ম্রো জনগোষ্ঠীর সুরক্ষা চেয়ে সরকারকে দুই আন্তর্জাতিক সংগঠনের চিঠি

0
191

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ।। বান্দরবানের ম্রো জনগোষ্ঠীদের সুরক্ষা চেয়ে বাংলাদেশ সরকারের কাছে একটি খোলা চিঠি দিয়েছে এশিয়া ইন্ডিজেনাস পিপলস প্যাক্ট (এআইপিপি) থাইল্যান্ড ও ইন্টারন্যাশনাল ওয়ার্ক গ্রুপ ফর ইন্ডিজেনাস অ্যাফেয়ার্স (আইডব্লিউজিআইএ) ডেনমার্ক নামে দুটি আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠন।

গত ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহে ইমেইল ও পোস্টের মাধ্যমে এই চিঠি পাঠানো হয় বলে এশিয়া ইন্ডিজেনাস পিপলস প্যাক্ট এর মহাসচিব গ্যাম এ শিমরায় স্বাক্ষরিত একটি প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে। চিঠিটি এআইপিপি’র ওয়েবসাইটেও রয়েছে।

তাদের এই খোলা চিঠিতে বান্দরবানের চিম্বুকের ম্রো জনগোষ্ঠীকে তাদের ভূমি থেকে জোর করে উচ্ছেদ না করে সুরক্ষা দিতে প্রধানমন্ত্রী ও পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতি আহ্বান জানানো হয়।

চিঠিতে বলা হয়, বান্দরবানে পাঁচতারা হোটেল নির্মাণের প্রক্রিয়া গ্রহণ করার ফলে সেখানকার আদিবাসী ম্রো জনগোষ্ঠী জোরপূর্বক উচ্ছেদের শিকার হচ্ছে। নানা চাপে স্থানীয় আদিবাসীরা সেখানে অধিকার প্রতিষ্ঠার লড়াই করে যাচ্ছে।

চিম্বুকে পাঁচতারা হোটেল নির্মাণের প্রতিবাদে ম্রো জনগোষ্ঠীর প্রতিবাদী কালচারাল শোডাউন, ৮ নভেম্বর ২০২০। ফাইল ছবি

চিঠিতে বাংলাদেশ সরকারের কাছে ৬ দফা দাবি তুলে ধরা হয়।

দাবিগুলো হলো- চিম্বুক পাহাড়ে হোটেল নির্মাণ বন্ধ, ম্রোসহ অন্যান্য আদিবাসীদের জমিতে কিছু নির্মাণ করতে হলে তাদের সম্মতি গ্রহণ, আদিবাসীদের জীবন-জীবিকা রক্ষা এবং বিকাশে ব্যবস্থা নেওয়া, ম্রো আদিবাসী নেতাকর্মীদের হয়রানি বন্ধ, একটি স্বাধীন তদন্ত কমিশন করে বিষয়টির তদন্ত, গঠনমূলক সংলাপ, পার্বত্য চট্টগ্রাম চুক্তি বাস্তবায়নের জন্য সময়সীমা ঘোষণা করা।

চিঠির দাবিগুলোর প্রতি বিশ্বের ৮২টি আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠন এবং ১০৬ জন খ্যাতনামা ব্যক্তি, জাতিসংঘের বিশেষজ্ঞ, মানবাধিকারকর্মী, অধ্যাপক, পরিবেশবিদ, আইনবিদ ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিদের সমর্থন রয়েছে।

পুরো চিঠিটি পড়তে ক্লিক করুন এখানে

 


সিএইচটি নিউজে প্রকাশিত প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ,ভিডিও, কনটেন্ট ব্যবহার করতে হলে কপিরাইট আইন অনুসরণ করে ব্যবহার করুন।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.