরকারী যাবতীয় রাজস্ব পরিশোধ পূর্বক টি.পি নং ০৭৮, ০৭৯, ০৮০, মুলে ০৩ (তিন) ট্রাক বাঁশ লোড করে সমতল জেলায় সরবরাহের উদ্দেশ্যে ৩০/০৬/২০১৩ ইং তারিখ বিকাল অনুমান ৪.০০ ঘটিকার সময় ২৯ বিজিবি (পলাশপুর) সদরের সামনে আসলে জোন কমান্ডারের নির্দেশে ট্রাকগুলি আটক করে রাখে।

ব্যাবসায়ীরা বাঁশ সরবরাহে টি.পি প্রদর্শন করিলে বিজিবি উক্ত কাগজ পত্র যথাযথ নয় বলে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রনালয়ের নির্দেশ লাগবে বলে উল্লেখ করে, এতে করে বাঁশ সরবরাহের টিপির মেয়াদ শেষ হওয়ায় বাঁশ গুলো সমতল জেলায় সরবরাহ করতে না পারার কারনে ব্যাবসায়ীদের আনুমানিক ৬,০০,০০০/= (ছয় লক্ষ) টাকা ক্ষতি সাধিত হয়েছে।২৯ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন বিজিবি (পলাশপুর) জোন নির্ধারিত এলাকায় সরকারী নির্দেশনা বাস্তবায়ন না করে তারা ব্যাবসায়ী থেকে শুরু করে সাধারণ জনগন কে অহেতুক হয়রানী করে আসছে।

পলাশপুর জোন হইতে ২৯ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন এর জোন কমান্ডারকে প্রত্যাহার পূর্বক ব্যাবসায়ী সহ সাধারন মানুষের হয়রানী বন্ধ করার দাবী জানিয়ে তারা বলেন না হলে আমরা জনগণকে সঙ্গে নিয়ে প্রতিরোধ করবো। খবর বার্তা লাইভ

 

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.