মাটিরাঙ্গার তবলছড়িতে রাতের আঁধারে পাহাড়িদের বিরুদ্ধে সেটলারদের মিছিল, এলাকায় আতঙ্ক

ভয়ে ঘরবাড়ি ছেড়ে পালিয়ে গেছে পাহাড়িরা

0
426
পাহাড়িদের বিরুদ্ধে সেটলারদের মিছিল। নেতৃত্বে রয়েছেন সাবেক চেয়ারম্যান আবুল কাশেম

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি ।। খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গা উপজেলার তবলছড়িতে গতকাল সোমবার (৫ এপ্রিল ২০২১) রাতের আঁধারে পাহাড়িদের বিরুদ্ধে সেটলারদের মিছিল নিয়ে এলাকার জনমনে চরম আতঙ্ক বিরাজ করছে। ঘরবাড়ি ছেড়ে পালিয়ে গেছেন পাহাড়িরা। অনেকে পালিয়ে ভারতে চলে গেছেন বলেও খবর পাওয়া গেছে।

জানা যায়, গতকাল রাত আনুমানিক ৯টার দিকে কোন কারণ ছাড়াই স্থানীয় মসজিদ থেকে মাইকে ঘোষণা দিয়ে ‌‘নারায়ে তাকবির’ ধ্বনিতে পাহাড়ি বিদ্বেষি শ্লোগান দিয়ে মিছিল বের করে সেটলার বাঙালিরা। তারা মিছিল নিয়ে লাইফু পাড়া পর্যন্ত চলে আসে। অপরদিকে তালুকদার পাড়ার দিকেও তারা মিছিল বের করে। পরে তারা আমতলা কাঠের ব্রিজ এলাকায় মসজিদ প্রাঙ্গনে জড়ো হয় এবং সেখানে সমাবেশ করে। তখন রাত ১০টার অধিক বেজে যায়।

রাতের অন্ধকারে সেটলারদের পাহাড়ি বিরোধী মিছিলের কারণে পাহাড়িদের মধ্যে চরম আতঙ্ক দেখা দেয়। লাইফু পাড়াসহ এলাকার বিভিন্ন গ্রামের পাহাড়িরা ঘরবাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যেতে থাাকে। বর্তমানে লাইফু পাড়াসহ বেশ কিছু গ্রামের শত শত পাহাড়ি পালিয়ে অন্যত্র আশ্রয় নিয়েছেন। অনেকে সীমান্তের কাঁটাতারের বেড়া পার হয়ে ভারতে চলে গেছেন বলে জানা গেছে।

পরে স্থানীয় বিজিবি, পুলিশসহ প্রশাসনের লোকজন সেখানে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করেন।

স্থানীয়রা এই প্রতিবেদককে জানান, গতকাল বিকালে কয়েকজন সেটলার নারী-পুরুষ লাইফু পাড়ার পাশ্ববর্তী মাঠে গরু চরাতে আসে। গরু চরানোর পর সন্ধ্যার আগে তারা বাড়িতে ফিরে যায়। বাড়িতে ফেরার পর তাদের মধ্যে কে বা কারা প্রচার করে যে, দেওয়ান পাড়া এলাকায় তারা ‘শান্তিবাহিনী’ দেখেছে বলে। এ কথাটি তৎক্ষণাত সেটলারদের মধ্যে ছড়িয়ে পড়লে তারা উত্তেজনা ছড়াতে শুরু করে। এরপর তারা মসজিদের মাইকে মিথ্যাভাবে প্রচার করে যে, ‘পাহাড়ি ও শান্তিবাহিনীরা’ মিলে বাঙালিদের উপর হামলা করতে আসছে, যার যা আছে তা নিয়ে রাস্তায় নেমে আসুন’। এর পরই সেটলাররা সংঘবদ্ধ হয়ে রাস্তায় নেমে পড়ে ‘নারায়ে তাকবির, আল্লাহ হু আকবর’ ধ্বনিতে পাহাড়িদের বিরুদ্ধে মিছিল বের করে। আর এতে নেতৃত্ব দেন তবলছড়ি ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আবুল কাশেম, ইঞ্জিনিয়ার লোকমান হোসেনসহ আরো কয়েকজন। এ সময় তারা পাহাড়ি বিদ্বেষী নানা শ্লোগান দেয়।

বক্তব্য দিচ্ছেন আবুল কাশেম

মিছিলের পর আমতলা কাঠের ব্রিজ এলাকার মসজিদ প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তব্য দেন সাবেক চেয়ারম্যান আবুল কাশেম।

ফেসবুকে প্রচারিত একটি ভিডিওতে দেখা যায়, সমাবেশে তিনি পাহাড়ি বিদ্বেষী নানা কথাবার্তা বলছেন এবং সেটলারদের প্রস্তুত থাকার নির্দেশ দিচ্ছেন। এমনকি এমপি কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরার বিরুদ্ধেও তিনি বিষোদগার করতে ছাড়েননি। এছাড়া ‘কোন কিছু’ হলে মসজিদের মাইকে ঘোষণা দেয়ার পরামর্শও দেন তিনি।

এ সময় তিনি জোর দিয়ে বলেন,.. ‘আমাদের একটাই রাজনীতি, সেটা হলো বাঙালি এবং পাহাড়ি’। এ সময় তিনি নিজেই ‘নারায়ে তাকবির, আল্লাহ হু আকবর’ শ্লোগান দিয়ে সেটলারদের উজ্জীবিত করার চেষ্টা করেন।

সমাবেশ চলাকালে তাকে প্রশাসনের কোন উর্ধ্বতন কর্মকর্তার সাথে কথা বলতেও দেখা যায় ভিডিওটিতে।

শেষে তিনি সেটলারদের উদ্দেশ্যে বলেন,…‘যত কিছু করা করা দরকার আমরা যারা ছোটখাটো জনপ্রতিনিধি আছি,… যেকোন দিক নির্দেশনা আমরা দেবো’।

 


সিএইচটি নিউজে প্রকাশিত প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ,ভিডিও, কনটেন্ট ব্যবহার করতে হলে কপিরাইট আইন অনুসরণ করে ব্যবহার করুন।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.