মিঠুন চাকমা হত্যার তদন্ত দাবি করেছে এ্যমনেস্টি ইন্টারন্যাশন্যাল

0
2

ডেস্ক রিপোর্ট॥ আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা এ্যমনেস্টি ইন্টারন্যাশন্যাল ইউপিডিএফ সংগঠক ও পিসিপি’র সাবেক সভাপতি মিঠুন চাকমা হত্যার তদন্ত দাবি করেছে।

(https://www.amnesty.org/en/documents/asa13/7669/2018/en/)

গতকাল বুধবার (৩ জানুয়ারি ২০১৮) এক বিবৃতিতে সংগঠনটির আদিবাসী অধিকার গবেষক ক্রিস চ্যাপম্যান বাংলাদেশ কর্তৃপক্ষের কাছে এই দাবি জানান।

তিনি বলেন, ‘যার বিরুদ্ধে (হত্যার) বিশ্বাসযোগ্য সাক্ষ্যপ্রমাণ পাওয়া যাক না কেন তাকে আন্তর্জাতিক মানদণ্ডের যথাযথ প্রক্রিয়া অনুসরণ করে শাস্তি দেয়ার ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে হবে।’

মিঠুন চাকমাকে একজন ‘আদিবাসী মানবাধিকার কর্মী’ হিসেবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘মিঠুনকে অভিযোগ গঠন ব্যতিরেকে ২০১৬ সালের ১২ জুলাই আটক করা হয় এবং একই বছর ১৮ অক্টোবর জামিনে মুক্তি না পাওয়া পর্যন্ত তিন মাস ধরে তাকে সেভাবে রাখা হয়।’

মিঠুন চাকমার বিরুদ্ধে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনে (আইসিটি) ফৌজদারী মামলাসহ বহুবিধ মামলা দায়েরের বিষয়টিও বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয় এবং বলা হয়, ‘এ্যমনেস্টি এ বিষয়ে উদ্বিগ্ন যে, এ ধরনের মামলা এমন একটি পরিবেশ সৃষ্টিতে সাহায্য করে যেখানে বাংলাদেশে মানবাধিকার কর্মীরা মানবাধিকার লঙ্ঘনের ব্যাপারে মুখ খুলতে ভয় পান।’

উল্লেখ্য, এ্যমনেন্টি ইন্টারন্যাশন্যালের ‘কট্ বিটুইন ফিয়ার এন্ড রিপ্রেসন: এটাক্স অন ফ্রিডম অফ এক্সপ্রেশন ইন (Caught Between Fear and Repression: Attacks on Freedom of Expression in Bangladesh) শিরোনামে গত বছর প্রকাশিত রিপোর্টে মিঠুন চাকমার আটকের বিষয়টিও গুরুত্ব সহকারে স্থান পেয়েছিল। (https://www.amnesty.org/en/documents/asa13/6114/2017/en/)
———————-
সিএইচটি নিউজ ডটকম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.