রমেল চাকমার হত্যাকারী তানভীরসহ জড়িত সেনাসদস্যদের বিচারের দাবিতে পিসিপি’র বিক্ষোভ

0
2
রমেল চাকমা
# সেনা নির্যাতনে নিহত রমেল চাকমা

রাঙামাটি : রাঙামাটি জেলার নান্যাচর কলেজ থেকে এ বছর ২ এপ্রিল হতে শুরু হওয়া এইচএসসি পরীক্ষায় অংশ নেওয়া ছাত্র রমেল চাকমাকে অন্যায়ভাবে আটক ও অমানুষিক শারীরিক নির্যাতন করে হত্যাকারী মেজর তানভীর এবং নান্যাচর জোন কমান্ডার মোঃ বাহ লুল আলম সহ জড়িত সেনা সদস্যদের বিচারের দাবিতে নান্যাচর ও কাউখালিতে তাৎক্ষণিকভাবে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ(পিসিপি)।

চট্টগ্রামে মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পুলিশের পাহারায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় রমেল চাকমার মুত্যুর সংবাদ পাওয়ার সাথে সাথেই আজ বুধবার (১৯ এপ্রিল) বিকাল সাড়ে ৫টায় তাৎক্ষণিকভাবে পিসিপি নান্যাচর থানা শাখা বিক্ষোভ মিছিল বের করে। মিছিলটি সেনাবাহিনীর বাধার মূখে নান্যাচর টিএন্ডটি এলাকা থেকে শুরু হয়ে সেনাজোন গেইট পর্যন্ত গিয়ে পূনরায় টিএন্ডটি এলাকায় এসে এক প্রতিবাদ সমাবেশের মধ্য দিয়ে শেষ হয়। এতে প্রায় চার শতাধিক ছাত্র ছাত্রী ও সাধারণ জুম্ম জনগণ অংশগ্রহণ করেন।

পিসিপি’র নান্যাচর থানা শাখার সভাপতি জয়ন্ত চাকমার পরিচালনায় প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য প্রদান করেন পিসিপি রাঙামাটি জেলা শাখার সহ-সাধারণ সম্পাদক রিপন আলো চাকমা।

সমাবেশে রিপন আলো চাকমা অভিযোগ করে বলেন, নান্যাচর কলেজের এইচএসসি পরীক্ষার্থী এবং পিসিপি নান্যাচর থানা শাখার সাধারণ সম্পাদক রমেল চাকমার মৃত্যুর জন্য একমাত্র দায়ী পার্বত্য চট্টগ্রামে শান্তি বিনষ্টকারী সেনাবাহিনী ও বর্তমান ফ্যাসিবাদী সরকার। গত ৫ এপ্রিল অন্যায়ভাবে আটকের পর তার উপর মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন চালানোর কারণেই তার মৃত্যু হয়েছে।

18052716_1766400950357115_303586673_n (1)তিনি আরো বলেন, অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদের জন্য মিটিং মিছিল ও সমাবেশ করা প্রতিটি নাগরিকের গণতান্ত্রিক অধিকার থাকলেও আজ নান্যাচর জোন কমান্ডার মোঃ বাহ লুল আলম পিসিপি নেতা-কর্মী, ছাত্রছাত্রী ও এলাকার সাধারণ জনগণ রমেল চাকমাকে নির্যাতন করে হত্যার প্রতিবাদে মিছিল নিয়ে উপজেলা মাঠের দিকে যেতে চাইলে জোন গেইটে বাধা সৃষ্টি করেছে।

তিনি বলেন, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অগণতান্ত্রিক ১১নির্দেশনার পর থেকেই পার্বত্য চট্টগ্রামের সাধারণ জুম্ম ছাত্র ছাত্রী থেকে শুরু করে কিশোর-কিশোরি, যুবক-যুবতি, জনপ্রতিনিধি, ব্যবসায়ী কেউই সেনাবাহিনীর অন্যায় ধরপাকড়, নির্যাতনের হাত থেকে রেহাই পাচ্ছে না।

তিনি অবিলম্বে রমেল চাকমাকে নির্যাতন করে হত্যার ঘটনায় মেজর তানভীর  ও নান্যচর জোন কমান্ডার মোঃ বাহ লুল আলম সহ জড়িত সেনাসদস্যদের বিচারের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি, পার্বত্য চট্টগ্রাম হতে সেনাবাহিনী প্রত্যাহার ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অগণতান্ত্রিক ১১নির্দেশনা বাতিলের জোর দাবি জানান।

এদিকে বিকাল ৫টায় একই দাবি নিয়ে প্রতিবাদ মিছিল ও সমাবেশ করেন বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ(পিসিপি) কাউখালি থানা শাখার নেতা-কর্মীরা।

মিছিলটি খেলোয়াড় সমিতি মাঠ হতে শুরু হয়ে উপজেলা মাঠে এসে এক প্রতিবাদ সমাবেশে মিলিত হয়।

প্রতিবাদ সমাবেশে বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ(পিসিপি) কাউখালি থানা শাখা সভাপতি প্রজ্ঞা চাকমা একই দাবি উত্থাপন করেন এবং এইচএসসি পরীক্ষার্থী ও পিসিপি নান্যাচর থানা শাখার সাধারণ সম্পাদক রমেল চাকমার হত্যায় মেজর তানভীর  ও নান্যচর জোন কমান্ডার মোঃ বাহ লুল আলম সহ জড়িত সেনাসদস্যদের শাস্তি না হওয়া পর্যন্ত সকল কর্মসূচি বাস্তবায়নের লক্ষ্যে ছাত্রছাত্রী এবং সর্বস্তরের জুম্ম জনগণকে এগিয়ে আসার আহব্বান জানান।

উল্লেখ্য, গত ৫ এপ্রিল সকাল ১০টায় নান্যাচর বাজার থেকে প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র কিনে বাসায় ফেরার পথে উপজেলা পরিষদ এলাকা থেকে সেনা সদস্যরা রমেল চাকমাকে আটক করে জোনে নিয়ে যায়। সেখানে তার উপর দিনভর চালানো হয় মধ্যযুগীয় অমানুষিক নির্যাতন। এতে রমেল চাকমা গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়ে। পরে সেনারা তাকে থানায় হস্তান্তর করার চেষ্টা করলেও রমেলের অবস্থা গুরুতর হওয়া থানা কর্তৃপক্ষ তাকে গ্রহণে অস্বীকৃতি জানায়। এরপর সেনারা তাকে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করাতে চাইলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাদের হাসপাতালে ভর্তি করেনি। পরে সেনারা রমেল চাকমাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে দুই সপ্তাহ ধরে সেনা নজরদারি ও পুলিশ প্রহরায় চিকিসাধীন অবস্থায় পর আজ বুধবার বেলা ২টা দিকে তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

——————————

সিএইচটি নিউজ ডটকম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।


Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.