মহালছড়িতে পাহাড়ি ছাত্রদের উপর ছাত্রলীগ ও সেটলারদের হামলা, আহত ৫

0
0
খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি, সিএইচটিনিউজ.কম
 
মহালছড়ি : খাগড়াছড়ি জেলার মহালছড়ি কলেজে ছাত্রলীগ ও সেটলারদের হামলায় কমপক্ষে ৫ জন পাহাড়ি ছাত্র আহত হয়েছে। আজ ৭ সেপ্টেম্বর শনিবার সকালে এ ঘটনা ঘটে।জানা যায়, আজ বৃহস্পতিবার সকাল ১০টার দিকে কলেজে একটা তুচ্ছ বিষয় নিয়ে এক বাঙালি ছাত্রের সাথে এক পাহাড়ি ছাত্রের মধ্যে কথা কাটাকাটির ঘটনা ঘটে। এসময় কলেজের বাংলা বিভাগের শিক্ষক তুষার দাস ক্লাসে ঢুকে বাঙালি ছাত্রটির পক্ষ নেয়। এ সুযোগে বাঙালি ছাত্রটি পাহাড়ি ছাত্রটির কলার ধরে বের করে দেয়ার চেষ্টা করে।এ সময় অন্যান্য পাহাড়ি ছাত্ররা এর প্রতিবাদ করলে উভয়ের মধ্যে কিছুটা ধস্তাধস্তি হয়। এরপর পাহাড়ি ছাত্ররা সবাই কলেজ থেকে বেরিয়ে মাঠে অবস্থান নেয়। এ সময় ছাত্রলীগের মহালছড়ি থানা শাখার সাধারণ সম্পাদক মো: জিয়ার নেতৃত্বে ছাত্রলীগের কর্মীরা এসে পাহাড়ি ছাত্রদেরকে নানা হুমকি-ধামকি দিলে এতে পাহাড়ি ছাত্ররা প্রতিবাদ করে। এক পর্যায়ে ছাত্র লীগের কর্মীরা পাহাড়ি ছাত্রদের লক্ষ্য করে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করলে উভয়ের মধ্যে সংঘর্ষ বেধে যায়। পরে ২৪ মাইল চৌমুহনী এলাকায় এ সংঘর্ষ ছড়িয়ে পড়ে। এ সময় মহালছড়ি বাজার থেকে ছাত্রলীগ, আওয়ামী লীগ-বিএনপি সহ কতিপয় দোকানদার মোটর সাইকেল, সিএনজি যোগে পাহাড়িদের উপর হামলা করতে এগিয়ে আসে। জয়সেন পাড়া থেকে থেকেও সেটলাররা জীপগাড়ি যোগে কলেজ মাঠে এসে উপস্থিত হয়। পরে পুলিশ ও সেনাবাহিনী ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসে।

এ হামলায় মহালছড়ি কলেজের দ্বাদশ শ্রেণীর ছাত্র বিনীত খীসা(২০) পিতা বসন্ত খীসা, মিল্টন চাকমা(২০) পিতা জয়ন্ত চাকমা, অনন্য চাকমা(২০) পিতা কালো বরণ চাকমা ও একাদশ শ্রেণীর ছাত্রী ম্রাকেশা মারমা ও অমরেশ খীসার ছেলে সুমেধ খীসা। সেটলারা সুমেধ খীসার মাথা ফেটে দেয়।

এ ঘটনার ঘন্টাখানেক পর ছাত্রলীগ নেতা জিয়ার নেতৃত্বে সেটলাররা আবারো দা, কিরিচ, লাঠি-সোটা নিয়ে বাবু পাড়া ও স্লুইচ গেট এলাকায় পাহাড়িদের উপর হামলা চালানোর চেষ্টা চালায়। এ সময় পাহাড়িদের মধ্যে আতঙ্ক দেখা দেয়।

সেটলাররা মহালছড়ি বাজারে অবস্থিত জনসংহতি সমিতি(এমএন লারমা)-এর অফিসেও হামলা ও ভাংচুর চালিয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে।

সম্প্রতি তাইন্দংয়ে পাহাড়ি গ্রামে সেটলার হামলার রেশ কাটতে না কাটতে মহালছড়ি কলেজের সংঘটিত এ ঘটনায় রাজনৈতিক অভিজ্ঞ মহল আশঙ্কা প্রকাশ করছেন। তারা অবিলম্বে এ ধরনের হামলা বন্ধে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের জন্যসরকার ও সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

 


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.