রাঙামাটিতে মেডিক্যাল কলেজ, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের কার্যক্রম স্থগিতের দাবিতে খাগড়াছড়িতে পিসিপি’র বিক্ষোভ

0
1

সিএইচটিনিউজ.কম
OLYMPUS DIGITAL CAMERAখাগড়াছড়ি: “পার্বত্য চট্টগ্রামে র‌্যাব মোতায়েন, সেনা-বিজিবি ক্যাম্প স্থাপনের বিরুদ্ধে সোচ্চার হোন” এই আহ্বানে রাঙামাটিতে মেডিক্যাল কলেজ এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের কার্যক্রম স্থগিতের দাবিতে বৃহত্তর পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ(পিসিপি) খাগড়াছড়িতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে।

আজ ১৮ জুন বুধবার সকাল ১১টায় উপজেলা পরিষদের সামনে থেকে পিসিপি’র খাগড়াছড়ি জেলা শাখার ব্যানারে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়। মিছিলটি কলেজ গেট হয়ে চেঙ্গী স্কোয়ার গেলে পুলিশ ব্যারিকেড দেয়। এরপর সেখানে এক প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের খাগড়াছড়ি জেলা শাখার সভাপতিত্বে ও সহ সাধারণ সম্পাদক সোনায়ন চাকমার সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের কেন্দ্রীয় সভাপতি থুইক্যচিং মারমা, গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের খাগড়াছড়ি জেলা শাখার আহ্বায়ক জিকু ত্রিপুরা, হিল উইমেন্স ফেডারেশনের খাগড়াছড়ি জেলা শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক রিনা চাকমা ও পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের জেলা শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক রতন স্মৃতি চাকমা।

সমাবেশে বক্তারা রাঙামাটিতে মেডিক্যাল কলেজ এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের নামে সরকার আবারো পাহাড়ি উচ্ছেদ ও সেটলার পুনর্বাসনের নতুন ষড়যন্ত্র করছে উল্লেখ করে বলেন, কাপ্তাই বাঁধের মতোই এসব উন্নয়নও পাহাড়িদের জন্য অভিশাপে পরিণত হবে। পার্বত্য চট্টগ্রামে প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা ব্যবস্থার উন্নতি না ঘটিয়ে উচ্চ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান স্থাপন করা হলে পাহাড়ি শিক্ষার্থীরা নানা বৈষম্যের শিকার হবে বলে বক্তারা উল্লেখ করেন।

বক্তারা পার্বত্য চট্টগ্রামের স্থায়ী সমাধান ‘পূর্ণস্বায়ত্তশাসন’ বাস্তবায়ন না হওয়া পর্যন্ত মেডিক্যাল কলেজ, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন কার্যক্রম বন্ধ রাখার জোর দাবি জানান।OLYMPUS DIGITAL CAMERA

সমাবেশে বক্তাগণ পার্বত্য চট্টগ্রামে র‌্যাব মোতায়েন ও বিজিবি ক্যাম্প স্থাপনের নামে পাহাড়িদের উচ্ছেদের তীব্র সমালোচনা করে বলেন, পাহাড়িদের ন্যায্য অধিকার আদায়ের সংগ্রাম ধ্বংস করার জন্য এবং ভুমি বেদখলের মাধ্যমে পাহাড়িদেরকে নিজভূমে পরবাসী করার জন্যই র‌্যাব ও বিজিবি ক্যম্প স্থাপনের তোড়জোড় চলছে। সীমান্ত নিরাপত্তা দেয়ার নাম করে বিজিবি ক্যাম্প স্থাপন করার কথা বলা হলেও এযাবৎ দেখা গেছে, যেখানেই সেনা ও নিরাপত্তা বাহিনী তথা বিজিবির ক্যম্প স্থাপন করা হয়েছে সেখানেই সরকার পাহাড়ি জনগণের ভুমি বেদখল করেছে এবং জবরদখলকৃত ভুমিতে সেটলার পুনর্বাসনের ব্যবস্থা করেছে।

নেতৃবৃন্দ দীঘিনালার বাবুছড়ায় বিজিবি ব্যাটালিয়ন সদর দপ্তর স্থাপনের নামে পাহাড়িদের জায়গা-জমি বেদখল ও  নিরীহ গ্রামবাসীদের উপর হামলার নিন্দা জানিয়ে বলেন, বিজিবি ব্যাটালিয়ন সদর দপ্তর স্থাপনের নামে সরকার পাহাড়িদের ধ্বংসের চক্রান্ত করছে। সরকারের এ অন্যায় পার্বত্য জনগণ কোনোদিন মেনে নেবে না। প্রয়োজনে জনগণকে সাথে নিয়ে এর বিরুদ্ধে তীব্র ছাত্র-গণ আন্দোলন গড়ে তোলা হবে বলে নেতৃবৃন্দ হুশিয়ারী উচ্চারণ করেন।

সমাবেশ থেকে নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে বাবুছড়ায় বিজিবি কর্তৃক পাহাড়িদের নিজ জায়গা-জমি থেকে উচ্ছেদের ষড়যন্ত্র বন্ধ করা; তাদের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মামলা প্রত্যাহারপূর্বক আটককৃতদের নিঃশর্ত মুক্তি, খাগড়াছড়িতে ১৫ জুন তিন সংগঠনের ডাকা অর্ধদিবস সড়ক অবরোধকে কেন্দ্র করে ২৫০ নেতা-কর্মীর বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানান।

এছাড়া সমাবেশ থেকে বক্তারা ঢাকার মিরপুরে উর্দুভাষীদের ক্যাম্পে হামলা ও ১০ জনকে পুড়িয়ে হত্যার ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান এবং এ ঘটনার সাথে জড়িতদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেন।
————

সিএইচটিনিউজ.কম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.