মাটিরাঙ্গায় পাহাড়ি ফুটবল টিমের ওপর হামলা, ৭-৮ জন আহত

0
584

মাটিরাঙ্গা ।। খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গা উপজেলার বড়নাল ইউনিয়নে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা ও ইউপি চেয়ারম্যান আলী আকবরের উদ্যোগে আয়োজিত ফুটবল টুর্ণামেন্টে অংশগ্রহণকারী পাহাড়ি ফুটবল টিমের সদস্যদের ওপর হামলার ঘটনা ঘটেছে। এতে অন্তত ৭-৮ জন আহত হয়েছেন। এর মধ্যে ৩ জনের আঘাত গুরুতর বলে খবর পাওয়া গেছে।

আজ শনিবার (৩ অক্টোবর) বিকালে এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, আওয়ামী লীগ নেতা ও ৩নং বড়নাল ইউপি চেয়ারম্যান আলি আকবর ও কয়েকজন আওয়ামী লীগ নেতার উদ্যোগে বড়নাল ইউনিয়নের ডাকবাংলা মুক্তিযুদ্ধ উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠে একটি ফুটবল টুনার্মেন্ট কাপ ছাড়া হয়। সেখানে বিভিন্ন এলাকা থেকে বাঙালিদের টিমের পাশাপাশি পাহাড়ি ছাত্র-যুবকরা টিম গঠন করে ফুটবল টুর্ণামেন্টে অংশ গ্রহণ করেন।

আজ বিকেল ৫:৩০ টার সময় টুর্ণামেন্টের উদ্বোধনী খেলা শুরু হয়। খেলায় প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন পাহাড়ি ছাত্র-যুবকদের টিম থৈলাপাড়া একাদশ বনাম ডাকবাংলা একাদশ (বাঙালি)। খেলায় পাহাড়ি ছাত্র-যুবকদের টিম থৈলাপাড়া একাদশ বিজয়ী হয়। কিন্তু আওয়ামী লীগ নেতারা তা মেনে নিতে না পেরে ক্ষমতা প্রয়োগ করে বিজয়ী থৈলাপাড়া একাদশ টিমকে নানা হেনস্থা ও অবমাননা করতে থাকলে খেলোয়াড়রা তার প্রতিবাদ করেন।

আর এতে ক্ষিপ্ত হয়ে চেয়ারম্যান আলি আকবরের নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগের নেতাকর্মী ও সেটলাররা বিজয়ী হওয়া থৈলাপাড়া একাদশ টিমের সদস্যদর ওপর হামলা চালায় ও লাঠিসোটা নিয়ে নির্বিচারে মারধর করে। চেয়ারম্যান আলি আকবর নিজে হাতে লাঠি নিয়ে মারধর করেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এ হামলায় থৈলাপাড়া একাদশ টিমের অন্তত ৭-৮ জন আহত হন। এর মধ্যে মধ্যে গুরুতর আহত ৩ জন হলেন- ১. উপেন মারমা, পিতা-বাবু মাস্টার। তিনি বর্তমানে মাটিরাঙ্গা উপজেলা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন, ২. রিম্রাচাই মারমা, পিতা-নিথৈই মারমা ও ৩.মংশিউ মারমা।

রাত ১০টায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত বাকী আহতদের নাম ও ঘটনার বিস্তারিত আর জানা যায়নি।


Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.