রাঙামাটিতে ৫০ জনের অধিক লোককে আটকে রাখার অভিযোগ

0
2

রাঙামাটি প্রতিনিধি
সিএইচটিনিউজ.কম
রাঙামাটির লংগদু ও বরকল উপজেলার সীমান্তবর্তী কাট্টলী এলাকা থেকে ৫০ জনের অধিক লোককে আটকে রাখার অভিযোগ পাওয়া গেছে। জেএসএস(সন্তু গ্রুপ) তাদেরকে নিজেদের কর্মী ও সমর্থক বলে দাবি করছে। তাদের দাবি গতকাল ১৫ ফেব্রুয়ারি জেএসএস-এর ৪১ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন শেষে এসব লোকজন আজ শনিবার সকালে রাঙামাটি হতে বাড়ি ফিরে যাচ্ছিলেন।
অভিযোগে জানা যায়, গতকাল ১৫ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার জেএসএস(সন্তু গ্রুপ) রাঙামাটিতে ৪১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন করে। এ অনুষ্ঠান শেষে কাট্টলী এলাকা থেকে আসা জেএসএস(সন্তু গ্রুপ)-এর কর্মী ও সমর্থকরা আজ শনিবার সকালে বাড়ি ফিরে যাচ্ছিলেন। ফেরার পথে কাট্টলীর বরণাছড়ি এলাকায় পৌঁছলে কিছু অজ্ঞাত লোক তাদের বহনকারী ইঞ্জিন চালিত বোট থামিয়ে তাদেরকে আটক করে নিয়ে যায়। তবে কে বা কারা এ ঘটনা ঘটিয়েছে এবং তাদেরকে কোথায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত (দুপুর ১২.৪০টা) তা জানা যায়নি।
এ বিষয়ে স্থানীয় এলাকাবাসী ও একটি গোপন সূত্র থেকে প্রাপ্ত খবরে জানা গেছে, যাদেরকে আটকে রাখা হয়েছে বলে অভিযোগ করা হচ্ছে তাদের মধ্যে জেএসএস(সন্তু)-এর সশস্ত্র গ্রুপের ১০/১২ জন সদস্যও রয়েছেন। দীর্ঘদিন ধরে তারা রাঙামাটির বিভিন্ন এলাকায় সশস্ত্র তপরতা চালিয়ে আসছে। তাদের সশস্ত্র হামলায় ইতিমধ্যে বেশ কয়েকজন জেএসএস(এমএন লারমা) ও ইউপিডিএফ কর্মী হতাহত হয়েছেন। তাদের অব্যাহত সন্ত্রাসী কর্মকান্ডে এলাকার জনগণ অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছেন।
জেএসএস(সন্তু গ্রুপ) এ ঘটনার জন্য ইউপিডিএফকে দায়ী করলেও ইউপিডিএফ তা অস্বীকার করে বলেছে, এ ধরনের কোন ঘটনার সাথে ইউপিডিএফ সংশ্লিষ্ট নয়। প্রতিহিংসা পরায়ণ হয়ে সন্তু গ্রুপ ইউপিডিএফ’র বিরুদ্ধে এ ধরনের অপপ্রচারের আশ্রয় নিয়েছে। গতবারও তারা সুবলঙ থেকে ১২ নারীকে অপহরণের মিথ্যা অভিযোগ করেছিল।#

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.