মানিকছড়িতে পাহাড়ি নারী ধর্ষণের ঘটনায় হিল উইমেন্স ফেডারেশনের উদ্বেগ ও নিন্দা

0
4

খাগড়াছড়ি : হিল উইমেন্স ফেডারেশনের খাগড়াছড়ি জেলা শাখার সভাপতি দ্বিতীয়া চাকমা ও সাধারণ সম্পাদক চৈতালি চাকমা আজ সোমবার (১৪ আগস্ট ২০১৭) সংবাদ মাধ্যমে প্রদত্ত এক বিবৃতিতে গত শনিবার খাগড়াছড়ির মানিকছড়ি উপজেলার যুগ্যছোলা এলাকায় এক পাহাড়ি নারীকে ধর্ষণের ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন এবং এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন।

bibritiবিবৃতিতে নেতৃদ্বয় অভিযোগ করে বলেন, গত শনিবার ফটিকছড়ির নেপচুন চা বাগানের ত্রিপুরা পাড়া থেকে ভিক্টিম ওই নারী (নেপচুন চা বাগানের শ্রমিক) মানিকছড়ির যুগ্যছোলা বাজারে সওদা করতে যায়। বিকাল ৫টায় বাজার করে বাড়ি ফেরার পথে ভাঙ্গামুড়া গ্রামের মোঃ সফর আলীর ছেলে মোঃ সাগর মিয়া(২০) ও সেমুতাং গ্যাসফিল্ড এলাকার আলাউদ্দিন পাটোয়ারীর পুত্র মোঃ জাফর(২৩) ওই নারীকে টেনেহিঁচড়ে ভাঙ্গামুড়া এলাকার একটি খালি বাড়িতে নিয়ে গিয়ে সন্ধ্যা ৬টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত আটকে রেখে জোরপূর্বক পালাক্রমে ধর্ষণ করে। পরে ঘটনার টের পেয়ে এলাকার জনগণ রাতে ওই নারীকে সেখান থেকে উদ্ধার করে বাড়িতে নিয়ে যায়। উক্ত ঘটনায় পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা দায়ের করা হলেও পুলিশ এখনো পর্যন্ত ধর্ষকদের গ্রেফতার করেনি।

নেতৃদ্বয় আরো বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামসহ সারা দেশে শিশু থেকে শুরু করে বিভিন্ন বয়সের নারীরা ধর্ষণের শিকার হয়ে থাকে, কিন্তু প্রকৃত অপরাধীদের প্রশাসন আইনের আওতায় এনে শাস্তি প্রদান করে না। ফলে অপরাধীরা এসব ঘটনা বার বার ঘটানোর সাহস পাচ্ছে এবং এমন ঘটনা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে।

নেতৃদ্বয় অবিলম্বে ধর্ষণের ঘটনায় জড়িত দুস্কৃতকারী সেটলার বাঙালি মোঃ সাগর ও মোঃ জাফরকে গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি ও পাহাড়ি নারীসহ দেশে সকল নারীর নিরাপত্তা নিশ্চিত করার দাবি জানান।
————-
সিএইচটি নিউজ ডটকম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.