মাতৃভাষায় প্রাথমিক শিক্ষা চালুর দাবিতে খাগড়াছড়িতে পিসিপি’র বিক্ষোভ

0
0

সিএইচটি নিউজ ডটকম
1-1
খাগড়াছড়ি: সকল জাতিসত্তার মাতৃভাষায় প্রাথমিক শিক্ষা চালুসহ শিক্ষা সংক্রান্ত ৫দফা বাস্তবায়নের দাবিতে খাগড়াছড়িতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ(পিসিপি) খাগড়াছড়ি সরকারি কলেজ শাখা।

আজ বৃহস্পতিবার (১১ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১০টায় খাগড়াছড়ি সরকারি কলেজের দক্ষিণ গেইট থেকে একটি মিছিল বের করা হয়। মিছিলটি চেঙ্গী স্কোয়ার ঘুরে কলেজের প্রশাসনিক ভবনের সামনে এক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। পিসিপি’র সরকারি কলেজ শাখার সাধারণ সম্পাদক এলটন চাকমার সঞ্চালনায় ও সহ-সভাপতি তপন চাকমার সভাপতিত্বে সমাবেশে সংহতি জানিয়ে বক্তব্য রাখেন প্রগতিশীল মারমা ছাত্র সমাজের খাগড়াছড়ি সরকারি কলেজ শাখার সাধারণ সম্পাদক মংসাই মারমা ও বাংলাদেশ মারমা স্টুডেন্টস্ কাউন্সিল এর খাগড়াছড়ি সরকারি কলেজ শাখার সভাপতি চাইথোয়াই মারমা প্রমুখ ।10

বক্তারা অভিযোগ করে বলেন, বিগত ২০০০ সাল থেকে পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ পার্বত্য চট্টগ্রাম ও সমতলে বসবাসরত সকল জাতিসত্তার নিজ নিজ মাতৃভায় প্রাথমিক শিক্ষাসহ ৫দফা দাবিতে সংগ্রাম করে আসছে। এর ধারাবাহিক অংশ হিসেবে ২০০২ সালে তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া ও শিক্ষামন্ত্রী ড. ওসমান ফারুক বরাবরে স্মারকলিপি পেশ করা হয় এবং উক্ত দাবির যৌক্তিকতা মেনে নিয়ে প্রধানমন্ত্রী দপ্তর থেকে বাস্তবায়নের আশ্বাস দিয়ে পিসিপি বরাবর বার্তা প্রেরণ করা হয়। কিন্তু দাবি বাস্তবায়নে সরকার কোন পদক্ষেপ নেয়নি। পরে তিন পার্বত্য জেলায় স্কুল-কলেজ ধর্মঘটের কারণে ২০১৩ সালে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ ৬টি জাতিসত্তার (মারমা, চাকমা, ত্রিপুরা, সান্তাল, মনিপুরী, গারো) মাতৃভাষায় প্রাথমিক শিক্ষা চালু করার ঘোষণা দেন। যা ২০১৫ সাল থেকে বাস্তবায়নের কথা থাকলেও সরকার ও শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে এখনো বাস্তবায়ন করেনি। বক্তারা বলেন, শুধু বাস্তবায়নের আশ্বাস দিলে হবে না, কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে।

11বক্তারা আরো বলেন, ১৯৫২ সালে ২১শে ফেব্রুয়ারী বাংলাকে রাষ্ট্র ভাষা করার দাবিতে জীবন উৎসর্গ করেছিল ছাত্ররা। তাদের জীবন উৎসর্গ শুধু বাংলা ভাষার জন্য নয়, মাতৃভাষা স্বীকৃতি পাওয়ার জন্য। দেশে ভাষার জন্য জীবন দিতে হয়েছে ছাত্র সমাজকে, সেই স্বাধীন দেশে আজ পার্বত্য চট্টগ্রামসহ সারা দেশে সংখ্যালঘু জাতিসত্তাসমূহকে নিজস্ব মাতৃভাষার মাধ্যমে প্রাথমিক শিক্ষা লাভের জন্য আন্দোলন করতে হচ্ছে।

সমাবেশ থেকে বক্তারা অবিলম্বে শিক্ষা সংক্রান্ত ৫ দফা দ্রুত বাস্তবায়নের দাবি জানান।

এদিকে মিছিল শেষে ফেরার পথে শান্তি নিকেতন এলাকায় মেজর আতিকের নেতৃত্বে একদল সেনাবাহিনী মিছিলে অংশগ্রহণকারী ছাত্রদের আটকিয়ে ভয়ভীতি প্রদর্শন, হয়রানিমূলক ও অশ্লীল আচরণ করে এবং ধরপাকড়ের হুমকি দিয়েছে বলে পিসিপি’র নেতৃবৃন্দ অভিযোগ করেছেন। এ সময় সেনা সদস্যরা ছাত্রদের মাতৃভাষার দাবি সংবলিত হাতে লেখা প্ল্যাকার্ড ছিঁড়ে দেয় বলে তারা জানান। পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ সেনাবাহিনীর এহেন আচরণে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে।

উল্লেখ্য পিসিপি’র শিক্ষা সংক্রান্ত ৫দফা দাবিগুলো হচ্ছে- পার্বত্য চট্টগ্রামে সকল জাতিসত্তার মাতৃভাষার মাধ্যমে প্রাথমিক শিক্ষার অধিকার নিশ্চিত করা; স্কুল-কলেজের পাঠ্যপুস্তকে জাতিসত্তার প্রতি অবমাননাকর বক্তব্য বাদ দেয়া; পাহাড়ি জাতিসত্তার বীরত্বব্যঞ্জক কাহিনী এবং সঠিক সংগ্রামী ইতিহাস স্কুল-কলেজের পাঠ্যক্রমে অন্তর্ভুক্ত করা; বাংলাদেশে সকল জাতিসত্তার সংক্ষিপ্ত সঠিক তথ্য সম্বলিত পরিচিতিমূলক রচনা জাতীয় শিক্ষাক্রমে অন্তর্ভূক্ত করা এবং পার্বত্য কোটা বাতিল করে পাহাড়িদের জন্য বিশেষ কোটা চালু করা।
—————

সিএইচটিনিউজ.কম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.