মাটিরাঙ্গায় মালারুং ত্রিপুরার ধর্ষণকারীদের গ্রেফতার ও শাস্তির দাবিতে খাগড়াছড়িতে ছাত্র-ছাত্রীদের মানববন্ধন

0
1

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি, সিএইচটিনিউজ.কম

Malarung, human chain programe2 (1)খাগড়াছড়ি জেলার মাটিরাঙ্গা উপজেলার তাইন্দং ইউনিয়নের পোড়াবাড়ি গ্রামে নিজ বাড়িতে বাঙালি কর্তৃক মালারুং ত্রিপুরাকে ধর্ষণের প্রতিবাদে গতকাল ৩০ জানুয়ারী ২০১১ সকাল ১১টায় খাগড়াছড়িতে মানববন্ধন করেছে কয়েকটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্র-ছাত্রীরা৷ খাগড়াছড়ি সরকারী কলেজ, খাগড়াছড়ি সরকারী মহিলা কলেজ ও টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজের দুই শতাধিক ছাত্র-ছাত্রী এতে অংশ গ্রহণ করে৷ শহরের শাপলা চত্বরে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করার কথা থাকলেও প্রশাসনের বাধার কারণে খাগড়াছড়ি সরকারী কলেজের সামনে প্রধান সড়কে এ মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়৷ এতে বক্তব্য রাখেন আপ্রুসি মারমা, দীপা ত্রিপুরা, রাজীব ত্রিপুরা, অমরসিং চাকমা ও চাইলাপ্রু মারমা৷

বক্তরা বলেন, দেশে অপরাধ সংঘটিত হয়, মা-বোনেরা ধর্ষণের শিকার হন আর প্রতিবাদ করতে গেলে প্রশাসনের অনুমতি নিতে হয় এ কেমন আইন৷ আমরা ছাত্র-ছাত্রীরা চেতনাবোধ থেকেই আজ এই মানব বন্ধন পালন করছি৷ মিছিল সমাবেশ করা একটা গণতান্ত্রিক অধিকার৷

বক্তরা আরো বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামে পাহাড়িদের ভূমি বেদখল, নারীদের ধর্ষণ প্রতিনিয়ত ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে৷ প্রশাসনের অবহেলার কারণে এই ধরনের ঘটনা বার বার সংঘটিত হচ্ছে৷ ভবিষ্যতে এ ধরনের কোন ঘটবে না তার কোন নিশ্চয়তা নেই৷ বক্তারা এ ধরনের ঘটনা বন্ধে প্রশাসনকে আরো কার্যকরী পদপে গ্রহণের দাবি জানান৷

বক্তারা অভিযোগ করে বলেন, গত ২৮ জানুয়ারী ধর্ষিতার স্বামী মাটিরাঙ্গা থানায় মামলা দায়ের করলেও পুলিশ এখনো পর্যন্ত অপরাধীদের গ্রেফতার করেনি৷ ফলে মালারুং ত্রিপুরা সহ তার স্বামী বর্তমানে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন৷ অপরদিকে অপরাধীদের গ্রেফতারের দাবিতে শান্তিপূর্ণভাবে মানববন্ধন কর্মসূচিতেও প্রশাসন বাধা সৃষ্টি করছে৷ বক্তারা অবিলম্বে মালারুং ত্রিপুরার ধর্ষণকারীদের গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিসহ যথোপযুক্ত তিপূরণ প্রদান এবং মালারুং ত্রিপুরার সুকিকিত্‍সার দাবি জানান৷

উল্লেখ্য যে, গত ২৬ জানুয়ারী ২০১১ রাত আনুমানিক ২টার দিকে খাগড়াছড়ি জেলার মাটিরাংগা উপজেলায় তাইন্দং ইউনিয়নের পোড়াবাড়ী গ্রামে স্থানীয় বাঙালি সন্ত্রাসী সুরুষ মিয়া, বাবুল মিয়া সহ ৮-৯ জনের এ দল সন্ত্রাসী মালারুং ত্রিপুরা(৩২) স্বামী নিত্য রঞ্জন ত্রিপুরার বাড়িতে হানা দেয়৷ দুর্বৃত্তরা ঘরে প্রবেশ করে নিত্য রঞ্জন ত্রিপুরাকে মাটিতে ফেলে মারধর করে৷ পরে তার স্ত্রী ও সন্তানদের উপর চড়াও হয়ে তার স্ত্রীকে ঘরের বাইরে টেনে নিয়ে গিয়ে গণধর্ষণ করে৷ এছাড়াও দুর্বৃত্তরা পাঁচ মন শুকনো হলুদ, ১৬ হাজার টাকা, স্বর্ণালঙ্কার, কাপড়-চোপড় ও জাতীয় পরিচয় পত্র ভর্তি একটি ট্রাঙ্ক লুট করে নিয়ে যায়৷

পানছড়িতে পিসিপির বিক্ষোভ
খাগড়াছড়ি জেলার মাটিরাঙ্গা উপজেলার তাইন্দং ইউনিয়নের পোড়াবাড়ি গ্রামে গত ২৬ জানুয়ারী২০১১বাঙালি কর্তৃক মালারুং ত্রিপুরাকে ধর্ষণ ও বাড়িতে লুটপাটের প্রতিবাদে পানছড়িতে বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে৷পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের পানছড়ি থানা শাখার উদ্যোগে আজ ৩১ জানুয়ারী ২০১১বেলা ২টায় পানছড়ি পাইলট স্কুল থেকে মিছিলটি শুরু হয়ে পানছড়ি উপজেলার গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে পানছড়ি বাজারে এসে এক সমাবেশে মিলিত হয়৷এতে বক্তব্য রাখেন পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ পানছড়ি থানার সাংগঠনিক সম্পাদক বির্বতন চাকমা, গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের পানছড়ি থানার সভাপতি নিকোলাস চাকমা, জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক অর্পনচাকমা, হিল উইমেন্স ফেডারেশন এর পানছড়ি থানার অর্থ সম্পাদক চিক্কো  চাকমা৷ সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন পানছড়ি থানা শাখার সভাপতি প্রণয় চাকমা এবং অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন সাধারণ সম্পাদক হরিকমল ত্রিপুরা৷

বক্তারা বলেন, সারা দেশে আজ নারী নির্যাতন যেহারে বেড়েছে তার মাধ্যমে এটাই প্রমাণিত হয় যে, দেশ আজ চরম অরাজকতার মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে৷পার্বত্য চট্টগ্রামে নারী নির্যাতন, ধর্ষণ নিত্য নৈমিত্তিক ঘটনা হয়ে দাঁড়িয়েছে৷প্রশাসন এসব অপরাধীদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ না করায় এধরনের নির্যাতনের ঘটনা বার বার ঘটেই চলেছে৷

বক্তারা অবিলম্বে মালারুং ত্রিপুরার গণধর্ষণকারী সুরুজমিয়া, বাবুল মিয়াসহ অন্যান্য সহযোগীদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিসহ যথোপযুক্ত ক্ষতিপূরণের দাবি জানান৷

 

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.