রাঙামাটির কুদুকছড়িতে দুই ব্যক্তিকে আটক করেছে সেনাবাহিনী

0
0

সিএইচটিনিউজ.কম
Rangamati2কুদুকছড়ি(রাঙামাটি): রাঙামাটির সদর উপজেলার কুদুকছড়িতে ষড়যন্ত্রমূলকভাবে দুই ব্যক্তিকে আটক করেছে সেনাবাহিনী ।

আটককৃতরা হলেন- মানব জ্যোতি চাকমা(৩০)-পিতা মৃত চুন্নিলাল চাকমা ও বিনিময় চাকমা(২৮), পিতা- শান্তি রঞ্জন চাকমা। তাদের উভয়ের বাড়ি কুদুকছড়ি ইউনিয়নের চংড়াছড়ি গ্রামে। এর মধ্যে মানব জ্যোতি চাকমা একজন দোকানদার।

জানা যায়, আজ রবিবার (৫ জুলাই) কুদুকছড়ি বাজারের হাটের দিন। মালামাল কেনা-বেচা করতে বিভিন্ন এলাকা থেকে লোকজন বাজারে এসেছিলেন। কুদুকছড়ি মূল বাজারের পাশে কয়েকটি দোকান নিয়ে গড়ে উঠা হাফ বাজার(স্থানীয়দের দেয়া নাম) নামক স্থানে মানবজ্যোতি চাকমার চায়ের দোকানে তার গ্রামের লোকজন এসে জড়ো হয়েছিলেন। সকাল আনুমানিক সাড়ে ১০টার সময় কুদুকছড়ি ক্যাম্পের কমান্ডার মেজর রাকিব-এর নেতৃত্বে একদল সেনা সদস্য মানব জ্যোতি চাকমার দোকানে আসে। তারা দোকানের ভিতর ঢুকে লোকজনের ভীড়ের মধ্যে নিজেদের নিয়ে আসা একটি প্যাকেটে মোড়ানো ২৬ রাউন্ড গুলি দোকানের বেঞ্চের নীচে রেখে দেয়। লোকজনের ভীড় থাকায় মানব জ্যোতি চাকমা তখন কোন কিছুই বুঝে উঠতে পারেননি। সেনারা যখন দোকানে তল্লাশি করে বেঞ্চের নীচ থেকে তাদের রেখে দেওয়া ওই গুলির প্যাকেটটা খুঁজে পায় তখনই সেনাদের ষড়যন্ত্র বুঝতে পারেন তিনি।

নিজেদের রেখে দেওয়া এই গুলির প্যাকেটটি খুঁজে পাওয়ার পর সেনা সদস্যরা মানব জ্যোতি চাকমা, বিনিময় চাকমা এবং দোকানে থাকা আরো ৬ জনকে ক্যাম্পে ধরে নিয়ে যায়। পরে ক্যাম্প থেকে ওই ৬ জনকে ছেড়ে দেওয়া হলেও মানব জ্যোতি চাকমা ও বিনিময় চাকমাকে আটক করে রাঙামাটি কোতোয়ালি থানায় সোপর্দ করে।

ক্যাম্প থেকে যাদেরকে ছেড়ে দেওয়া হয় তারা হলেন- ক্লিনটন চাকমা(২৮), পিতা- প্রতি চাকমা, ত্রিপন চাকমা(২৭), পিতা- মৃত খগেন্দ্র চাকমা, শান্তি লাল চাকমা(২৮), পিতা- বিশ্বমনি চাকমা, সোনারাজ্য চাকমা(২২), পিতা- আনন্দ লাল চাকমা, ইন্টু চাকমা (২২), পিতা- নিরঞ্জিব চাকমা ও তার ভাই মিন্টু চাকমা(১৭)। তারা সবাই চংড়াছড়ি গ্রাম থেকে বাজারে সওদা করতে এসেছিলেন।

সেনাবাহিনীর এই কর্মকাণ্ডে বাজারে আসা লোকজনের মধ্যে চরম আতঙ্ক দেখা দেয়।

উল্লেখ্য, গত জানুয়ারি মাসে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দমনমূলক ১১ নির্দেশনা জারির পর থেকে সেনাবাহিনী বেপরোয়াভাবে নিপীড়ন-নির্যাতন, অন্যায় ধরপাকড় ও হয়রানিমূলক অভিযান চালিয়ে যাচ্ছে। এত সাধারণ লোকজন নানা হয়রানির শিকার হচ্ছেন।
——————–

সিএইচটিনিউজ.কম’র প্রচারিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দিলে যথাযথ সূত্র উল্লেখপূর্বক ব্যবহার করুন


Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.