মহালছড়ির মাইসছড়িতে পাহাড়িদের জায়গা বেদখলের চেষ্টা করছে সেটলাররা

0
0

সিএইচটি নিউজ ডটকম
Mohalchariমহালছড়ি : খাগড়াছড়ির মহালছড়ি উপজেলার মাইসছড়ি ইউনিয়নের ২৫৫ নং মৌজায় সেটলার বাঙালিরা পাহাড়িদের জায়গা-জমি বেদখলের চেষ্টা করছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

জানা যায়, গত ৬ সেপ্টেম্বর মাইসছড়ি ইউনিয়নের পশ্চিম মানিকছড়ি গ্রামের মতিলাল চাকমা (৫৫), পিতা মৃত নগেন্দ্র চাকমার আনুমানিক ৩ একর পরিমাণ ভোগদখলীয় জায়গা বেদখলের উদ্দেশ্য তাঁর সৃজিত সেগুন বাগানে জয়সেন পাড়ার মো: আনোয়ার(২৬), পিতা-মুজিবুল ইসলাম ঘর তৈরি করে। পরে এ ঘটনা প্রশাসনকে জানানো হলে মহালছড়ি থানার ওসি, ইউএনও ও জোনের টুআইসি জায়গা তদন্তে যান। এ সময় ইউএনও আপাতত সময়ের জন্য উক্ত জায়গায় কোন কিছু না করতে পাহাড়ি-বাঙালি উভয় পক্ষকে নির্দেশ দিয়ে যান। যদিও সে সময় সেখানে পাহাড়িরা উপস্থিত থাকলেও বাঙালিরা উপস্থিত ছিলেন না।

একই দিন জয়সেন পাড়ার মো: আবু সায়ীদ নামে অপর এক সেটলার পশ্চিম জয়সেন পাড়ার বাসিন্দা চিকন ধন চাকমার জায়গায় ঘর নির্মাণ করে। সেখানে চিকন ধন চাকমার আনুমানিক ৩ একর পরিমাণ জায়গা ভোগদখলে রয়েছে।

এছাড়া গতকাল ৭ সেপ্টেম্বর জয়সেন পাড়ার মো: এরশাদ ও মো: ফুল মিয়া মাইসছড়ি ইউপি মেম্বার ও পশ্চিম কিয়াংঘাট গ্রামের বাসিন্দা ভগদত্ত চাকমা(৪৫), পিতা-বীর কুমার চাকমা-এর ২ একর পরিমাণ জায়গা বেদখলের উদ্দেশ্যে জঙ্গল কেটে সাফ করে। তারা সেখানে ঘর তৈরির জন্য মাটি কেটে জায়গা প্রস্তুত করেছে। বিষয়টি মহালছড়ি থানায় জানানো হয়েছে বলে ভগদত্ত চাকমা এ প্রতিবেদককে জানিয়েছেন। থানা থেকে আজ মঙ্গলবার তদন্তে যাওয়ার কথা রয়েছে।

মাইসছড়ি ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের সভাপতি মো: গিয়াস উদ্দিন-এর উস্কানিতে সেটলাররা এভাবে জায়গা বেদখলের চেষ্টা চালাচ্ছে বলে স্থানীয় পাহাড়িরা অভিযোগ করেছেন।

খবরটির ইংরেজী [English] ভার্সন পড়ুন এখানে

——————-

সিএইচটিনিউজ.কম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।

 


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.