মাটিরাংগা, রামগড়, মানিকছড়ি ও লক্ষ্মীছড়িতে সেনা অপারেশন অব্যাহত

0
2

সিএইচটি নিউজ ডটকম
মাটিরাংগা, রামগড়, মানিকছড়ি, লক্ষ্মীছড়ি প্রতিনিধি ॥ খাগড়াছড়ির মাটিরাংগা, রামগড়, মানিকছড়ি ও লক্ষ্মছড়ি উপজেলার বিভিন্ন জায়গায় গত রবিবার থেকে শুরু হওয়া সেনা অপারেশন আজ মঙ্গলবার (১ সেপ্টেম্বর) পর্যন্ত অব্যাহত রয়েছে। গুইমারা ব্রিগেডের অধিনস্থ মাটিরাংগা সদর জোন, ব্যাঙমারা সাবজোন, গুইমারা সদর জোন, সিন্দুকছড়ি জোন, মানিকছড়ি সাবজোন, বাটনাতলী সাবজোন, লক্ষীছড়ি সদর জোন, শুকনাছড়ি-বর্মাছড়ি সাবজোন, বান্যাছোলা সাবজোন ও খিরাম ক্যাম্পের সেনারা একযোগে এই অপারেশন চালাচ্ছে। বিভিন্ন জায়গায় সেনাবাহিনীর অবস্থানের কারণে এলাকার জনমনে আতঙ্ক বিরাজ করছে।

Army operationএ রিপোর্ট লেখার সময় পর্যন্ত জানা গেছে সিন্দুকছড়ি ইউনিয়নের গোঁয়েছড়ি বৌদ্ধ বিহারে সিন্দুকুছড়ি জোন থেকে ২০ জন, মানিকছড়ি সাবজোন থেকে লাফাইডং পাড়ার বিশাখা স্কুলে ২০ জন, বাটনাতলী ক্যাম্প থেকে গুজা প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ২০ জন, সিন্দুকছড়ি জোন ও মানিকছড়ি সাবজোন থেকে প্রায় ১০০ জন সেনা সদস্য নোয়াবাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে অবস্থান করছে।

মাটিরাংগা এলাকাবাসীর সূত্রে জানা গেছে, রেংখ্যং বেসরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে গুইমারা সদর জোন থেকে ৬০ জন ও মাটিরাংগা সদর জোন থেকে তানটুন পাড়া মন্দির ও নারায়ন পাড়া এলাকায় ৪০ জনের মতো সেনা সদস্য অবস্থান নিয়েছে।

এছাড়া সিন্দুকছড়ি জোন থেকে রামগড়ের হাফছড়ি ইউনিয়নের নাক্রাই পাড়ায় ২০-২৫ জন সেনা সদস্য অবস্থান করছে বলে জানা গেছে।

সেনারা এলাকার লোকজনের কাছ থেকে ইউপিডিএফ কর্মীদের জিজ্ঞাসা করে ভয়-ভীতি প্রদর্শন করছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ রির্পোট লেখার সময় সেনারা রামগড়ের হাচুক পাড়ায় ব্যাপকভাবে ঘরবাড়ি তল্লাশি চালাচ্ছে বলে খবর এসেছে।

অন্যদিকে লক্ষ্মীছড়িতে গতকাল সন্ধ্যা ৭টা ও মধ্যরাত ১২/১টার সময় বিভিন্ন এলাকায় অপারেশনে যাওয়া সেনা সদস্যরা নিজ নিজ ক্যাম্পে ফিরে যাওয়ার খবর পাওয়া গেছে। তবে তারা আবারো অপারেশন চালাতে পারে বলে এলাকাবাসী আশঙ্কা করছেন।

আগামী ২ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সেনাদের এ অপারেশন চলতে পারে বলে একটি সূত্র জানিয়েছে।

জনপ্রতিনিধি ও ইউএনওদের নিয়ে গুইমারা ব্রিগেডে মিটিং
গতকাল সোমবার গুইমারা ব্রিগেড কমান্ডার মাটিরাংগা, রামগড়, মানিকছড়ি ও লক্ষ্মীছড়ি উপজেলার জনপ্রতিনিধি, হেডম্যান এবং সকল ইউএনও-দের নিয়ে গুইমারা ব্রিগেডে মিটিং করেছেন বলে জানা গেছে। উক্ত মিটিঙে ব্রিগেড কমান্ডার এলাকায় ভূমি সমস্যা সমাধান ও ইউপিডিএফ নেতা-কর্মীদের আটক করতে জনপ্রতিনিধিদের সহযোগিতা চেয়েছেন। এ সময় তিনি প্রয়োজনে র‌্যাব মোতায়েনেরও হুমকি দেন বলে জানা গেছে। তবে মিটিং-এ উপস্থিত জনপ্রতিনিধিদের কাছ থেকে এ বিষয়ে জানতে চাইলে তারা সেনাবাহিনীর ভয়ে বিস্তারিত বলতে রাজী হননি।
———————–

সিএইচটিনিউজ.কম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.